ব্রাদার্সের জালে পাঁচ গোল আবাহনীর
jugantor
ব্রাদার্সের জালে পাঁচ গোল আবাহনীর

  ক্রীড়া প্রতিবেদক  

০৫ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আগের ম্যাচে পুলিশ এফসির সঙ্গে ড্র করা ঢাকা আবাহনী ঘুরে দাঁড়িয়েছে। মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ৫-২ গোলে হারিয়েছে তারা। ফিরেই চমক দেখাচ্ছেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে সিজোবা। মধ্যবর্তী দলবদলে তাকে দলে টেনেছে আবাহনী। আগের ম্যাচে পুলিশের বিপক্ষে একটি গোল করেছিলেন। কিন্তু দলকে জেতাতে পারেননি। কাল ব্রাদার্সের বিপক্ষে এই নাইজেরিয়ান ম্যাচের ২২ মিনিটে আবাহনীকে এগিয়ে দেন। ব্রাদার্সের সীমানায় জটলার মধ্যে ব্যাক হেড করেন আবাহনীর হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট কারভেন্স। বল পেয়ে যান অরক্ষিত সিজোবা। মুহূর্তে জালে জড়িয়ে উল্লাসে মেতে ওঠেন (১-০)। ৪০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আবাহনী। রায়হানের লম্বা থ্রোয়ে ব্রাদার্সের গোলপোস্টে আফগান ডিফেন্ডার মাসিহ সাইগানি ব্যাক হেড করেন। পেছন থেকে দৌড়ে এসে হেডে বল জালে জড়ান আরেক ডিফেন্ডার নাসির উদ্দিন চৌধুরী (২-০)। মিনিটচারেক পর গোপীবাগের জালে বল জড়ান আবাহনীর মিডফিল্ডার জুয়েল রানা। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রাফায়েল অগাস্তো কর্নারকিক নেন। বক্সে দাঁড়ানো বেলফোর্ট হেড করেন। বল জালে প্রবেশের আগ মুহূর্তে রুখে দেন ব্রাদার্সের গোলকিপার জাফর সরদার। তাতে শেষরক্ষা হয়নি। বাঁ-পায়ে বল জালে জড়িয়ে দেন জুয়েল রানা (৩-০)। হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট ৬২ মিনিটে দুর্দান্ত শটে গোল করেন (৪-০)।

৭৭ মিনিটে একটি গোল করে ব্রাদার্স। বক্সের ভেতরে জোরালো শটে আবাহনীর গোলকিপার সুলতান আহমেদ শাকিলকে পরাস্ত করেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড আওয়ালা মাগালা (১-৪)। মিনিটচারেক পর একক প্রচেষ্টায় গোল করে আবাহনীকে আরও এগিয়ে দেন রুবেল মিয়া

(৫-১)। ম্যাচের শেষ দিকে পেনাল্টি থেকে নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রাদার্সের মাগালা (২-৫)। গোলের সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচ শেষ।

ব্রাদার্সের জালে পাঁচ গোল আবাহনীর

 ক্রীড়া প্রতিবেদক 
০৫ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

আগের ম্যাচে পুলিশ এফসির সঙ্গে ড্র করা ঢাকা আবাহনী ঘুরে দাঁড়িয়েছে। মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে ৫-২ গোলে হারিয়েছে তারা। ফিরেই চমক দেখাচ্ছেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে সিজোবা। মধ্যবর্তী দলবদলে তাকে দলে টেনেছে আবাহনী। আগের ম্যাচে পুলিশের বিপক্ষে একটি গোল করেছিলেন। কিন্তু দলকে জেতাতে পারেননি। কাল ব্রাদার্সের বিপক্ষে এই নাইজেরিয়ান ম্যাচের ২২ মিনিটে আবাহনীকে এগিয়ে দেন। ব্রাদার্সের সীমানায় জটলার মধ্যে ব্যাক হেড করেন আবাহনীর হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট কারভেন্স। বল পেয়ে যান অরক্ষিত সিজোবা। মুহূর্তে জালে জড়িয়ে উল্লাসে মেতে ওঠেন (১-০)। ৪০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে আবাহনী। রায়হানের লম্বা থ্রোয়ে ব্রাদার্সের গোলপোস্টে আফগান ডিফেন্ডার মাসিহ সাইগানি ব্যাক হেড করেন। পেছন থেকে দৌড়ে এসে হেডে বল জালে জড়ান আরেক ডিফেন্ডার নাসির উদ্দিন চৌধুরী (২-০)। মিনিটচারেক পর গোপীবাগের জালে বল জড়ান আবাহনীর মিডফিল্ডার জুয়েল রানা। ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রাফায়েল অগাস্তো কর্নারকিক নেন। বক্সে দাঁড়ানো বেলফোর্ট হেড করেন। বল জালে প্রবেশের আগ মুহূর্তে রুখে দেন ব্রাদার্সের গোলকিপার জাফর সরদার। তাতে শেষরক্ষা হয়নি। বাঁ-পায়ে বল জালে জড়িয়ে দেন জুয়েল রানা (৩-০)। হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট ৬২ মিনিটে দুর্দান্ত শটে গোল করেন (৪-০)।

৭৭ মিনিটে একটি গোল করে ব্রাদার্স। বক্সের ভেতরে জোরালো শটে আবাহনীর গোলকিপার সুলতান আহমেদ শাকিলকে পরাস্ত করেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড আওয়ালা মাগালা (১-৪)। মিনিটচারেক পর একক প্রচেষ্টায় গোল করে আবাহনীকে আরও এগিয়ে দেন রুবেল মিয়া

(৫-১)। ম্যাচের শেষ দিকে পেনাল্টি থেকে নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রাদার্সের মাগালা (২-৫)। গোলের সঙ্গে সঙ্গে ম্যাচ শেষ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন