বিধ্বংসী বায়ার্ন নড়বড়ে বার্সা
jugantor
বিধ্বংসী বায়ার্ন নড়বড়ে বার্সা
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে আজ মুখোমুখি দুই সাবেক চ্যাম্পিয়ন

  স্পোর্টস ডেস্ক  

১৪ আগস্ট ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেসি আক্ষেপ করে বলতেই পারেন, এমন দিনও দেখতে হল! কেমন দিন? পরিষ্কার আন্ডারডগ হিসেবে মাঠে নামছে বার্সেলোনা! লিসবনে আজ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে দেখা হচ্ছে টুর্নামেন্টে টিকে থাকা শেষ দুই সাবেক চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখের।

দু’দলই পাঁচবারের ইউরোপসেরা। কিন্তু ফর্ম বিবেচনায় বিধ্বংসী বায়ার্নের বিপক্ষে নড়বড়ে বার্সার কোনো আশাই দেখছেন না ফুটবলবোদ্ধারা। ১৬ বছরের বার্সা ক্যারিয়ারে সম্ভবত এই প্রথম আন্ডারডগ হিসেবে নামতে হচ্ছে মেসিকে। জার্মান মিডিয়া যেভাবে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করছে বার্সাকে, সেটাই হতে পারে আর্জেন্টাইন জাদুকরের জ্বলে ওঠার জ্বালানি। আর মেসি জ্বলে না উঠলে কোনো আশা নেই কাতালানদের।

বাকি স্কোয়াডের অধারাবাহিকতায় বার্সার মেসিনির্ভরতা ইতিহাসের শিখর ছুঁতে বসেছে। ঘরোয়া ডাবল জিতে লিসবনে পা রাখা বায়ার্নের সামনে ট্রেবলের হাতছানি। বিপরীতে শূন্য হাতে মৌসুম শেষের শঙ্কায় বার্সা। ভরাডুবি এড়াতে মেসিই এখন শেষ ভরসা। লড়াইটা যেন মেসি বনাম বায়ার্নের।

মেসির জবাবে বায়ার্নের তুণে আছে রবার্ট লেওয়ানডোস্কির মতো মারণাস্ত্র। এ মৌসুমে সব মিলিয়ে ৪৪ ম্যাচে ৫৩ গোল করেছেন এই পোলিশ ফরোয়ার্ড। এর মধ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সাত ম্যাচেই ১৩ গোল! ইউরো মঞ্চে গোলসংখ্যায় এটাই লেওয়ানডোস্কির সেরা মৌসুম। যেখানে মেসি করেছেন মাত্র তিন গোল। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যা তার সর্বনিু। সব মিলিয়ে এবার ৩১ গোল করা মেসি বানিয়ে দিয়েছেন ২৭ গোল।

তবে গোল বা অ্যাসিস্ট দিয়ে কখনোই তাকে বিচার করা যায় না। মেসি মানে জাদু। লেওয়ানডোস্কির খেলায় যা নেই। বায়ার্নের জার্মান কিংবদন্তি লুথার ম্যাথিউস অবশ্য

লেওয়ানডোস্কিকেই এগিয়ে রাখছেন, ‘মেসি তার উত্তরসূরি বিশ্বের সেরা ফুটবলার লেওয়ানডোস্কির মুখোমুখি হবে।’ বার্সাকেও পাত্তা দিচ্ছেন না ম্যাথিউস, ‘বার্সেলোনা এখন আর আগের মতো নেই। হ্যাঁ, মেসি আছে। তার মতো খেলোয়াড় অসাধারণ কিছু ঘটাতেই পারে। কিন্তু মেসি একা বায়ার্নকে থামাতে পারবে না। বার্সাকে নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই।’

আলোচনা শুধু মেসিকে নিয়ে হলেও তার আক্রমণভাগের দুই সঙ্গী লুইস সুয়ারেজ ও আঁতোয়া গ্রিজমানও নিজেদের দিনে ম্যাথিউসের মুখ বন্ধ করে দিতে পারেন। তবে দল হিসেবে বার্সার চেয়ে ঢের সুসংগঠিত বায়ার্ন। লড়াইটা হবে দু’দলের দুই জার্মান গোলকিপার ম্যানুয়েল নুয়ার ও মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেনের মধ্যেও।

বিধ্বংসী বায়ার্ন নড়বড়ে বার্সা

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে আজ মুখোমুখি দুই সাবেক চ্যাম্পিয়ন
 স্পোর্টস ডেস্ক 
১৪ আগস্ট ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেসি আক্ষেপ করে বলতেই পারেন, এমন দিনও দেখতে হল! কেমন দিন? পরিষ্কার আন্ডারডগ হিসেবে মাঠে নামছে বার্সেলোনা! লিসবনে আজ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে দেখা হচ্ছে টুর্নামেন্টে টিকে থাকা শেষ দুই সাবেক চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা ও বায়ার্ন মিউনিখের।

দু’দলই পাঁচবারের ইউরোপসেরা। কিন্তু ফর্ম বিবেচনায় বিধ্বংসী বায়ার্নের বিপক্ষে নড়বড়ে বার্সার কোনো আশাই দেখছেন না ফুটবলবোদ্ধারা। ১৬ বছরের বার্সা ক্যারিয়ারে সম্ভবত এই প্রথম আন্ডারডগ হিসেবে নামতে হচ্ছে মেসিকে। জার্মান মিডিয়া যেভাবে তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করছে বার্সাকে, সেটাই হতে পারে আর্জেন্টাইন জাদুকরের জ্বলে ওঠার জ্বালানি। আর মেসি জ্বলে না উঠলে কোনো আশা নেই কাতালানদের।

বাকি স্কোয়াডের অধারাবাহিকতায় বার্সার মেসিনির্ভরতা ইতিহাসের শিখর ছুঁতে বসেছে। ঘরোয়া ডাবল জিতে লিসবনে পা রাখা বায়ার্নের সামনে ট্রেবলের হাতছানি। বিপরীতে শূন্য হাতে মৌসুম শেষের শঙ্কায় বার্সা। ভরাডুবি এড়াতে মেসিই এখন শেষ ভরসা। লড়াইটা যেন মেসি বনাম বায়ার্নের।

মেসির জবাবে বায়ার্নের তুণে আছে রবার্ট লেওয়ানডোস্কির মতো মারণাস্ত্র। এ মৌসুমে সব মিলিয়ে ৪৪ ম্যাচে ৫৩ গোল করেছেন এই পোলিশ ফরোয়ার্ড। এর মধ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সাত ম্যাচেই ১৩ গোল! ইউরো মঞ্চে গোলসংখ্যায় এটাই লেওয়ানডোস্কির সেরা মৌসুম। যেখানে মেসি করেছেন মাত্র তিন গোল। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যা তার সর্বনিু। সব মিলিয়ে এবার ৩১ গোল করা মেসি বানিয়ে দিয়েছেন ২৭ গোল।

তবে গোল বা অ্যাসিস্ট দিয়ে কখনোই তাকে বিচার করা যায় না। মেসি মানে জাদু। লেওয়ানডোস্কির খেলায় যা নেই। বায়ার্নের জার্মান কিংবদন্তি লুথার ম্যাথিউস অবশ্য

লেওয়ানডোস্কিকেই এগিয়ে রাখছেন, ‘মেসি তার উত্তরসূরি বিশ্বের সেরা ফুটবলার লেওয়ানডোস্কির মুখোমুখি হবে।’ বার্সাকেও পাত্তা দিচ্ছেন না ম্যাথিউস, ‘বার্সেলোনা এখন আর আগের মতো নেই। হ্যাঁ, মেসি আছে। তার মতো খেলোয়াড় অসাধারণ কিছু ঘটাতেই পারে। কিন্তু মেসি একা বায়ার্নকে থামাতে পারবে না। বার্সাকে নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই।’

আলোচনা শুধু মেসিকে নিয়ে হলেও তার আক্রমণভাগের দুই সঙ্গী লুইস সুয়ারেজ ও আঁতোয়া গ্রিজমানও নিজেদের দিনে ম্যাথিউসের মুখ বন্ধ করে দিতে পারেন। তবে দল হিসেবে বার্সার চেয়ে ঢের সুসংগঠিত বায়ার্ন। লড়াইটা হবে দু’দলের দুই জার্মান গোলকিপার ম্যানুয়েল নুয়ার ও মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেনের মধ্যেও।