একটি জয়ের জন্য তৃষ্ণার্ত তামিম
jugantor
নিউজিল্যান্ড গেল বাংলাদেশ দল
একটি জয়ের জন্য তৃষ্ণার্ত তামিম

  ক্রীড়া প্রতিবেদক  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের হারানোর কিছু নেই। তাসমান সাগরপাড়ের দেশটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে এখনো জয়শূন্য বাংলাদেশ। এবার অন্তত একটি জয় চান তামিম ইকবাল। ছুটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র যাওয়ায় সাকিব আল হাসান নেই এই সফরে। করোনাকালে এটাই বাংলাদেশের প্রথম বিদেশ সফর। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিজেদের মাঠে ওয়ানডে সিরিজ জিতলেও টেস্টে হোয়াইটওয়াশ হওয়ায় সমালোচনা হচ্ছে। কিউই সফরে কোনো টেস্ট নেই। তিনটি করে ওয়ানডে ও টি ২০ ম্যাচ। একটি জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল বিমানবন্দরে বলেন, ‘আমরা জানি নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন আমাদের জন্য কঠিন। চেষ্টা করব নিউজিল্যান্ডে যা কোনোদিন পারিনি, এবার সেটা অর্জন করতে। আমরা আশাবাদী।’ জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী টি ২০ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও। ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার বলেন, ‘এবার যেন আমরা হারের বৃত্ত ভাঙতে পারি, জিতে ফিরতে পারি, সেটাই লক্ষ্য। আশা করি ভালো করব।’

কন্ডিশন বিবেচনায় ২০ সদস্যের দলে রাখা হয়েছে সাত পেসার। পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন বলেন, ‘প্রক্রিয়া ঠিক রাখলে সফলতা পাব। ওখানে অনুশীলনের জন্য দুই সপ্তাহ সময় পাব। কোচিং স্টাফদের সহায়তায় কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব। সবশেষ কয়েকদিন এখানে অনুশীলন করেছি। প্রস্তুতি ভালো হয়েছে।’

দলের সঙ্গে দুজন চিকিৎসক দেবাশিস চৌধুরী ও হুমায়ন মোর্শেদ যাচ্ছেন। বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস রয়েছেন সঙ্গে। নিউজিল্যান্ডে যাওয়ার পর ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে বাংলাদেশ দলকে। প্রথম সাত দিন আইসোলেশনে। হোটেল রুম থেকে বের হওয়া যাবে না। পরের সাত দিন নিজেদের মধ্যে হালকা অনুশীলন। ১৪ দিন পর করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলে পাঁচ দিনের ক্যাম্প শুরু হবে। দেশ ছাড়ার আগে ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টসহ ৩৫ সদস্যর দলের প্রত্যেকে নেগেটিভ হয়েছেন করোনা পরীক্ষায়। করোনার টিকা নিয়েছেন অনেকে। ২০ মার্চ ডুনেডিনে প্রথম ওডিআই। ২৩ ও ২৬ মার্চ যথাক্রমে ক্রাইস্টচার্চ এবং ওয়েলিংটনে দ্বিতীয় ও শেষ ওয়ানডে। টি ২০ তিনটি ২৮ মার্চ (হ্যামিলটন), ৩০ মার্চ (নেপিয়ার) ও ১ এপ্রিল (অকল্যান্ড)। দেশে ফিরে পরের সপ্তাহে শ্রীলংকা সফর করবে বাংলাদেশ।

নিউজিল্যান্ড গেল বাংলাদেশ দল

একটি জয়ের জন্য তৃষ্ণার্ত তামিম

 ক্রীড়া প্রতিবেদক 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের হারানোর কিছু নেই। তাসমান সাগরপাড়ের দেশটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে এখনো জয়শূন্য বাংলাদেশ। এবার অন্তত একটি জয় চান তামিম ইকবাল। ছুটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র যাওয়ায় সাকিব আল হাসান নেই এই সফরে। করোনাকালে এটাই বাংলাদেশের প্রথম বিদেশ সফর। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিজেদের মাঠে ওয়ানডে সিরিজ জিতলেও টেস্টে হোয়াইটওয়াশ হওয়ায় সমালোচনা হচ্ছে। কিউই সফরে কোনো টেস্ট নেই। তিনটি করে ওয়ানডে ও টি ২০ ম্যাচ। একটি জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে ঢাকা ছেড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল বিমানবন্দরে বলেন, ‘আমরা জানি নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশন আমাদের জন্য কঠিন। চেষ্টা করব নিউজিল্যান্ডে যা কোনোদিন পারিনি, এবার সেটা অর্জন করতে। আমরা আশাবাদী।’ জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী টি ২০ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহও। ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার বলেন, ‘এবার যেন আমরা হারের বৃত্ত ভাঙতে পারি, জিতে ফিরতে পারি, সেটাই লক্ষ্য। আশা করি ভালো করব।’

কন্ডিশন বিবেচনায় ২০ সদস্যের দলে রাখা হয়েছে সাত পেসার। পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন বলেন, ‘প্রক্রিয়া ঠিক রাখলে সফলতা পাব। ওখানে অনুশীলনের জন্য দুই সপ্তাহ সময় পাব। কোচিং স্টাফদের সহায়তায় কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব। সবশেষ কয়েকদিন এখানে অনুশীলন করেছি। প্রস্তুতি ভালো হয়েছে।’

দলের সঙ্গে দুজন চিকিৎসক দেবাশিস চৌধুরী ও হুমায়ন মোর্শেদ যাচ্ছেন। বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস রয়েছেন সঙ্গে। নিউজিল্যান্ডে যাওয়ার পর ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে বাংলাদেশ দলকে। প্রথম সাত দিন আইসোলেশনে। হোটেল রুম থেকে বের হওয়া যাবে না। পরের সাত দিন নিজেদের মধ্যে হালকা অনুশীলন। ১৪ দিন পর করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলে পাঁচ দিনের ক্যাম্প শুরু হবে। দেশ ছাড়ার আগে ক্রিকেটার ও টিম ম্যানেজমেন্টসহ ৩৫ সদস্যর দলের প্রত্যেকে নেগেটিভ হয়েছেন করোনা পরীক্ষায়। করোনার টিকা নিয়েছেন অনেকে। ২০ মার্চ ডুনেডিনে প্রথম ওডিআই। ২৩ ও ২৬ মার্চ যথাক্রমে ক্রাইস্টচার্চ এবং ওয়েলিংটনে দ্বিতীয় ও শেষ ওয়ানডে। টি ২০ তিনটি ২৮ মার্চ (হ্যামিলটন), ৩০ মার্চ (নেপিয়ার) ও ১ এপ্রিল (অকল্যান্ড)। দেশে ফিরে পরের সপ্তাহে শ্রীলংকা সফর করবে বাংলাদেশ।