১২ মিনিটের ঝড়ে শিরোপা বার্সার
jugantor
১২ মিনিটের ঝড়ে শিরোপা বার্সার
বার্সেলোনা ৪, ০ বিলবাও

  ক্রীড়া ডেস্ক  

১৯ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নিজেদের অর্ধে বল পেয়েই ডান প্রান্ত দিয়ে চিতার গতিতে ছুটলেন লিওনেল মেসি। বাধা দিতে আসা প্রতিপক্ষের সবাইকে জাদুকরী ড্রিবলিংয়ে পেছনে ফেলে ডি ইয়ংয়ের সঙ্গে ওয়ান-টু-ওয়ান খেলে বাঁ-পায়ের নিখুঁত শটে খুঁজে নিলেন জাল। গো ... ল!

এ যেন পেপ গার্দিওলার সেই সর্বজয়ী বার্সেলোনা। শনিবার কোপা দেল রে’র ফাইনালে মেসির জোড়া গোলের প্রথমটি বার্সা সমর্থকদের স্মৃতিকাতর না করে পারে না। অনিন্দ্য সুন্দর গোলে নিজেদের সোনালি যুগের স্মৃতি ফিরিয়ে আনলেন বার্সা অধিনায়ক। ১২ মিনিটের ঝড়ে ঘুচল কাতালানদের দুই বছরের শিরোপাখরা। সেভিয়ার লা কার্তুসা স্টেডিয়ামে মেসির ম্যাজিক শোতে অ্যাথলেটিক বিলবাওকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে রেকর্ড ৩১তম কোপা দেল রে শিরোপা জিতেছে বার্সেলোনা। নতুন কোচ রোনাল্ড কোমানের অধীনে এটিই মেসিদের প্রথম শিরোপা।

৬০ থেকে ৭২ মিনিটের মধ্যে গোল চারটি হয়েছে। বিলবাওয়ের প্রতিরোধ ভেঙে প্রথম গোলটি করেন আঁতোয়া গ্রিজমান। ৬৩ মিনিটে ডি ইয়ং ব্যবধান দ্বিগুণ করার পর ৬৮ ও ৭২ মিনিটে মেসির জোড়া গোল। কোপা দেল রে’র ফাইনালে সর্বোচ্চ ১০ গোলের রেকর্ড এখন বার্সা অধিনায়কের। তিন মাস আগে এই মাঠেই স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে বার্সাকে ৩-২ গোল হারিয়ে শিরোপা উৎসব করেছিল বিলবাও। সেই ম্যাচে ক্লাব ক্যারিয়ারের প্রথম লাল কার্ড দেখেছিলেন মেসি। এবার বিলবাওকে গুঁড়িয়ে তার বদলা নিলেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। ২০১৮-১৯ মৌসুমে লা লিগা জয়ের পর কোপা দেল রে শিরোপা জিতল বার্সা। মাঝে দুই বছরের ব্যবধান। বার্সেলোনার মতো দলের জন্য দীর্ঘ অপেক্ষা। পরম আরাধ্য এই শিরোপা আরেক দিক থেকেও অমূল্য। গত বছর বার্সা ছাড়তে চাওয়া মেসি হয়তো নতুন করে অনুপ্রেরণা পাবেন ন্যুক্যাম্পে থেকে যেতে।

কোচ কোমানের মতো বার্সা সভাপতি হোয়ান লাপোর্তাও দেখছেন আশার আলো, ‘লিও বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। বার্সেলোনার প্রাণ সে। সব কিছু দেখে আমার মনে হচ্ছে, লিও আমাদের সঙ্গেই থেকে যাবে। তাকে ধরে রাখতে সম্ভাব্য সবকিছুই আমরা করব।’

দুই সপ্তাহের ব্যবধানে দুটি কাপ ফাইনালে হারা বিলবাও কোপা দেল রে’র দ্বিতীয় সফলতম দল। তাদেরকে হারিয়ে অধিনায়ক হিসাবে প্রথম কোপা দেল রে জেতায় আরও বেশি তৃপ্ত মেসি, ‘এই ক্লাবের অধিনায়ক হতে পারা আমার জন্য বিশেষ কিছু। অধিনায়ক হিসাবে এটা আমার প্রথম কোপা দেল রে শিরোপা, এটাও বিশেষ কিছু। তবে সমর্থকদের সামনে উদযাপন করতে পারছি না বলে খারাপ লাগছে।’ ট্রফি নিয়ে উদ্যানের সময় মেসিদের টি শার্টে লেখা ছিল, ‘নতুন যুগের প্রথম শিরোপা।’

১২ মিনিটের ঝড়ে শিরোপা বার্সার

বার্সেলোনা ৪, ০ বিলবাও
 ক্রীড়া ডেস্ক 
১৯ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

নিজেদের অর্ধে বল পেয়েই ডান প্রান্ত দিয়ে চিতার গতিতে ছুটলেন লিওনেল মেসি। বাধা দিতে আসা প্রতিপক্ষের সবাইকে জাদুকরী ড্রিবলিংয়ে পেছনে ফেলে ডি ইয়ংয়ের সঙ্গে ওয়ান-টু-ওয়ান খেলে বাঁ-পায়ের নিখুঁত শটে খুঁজে নিলেন জাল। গো ... ল!

এ যেন পেপ গার্দিওলার সেই সর্বজয়ী বার্সেলোনা। শনিবার কোপা দেল রে’র ফাইনালে মেসির জোড়া গোলের প্রথমটি বার্সা সমর্থকদের স্মৃতিকাতর না করে পারে না। অনিন্দ্য সুন্দর গোলে নিজেদের সোনালি যুগের স্মৃতি ফিরিয়ে আনলেন বার্সা অধিনায়ক। ১২ মিনিটের ঝড়ে ঘুচল কাতালানদের দুই বছরের শিরোপাখরা। সেভিয়ার লা কার্তুসা স্টেডিয়ামে মেসির ম্যাজিক শোতে অ্যাথলেটিক বিলবাওকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে রেকর্ড ৩১তম কোপা দেল রে শিরোপা জিতেছে বার্সেলোনা। নতুন কোচ রোনাল্ড কোমানের অধীনে এটিই মেসিদের প্রথম শিরোপা।

৬০ থেকে ৭২ মিনিটের মধ্যে গোল চারটি হয়েছে। বিলবাওয়ের প্রতিরোধ ভেঙে প্রথম গোলটি করেন আঁতোয়া গ্রিজমান। ৬৩ মিনিটে ডি ইয়ং ব্যবধান দ্বিগুণ করার পর ৬৮ ও ৭২ মিনিটে মেসির জোড়া গোল। কোপা দেল রে’র ফাইনালে সর্বোচ্চ ১০ গোলের রেকর্ড এখন বার্সা অধিনায়কের। তিন মাস আগে এই মাঠেই স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে বার্সাকে ৩-২ গোল হারিয়ে শিরোপা উৎসব করেছিল বিলবাও। সেই ম্যাচে ক্লাব ক্যারিয়ারের প্রথম লাল কার্ড দেখেছিলেন মেসি। এবার বিলবাওকে গুঁড়িয়ে তার বদলা নিলেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। ২০১৮-১৯ মৌসুমে লা লিগা জয়ের পর কোপা দেল রে শিরোপা জিতল বার্সা। মাঝে দুই বছরের ব্যবধান। বার্সেলোনার মতো দলের জন্য দীর্ঘ অপেক্ষা। পরম আরাধ্য এই শিরোপা আরেক দিক থেকেও অমূল্য। গত বছর বার্সা ছাড়তে চাওয়া মেসি হয়তো নতুন করে অনুপ্রেরণা পাবেন ন্যুক্যাম্পে থেকে যেতে।

কোচ কোমানের মতো বার্সা সভাপতি হোয়ান লাপোর্তাও দেখছেন আশার আলো, ‘লিও বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। বার্সেলোনার প্রাণ সে। সব কিছু দেখে আমার মনে হচ্ছে, লিও আমাদের সঙ্গেই থেকে যাবে। তাকে ধরে রাখতে সম্ভাব্য সবকিছুই আমরা করব।’

দুই সপ্তাহের ব্যবধানে দুটি কাপ ফাইনালে হারা বিলবাও কোপা দেল রে’র দ্বিতীয় সফলতম দল। তাদেরকে হারিয়ে অধিনায়ক হিসাবে প্রথম কোপা দেল রে জেতায় আরও বেশি তৃপ্ত মেসি, ‘এই ক্লাবের অধিনায়ক হতে পারা আমার জন্য বিশেষ কিছু। অধিনায়ক হিসাবে এটা আমার প্রথম কোপা দেল রে শিরোপা, এটাও বিশেষ কিছু। তবে সমর্থকদের সামনে উদযাপন করতে পারছি না বলে খারাপ লাগছে।’ ট্রফি নিয়ে উদ্যানের সময় মেসিদের টি শার্টে লেখা ছিল, ‘নতুন যুগের প্রথম শিরোপা।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন