১০ মাস পর স্থগিত সিরিজ গড়াচ্ছে মাঠে
jugantor
ইংল্যান্ড শ্রীলংকা
১০ মাস পর স্থগিত সিরিজ গড়াচ্ছে মাঠে

  ক্রীড়া ডেস্ক  

১৪ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিরিজ হওয়ার কথা ছিল গত বছরের মার্চে। কিন্তু করেনার প্রকোপে না খেলেই শ্রীলংকা থেকে ফিরে যেতে হয় ইংল্যান্ডকে। ১০ মাস পর অবশেষে মাঠে গড়াচ্ছে স্থগিত হয়ে যাওয়া সেই সিরিজ। আজ গলে শুরু হচ্ছে দুই সিরিজের প্রথম টেস্ট।

২০১৮ সালে ইংল্যান্ডের কাছে ৩-০তে সিরিজ হারার পর গত ২৫ মাসে ঘরের মাঠে মাত্র দুটি টেস্ট খেলেছে শ্রীলংকা। এই সময়ে সব মিলিয়ে খেলা ১৪ টেস্টের মাত্র চারটিতে জিতেছে তারা। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ধবলধোলাই হওয়ার দুঃস্বপ্ন এখনও টাটকা। তবু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের স্বপ্ন দেখছে লংকানরা। আশায় বুক বাঁধার তিনটি কারণ আছে স্বাগতিকদের। চোট কাটিয়ে কাল দলে ফিরেছেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার আঞ্জেলো ম্যাথিউস ও পেসার নুয়ান প্রদীপ।

২২ জনের দলে আছেন অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা প্রতিশ্রুতিশীল অলরাউন্ডার রমেশ মেন্ডিস। দ্বিতীয় কারণ, সিরিজের দুটি টেস্টই হবে শ্রীলংকার দুর্গ খ্যাত গলে। এই ভেন্যুতেই লংকানদের টেস্ট রেকর্ড সবচেয়ে ভালো।

এছাড়া ইংল্যান্ড এসেছে কিছুটা খর্বশক্তির দল নিয়ে। বেন স্টোকস ও জফরা আর্চারের অনুপস্থিতি স্বস্তি দিচ্ছে স্বাগতিকদের। শ্রীলংকায় এসে করোনা পজিটিভ হওয়ায় মঈন আলীকেও পাচ্ছে না ইংল্যান্ড। তবে দুদলের সাম্প্রতিক ফর্ম বিবেচনায় জো রুটের ইংল্যান্ডকে এগিয়ে রাখতে হবে।

ইংল্যান্ড শ্রীলংকা

১০ মাস পর স্থগিত সিরিজ গড়াচ্ছে মাঠে

 ক্রীড়া ডেস্ক 
১৪ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সিরিজ হওয়ার কথা ছিল গত বছরের মার্চে। কিন্তু করেনার প্রকোপে না খেলেই শ্রীলংকা থেকে ফিরে যেতে হয় ইংল্যান্ডকে। ১০ মাস পর অবশেষে মাঠে গড়াচ্ছে স্থগিত হয়ে যাওয়া সেই সিরিজ। আজ গলে শুরু হচ্ছে দুই সিরিজের প্রথম টেস্ট।

২০১৮ সালে ইংল্যান্ডের কাছে ৩-০তে সিরিজ হারার পর গত ২৫ মাসে ঘরের মাঠে মাত্র দুটি টেস্ট খেলেছে শ্রীলংকা। এই সময়ে সব মিলিয়ে খেলা ১৪ টেস্টের মাত্র চারটিতে জিতেছে তারা। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ধবলধোলাই হওয়ার দুঃস্বপ্ন এখনও টাটকা। তবু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের স্বপ্ন দেখছে লংকানরা। আশায় বুক বাঁধার তিনটি কারণ আছে স্বাগতিকদের। চোট কাটিয়ে কাল দলে ফিরেছেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার আঞ্জেলো ম্যাথিউস ও পেসার নুয়ান প্রদীপ।

২২ জনের দলে আছেন অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা প্রতিশ্রুতিশীল অলরাউন্ডার রমেশ মেন্ডিস। দ্বিতীয় কারণ, সিরিজের দুটি টেস্টই হবে শ্রীলংকার দুর্গ খ্যাত গলে। এই ভেন্যুতেই লংকানদের টেস্ট রেকর্ড সবচেয়ে ভালো।

এছাড়া ইংল্যান্ড এসেছে কিছুটা খর্বশক্তির দল নিয়ে। বেন স্টোকস ও জফরা আর্চারের অনুপস্থিতি স্বস্তি দিচ্ছে স্বাগতিকদের। শ্রীলংকায় এসে করোনা পজিটিভ হওয়ায় মঈন আলীকেও পাচ্ছে না ইংল্যান্ড। তবে দুদলের সাম্প্রতিক ফর্ম বিবেচনায় জো রুটের ইংল্যান্ডকে এগিয়ে রাখতে হবে।