শাস্তি প্রত্যাহার করে হকি মাঠে ফেরানোর উদ্যোগ
jugantor
শাস্তি প্রত্যাহার করে হকি মাঠে ফেরানোর উদ্যোগ

  স্পোর্টস রিপোর্টার  

২১ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দুই বছর আগে সৃষ্ট জটিলতার অবসান হল মঙ্গলবার। মোহমেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও মেরিনার্স ইয়াংয়ের কর্মকর্তাদের শাস্তি প্রত্যাহার করে নিয়েছে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন।

হকি আবার মাঠে ফেরানোর জন্য সব ধরনের উদ্যোগ নেয়ার কথা বলেছেন ফেডারেশনের সভাপতি বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাশিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত।

২০১৮ সালে এক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় জড়িত থাকায় মোহামেডান দলের কর্মকর্তা আরিফুল হক প্রিন্স, ম্যানেজার আসাদুজ্জামান চন্দন ও মেরিনার্সের সাধারণ সম্পাদক হাসানউল্লাহ খান রানাকে ৫ বছরের জন্য বহিষ্কার ও এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়। কর্মকর্তা নজরুল ইসলামকে ৩ বছরের জন্য বহিষ্কার ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছিল নির্বাহী কমিটি।

ওই বছর জুনে লিগের সুপার ফাইভে মোহামেডান ও মেরিনার্সের ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে দফায় দফায় রিভিউ এবং খেলা বন্ধ থাকার জেরে শেষ পর্যন্ত ৪৪ মিনিট পর আর খেলা হয়নি। ম্যাচটি ১-১ গোলে অমীমাংসিত থাকে। পরে মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়।

মঙ্গলবার হকি ফেডারেশনের নির্বাহী কমিটির সভা শেষে এয়ার চিফ মার্শাল মাশিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বলেন, ‘প্রিমিয়ার লিগ মাঠে ফেরাতে হবে। অনেকের শাস্তি হয়েছিল। সেসব শর্তসাপেক্ষে মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

সবার বক্তব্য শুনে আমরা একটা জিনিস চাই, সবাই যেন খেলতে আসে। তবে গঠনতন্ত্রের সঙ্গে আপস করতে চাই না। যদি করতে হয়, তাহলে বাইলজে পরিবর্তন এনে করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘লিগ অনেক দিন হয় না। আগামী পাঁচ-সাত দিনের মধ্যে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। আশা করি, আগামী ১ ডিসেম্বর প্রিমিয়ার লিগ চালু করতে পারব। দলবদলের জন্য ১০-১৫ দিন সময় দেয়া হবে।’

এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকায় অনূর্ধ্ব-২১ এশিয়া কাপ হকির আসর বসার কথা। জানুয়ারিতে এ টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য সরকারের অনুমতি এখনও পায়নি হকি ফেডারেশন।

শাস্তি প্রত্যাহার করে হকি মাঠে ফেরানোর উদ্যোগ

 স্পোর্টস রিপোর্টার 
২১ অক্টোবর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

দুই বছর আগে সৃষ্ট জটিলতার অবসান হল মঙ্গলবার। মোহমেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও মেরিনার্স ইয়াংয়ের কর্মকর্তাদের শাস্তি প্রত্যাহার করে নিয়েছে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন।

হকি আবার মাঠে ফেরানোর জন্য সব ধরনের উদ্যোগ নেয়ার কথা বলেছেন ফেডারেশনের সভাপতি বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাশিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত।

২০১৮ সালে এক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় জড়িত থাকায় মোহামেডান দলের কর্মকর্তা আরিফুল হক প্রিন্স, ম্যানেজার আসাদুজ্জামান চন্দন ও মেরিনার্সের সাধারণ সম্পাদক হাসানউল্লাহ খান রানাকে ৫ বছরের জন্য বহিষ্কার ও এক লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়। কর্মকর্তা নজরুল ইসলামকে ৩ বছরের জন্য বহিষ্কার ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছিল নির্বাহী কমিটি।

ওই বছর জুনে লিগের সুপার ফাইভে মোহামেডান ও মেরিনার্সের ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে দফায় দফায় রিভিউ এবং খেলা বন্ধ থাকার জেরে শেষ পর্যন্ত ৪৪ মিনিট পর আর খেলা হয়নি। ম্যাচটি ১-১ গোলে অমীমাংসিত থাকে। পরে মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়।

মঙ্গলবার হকি ফেডারেশনের নির্বাহী কমিটির সভা শেষে এয়ার চিফ মার্শাল মাশিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বলেন, ‘প্রিমিয়ার লিগ মাঠে ফেরাতে হবে। অনেকের শাস্তি হয়েছিল। সেসব শর্তসাপেক্ষে মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

সবার বক্তব্য শুনে আমরা একটা জিনিস চাই, সবাই যেন খেলতে আসে। তবে গঠনতন্ত্রের সঙ্গে আপস করতে চাই না। যদি করতে হয়, তাহলে বাইলজে পরিবর্তন এনে করতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘লিগ অনেক দিন হয় না। আগামী পাঁচ-সাত দিনের মধ্যে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। আশা করি, আগামী ১ ডিসেম্বর প্রিমিয়ার লিগ চালু করতে পারব। দলবদলের জন্য ১০-১৫ দিন সময় দেয়া হবে।’

এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকায় অনূর্ধ্ব-২১ এশিয়া কাপ হকির আসর বসার কথা। জানুয়ারিতে এ টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য সরকারের অনুমতি এখনও পায়নি হকি ফেডারেশন।