শেখ জামালের দ্বিতীয় জয়
jugantor
শেখ জামালের দ্বিতীয় জয়

  ক্রীড়া প্রতিবেদক  

২২ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রিমিয়ার লিগে টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব। চট্টগ্রাম আবাহনীর পর এবার তাদের শিকার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে অলরেডদের ২-১ গোলে হারায় ধানমণ্ডির দলটি।

হার দিয়েই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে নিজের কোচিং যাত্রা শুরু করলেন মুক্তিযোদ্ধার মালয়েশিয়ান কোচ রাজা ইসা। গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর ঢাকায় আসার পর কোচিং করিয়ে প্রথমবার দল নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। হার দিয়েই গুরুকে বরণ করলেন মুক্তিযোদ্ধার ফুটবলাররা। অন্যদিকে ফের হাসলেন দেশের অন্যতম সেরা কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক। আগের দিন স্বদেশি মারুফুলকে হারিয়েছিলেন। এবার হারালেন মালয়েশিয়ান কোচ রাজা ইসাকে। পাঁচ ডিফেন্ডার ও দুই ফরোয়ার্ড নিয়ে মাঠে নামেন মানিক। রক্ষণ সামলে আক্রমণে যাওয়াকেই বেশি প্রাধান্য দিলেন তিনি। এতেই বাজিমাত। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে শাকিল আহমেদের কাছ থেকে বল পেয়ে এগিয়ে যান গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ও অধিনায়ক সলোমন কিং। বক্সের ভেতরেই ক্রস করে বল ঠেলে দেন সতীর্থ স্বদেশি ওমর জোবেকে। বল পেয়েই আলতো টোকায় জালে জড়ান জোবে (১-০)। উল্লাসে মেতে উঠে শেখ জামাল। গোল শোধে রাজা ইসার নির্দেশনা থাকলেও তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন অলরেড ফুটবলাররা। বরং ৬০ মিনিটে আরও পিছিয়ে পড়ে তারা। মাঝমাঠ থেকে একাই বল নিয়ে মুক্তিযোদ্ধার বিপদ সীমানায় ছুটে যান শেখ জামালের অধিনায়ক সলোমন কিং। বক্সে ঢুকেই গোলকিপার মাহফুজ হাসান প্রিতমকে পরাস্ত করে বল জালে জড়িয়ে দর্শকদের দিকে মুখ করে স্যালুট দেন শেখ জামালের রাজা কিং (২-০)।

শেখ জামালের দ্বিতীয় জয়

 ক্রীড়া প্রতিবেদক 
২২ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

প্রিমিয়ার লিগে টানা দ্বিতীয় জয় পেয়েছে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব। চট্টগ্রাম আবাহনীর পর এবার তাদের শিকার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে অলরেডদের ২-১ গোলে হারায় ধানমণ্ডির দলটি।

হার দিয়েই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে নিজের কোচিং যাত্রা শুরু করলেন মুক্তিযোদ্ধার মালয়েশিয়ান কোচ রাজা ইসা। গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর ঢাকায় আসার পর কোচিং করিয়ে প্রথমবার দল নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। হার দিয়েই গুরুকে বরণ করলেন মুক্তিযোদ্ধার ফুটবলাররা। অন্যদিকে ফের হাসলেন দেশের অন্যতম সেরা কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক। আগের দিন স্বদেশি মারুফুলকে হারিয়েছিলেন। এবার হারালেন মালয়েশিয়ান কোচ রাজা ইসাকে। পাঁচ ডিফেন্ডার ও দুই ফরোয়ার্ড নিয়ে মাঠে নামেন মানিক। রক্ষণ সামলে আক্রমণে যাওয়াকেই বেশি প্রাধান্য দিলেন তিনি। এতেই বাজিমাত। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে শাকিল আহমেদের কাছ থেকে বল পেয়ে এগিয়ে যান গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ও অধিনায়ক সলোমন কিং। বক্সের ভেতরেই ক্রস করে বল ঠেলে দেন সতীর্থ স্বদেশি ওমর জোবেকে। বল পেয়েই আলতো টোকায় জালে জড়ান জোবে (১-০)। উল্লাসে মেতে উঠে শেখ জামাল। গোল শোধে রাজা ইসার নির্দেশনা থাকলেও তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন অলরেড ফুটবলাররা। বরং ৬০ মিনিটে আরও পিছিয়ে পড়ে তারা। মাঝমাঠ থেকে একাই বল নিয়ে মুক্তিযোদ্ধার বিপদ সীমানায় ছুটে যান শেখ জামালের অধিনায়ক সলোমন কিং। বক্সে ঢুকেই গোলকিপার মাহফুজ হাসান প্রিতমকে পরাস্ত করে বল জালে জড়িয়ে দর্শকদের দিকে মুখ করে স্যালুট দেন শেখ জামালের রাজা কিং (২-০)।