এখন সময় ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু করার
jugantor
শ্রীলংকা সফর স্থগিত
এখন সময় ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু করার

  স্পোর্টস রিপোর্টার  

২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দু’সপ্তাহ ধরে চলল জল্পনা-কল্পনা। শ্রীলংকার উত্তরের অপেক্ষায় কেটে গেল এতদিন।

আগেরদিন তাদের স্বাস্থ্য নির্দেশিকা হাতে পাওয়ার পর বিসিবি বুঝে যায়, সফর এখন আর সম্ভব নয়। সোমবার এলো ঘোষণা, দু’দেশের বোর্ডের সমঝোতায় বাংলাদেশ দলের শ্রীলংকা সফর স্থগিত করা হল।

১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার প্রশ্নে ছাড় দিতে প্রস্তুত নয় শ্রীলংকা। বিসিবি চেয়েছিল সাত দিনের কোয়ারেন্টিন।

অন্য সব বিষয়ে শ্রীলংকা ক্রিকেট (এসএলসি) নমনীয় হলেও কোয়ারেন্টিন ইস্যুতে পিছু হটতে রাজি হয়নি তারা। এক্ষেত্রে অসহায় ছিল তারা। সে দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কড়াকড়ির দরুন এছাড়া আর কোনো উপায়ও ছিল না এসএলসির।

তাই মুমিনুল-মুশফিকদের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ আপাতত হিমঘরে চলে গেল।

সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমকে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিলেন সফর স্থগিত হওয়ার খবর।

নাজমুল হাসান এর আগে বলেছিলেন, শ্রীলংকা সফর না হলে ঘরোয়া ক্রিকেটে মনোনিবেশ করবেন তারা। কাল সে প্রসঙ্গ উঠে এলো। বিসিবি সভাপতি সংবাদমাধ্যমকে জানালেন, ঘরোয়া ক্রিকেট আবার শুরু করতে আগ্রহী তারা। কোনো বিদেশি দলকে আতিথ্য দেয়ার পরিকল্পনা নেই।

বিদেশি দল মানে, আফগানিস্তান কিংবা জিম্বাবুয়েকে ডেকে এনে তাদের সঙ্গে খেলা।

নাজমুল হাসান বলেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে অনেক খেলা হয়নি। যদি দেখি কোনো সমস্যা ছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেট চালাতে পারছি, তখন ভেবে দেখব কোনো দলকে আনা যায় কি না। কিন্তু এখনই কোনো বিদেশি আনতে চাই না।’

এদিকে আগেই অনুশীলন শুরু করেছেন ক্রিকেটাররা। করোনার মধ্যে বাংলাদেশে আসতে হবে, অনেকটা এমন ভাবনা থেকেই পারিবারিক কারণ দেখিয়ে ব্যাটিং পরামর্শক নিল ম্যাকেঞ্জি সরে দাঁড়ান। তার পরিবর্তে নিউজিল্যান্ডের ক্রেগ ম্যাকমিলানকে নিয়োগ দেয়া হলে তিনিও সরে দাঁড়ান।

পারিবারিক কারণ দেখালেও আড়ালে ছিল শর্ত। এরই মধ্যে ক্রিকেটারদের তিনবার করোনা পরীক্ষা হয়েছে। প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোসহ অন্যরা এসেছেন। কোচরা আপাতত বাংলাদেশেই থাকছেন।

বিসিবি ঘরোয়া ক্রিকেট ফেরাবে, স্থগিত লিগ চালু করবে এটাই বাস্তবতা। বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘এখন খেলা শুরু করব। ক্যাম্প চলবে।’

তিনি বলেন, ‘ছয়টি দল নাকি এইচপি, যুব দল ও জাতীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে চার দলের একটি টুর্নামেন্ট করব সেটাই সিদ্ধান্ত নেয়ার ব্যাপার। ভেন্যুও একটি বিষয়। আর ক্রিকেট চালু করা তো সহজ ব্যাপার। কিন্তু কীভাবে করোনা সুরক্ষা থেকে এই খেলা শুরু করা যায় সেটাই আসল।’

শ্রীলংকা সফর স্থগিত

এখন সময় ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু করার

 স্পোর্টস রিপোর্টার 
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দু’সপ্তাহ ধরে চলল জল্পনা-কল্পনা। শ্রীলংকার উত্তরের অপেক্ষায় কেটে গেল এতদিন।

আগেরদিন তাদের স্বাস্থ্য নির্দেশিকা হাতে পাওয়ার পর বিসিবি বুঝে যায়, সফর এখন আর সম্ভব নয়। সোমবার এলো ঘোষণা, দু’দেশের বোর্ডের সমঝোতায় বাংলাদেশ দলের শ্রীলংকা সফর স্থগিত করা হল।

১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার প্রশ্নে ছাড় দিতে প্রস্তুত নয় শ্রীলংকা। বিসিবি চেয়েছিল সাত দিনের কোয়ারেন্টিন।

অন্য সব বিষয়ে শ্রীলংকা ক্রিকেট (এসএলসি) নমনীয় হলেও কোয়ারেন্টিন ইস্যুতে পিছু হটতে রাজি হয়নি তারা। এক্ষেত্রে অসহায় ছিল তারা। সে দেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কড়াকড়ির দরুন এছাড়া আর কোনো উপায়ও ছিল না এসএলসির।

তাই মুমিনুল-মুশফিকদের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ আপাতত হিমঘরে চলে গেল।

সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সংবাদমাধ্যমকে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিলেন সফর স্থগিত হওয়ার খবর।

নাজমুল হাসান এর আগে বলেছিলেন, শ্রীলংকা সফর না হলে ঘরোয়া ক্রিকেটে মনোনিবেশ করবেন তারা। কাল সে প্রসঙ্গ উঠে এলো। বিসিবি সভাপতি সংবাদমাধ্যমকে জানালেন, ঘরোয়া ক্রিকেট আবার শুরু করতে আগ্রহী তারা। কোনো বিদেশি দলকে আতিথ্য দেয়ার পরিকল্পনা নেই।

বিদেশি দল মানে, আফগানিস্তান কিংবা জিম্বাবুয়েকে ডেকে এনে তাদের সঙ্গে খেলা।

নাজমুল হাসান বলেন, ‘ঘরোয়া ক্রিকেটে অনেক খেলা হয়নি। যদি দেখি কোনো সমস্যা ছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেট চালাতে পারছি, তখন ভেবে দেখব কোনো দলকে আনা যায় কি না। কিন্তু এখনই কোনো বিদেশি আনতে চাই না।’

এদিকে আগেই অনুশীলন শুরু করেছেন ক্রিকেটাররা। করোনার মধ্যে বাংলাদেশে আসতে হবে, অনেকটা এমন ভাবনা থেকেই পারিবারিক কারণ দেখিয়ে ব্যাটিং পরামর্শক নিল ম্যাকেঞ্জি সরে দাঁড়ান। তার পরিবর্তে নিউজিল্যান্ডের ক্রেগ ম্যাকমিলানকে নিয়োগ দেয়া হলে তিনিও সরে দাঁড়ান।

পারিবারিক কারণ দেখালেও আড়ালে ছিল শর্ত। এরই মধ্যে ক্রিকেটারদের তিনবার করোনা পরীক্ষা হয়েছে। প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোসহ অন্যরা এসেছেন। কোচরা আপাতত বাংলাদেশেই থাকছেন।

বিসিবি ঘরোয়া ক্রিকেট ফেরাবে, স্থগিত লিগ চালু করবে এটাই বাস্তবতা। বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘এখন খেলা শুরু করব। ক্যাম্প চলবে।’

তিনি বলেন, ‘ছয়টি দল নাকি এইচপি, যুব দল ও জাতীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে চার দলের একটি টুর্নামেন্ট করব সেটাই সিদ্ধান্ত নেয়ার ব্যাপার। ভেন্যুও একটি বিষয়। আর ক্রিকেট চালু করা তো সহজ ব্যাপার। কিন্তু কীভাবে করোনা সুরক্ষা থেকে এই খেলা শুরু করা যায় সেটাই আসল।’

 

ঘটনাপ্রবাহ : বাংলাদেশের শ্রীলংকা সফর-২০২০

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০