সব রোগের এক ওষুধ-মেসি

  স্পোর্টস ডেস্ক ২৩ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মেসি,

ইকার্দি কেন দলে নেই? আমাদের মেসি আছে। দলে ভারসাম্য নেই কেন? আরে, মেসি আছে না! উপরের প্রশ্ন-উত্তর পর্বটা কাল্পনিক হলেও বাস্তবে হোর্হে সাম্পাওলির চিন্তাধারা অনেকটা এমনই। সব রোগের একই ওষুধ, লিওনেল মেসি!

প্রবল সমালোচনার মুখে মেসিকে ঢাল বানিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখছেন আর্জেন্টিনা কোচ। কিন্তু সেই স্বপ্নপূরণের জন্য যে দল তিনি বেছে নিয়েছেন, তার সামার্থ্য নিয়ে সন্দিহান অনেকেই।

বরাবরই আর্জেন্টিনার শক্তির জায়গা তাদের আক্রমণভাগ। এবার সেই আক্রমণভাগও নড়বড়ে। সাদা চোখে অবশ্য তা ধরা পড়ে না। লিওনেল মেসি, সের্গিও আগুয়েরো, গণজালো হিগুয়াইন, পাওলো দিবালা- বড় বড় সব নাম।

কিন্তু মেসি ছাড়া আর কারও ওপরই ভরসা করা যায় না। চারজনের মধ্যে নিখাদ স্ট্রাইকার শুধু আগুয়েরো ও হিগুয়াইন। একজন আধা ফিট, অন্যজন ফর্মে নেই। হাঁটুতে অস্ত্রোপচারের পর মাত্রই অনুশীলনে ফেরা আগুয়েরো বিশ্বকাপের আগে শতভাগ ফিট হয়ে উঠতে পারবেন কিনা, এ নিয়ে সংশয় রয়েছে।

ম্যানসিটি ফরোয়ার্ডের বিশ্বকাপ রেকর্ডও ভুলে যাওয়ার মতো। গত দুটি বিশ্বকাপে আট ম্যাচ খেলেও গোলের খাতা খুলতে পারেননি আগুয়েরো। আর হিগুয়াইন তো বড় ম্যাচের চাপই নিতে পারেন না। যার বড় প্রমাণ গত বিশ্বকাপের ফাইনাল।

এ মৌসুমে জুভেন্টাসের জার্সিতে ছিলেন ভীষণ অধারাবাহিক। আর্জেন্টিনার জার্সিতে হিগুয়াইনের সর্বশেষ গোল ২০১৬ সালের অক্টোবরে! জাতীয় দলের হয়ে টানা সাত ম্যাচের গোলখরা নিয়ে তিনি যাচ্ছেন রাশিয়ায়।

হিগুয়াইনের জুভেন্টাস সতীর্থ দিবালা আবার মেসির জায়গায় খেলেন। ফলে দলে থাকলেও শুরুর একাদশে তার জায়গা অনিশ্চিত। তাকে ‘নতুন মেসি’ বলা হলেও আর্জেন্টিনার জার্সিতে এখনও গোলের খাতা খুলতে পারেননি দিবালা।

এই আক্রমণভাগ নিয়ে কি বিশ্বকাপ জেতা সম্ভব? মেসি দুর্দান্ত কিছু করতে পারলে হয়তো সম্ভব। কিন্তু মেসিকে মেসির মতো খেলতে দিতে দরকার যোগ্য সঙ্গ। অধিনায়কের ভার কমানোর দায়িত্বটা যিনি নিতে পারতেন, সেই ইকার্দিকে দলেই রাখেননি সাম্পাওলি।

বিশ্বকাপের চূড়ান্ত দল আগেই ফাঁস করে দিয়েছিল আর্জেন্টাইন মিডিয়া। সেই দলটিই পরে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছেন সাম্পাওলি। ইন্টার মিলানের হয়ে সেরি-এ লিগে এবার ৩৩ ম্যাচে সর্বোচ্চ ২৯ গোল করা ইকার্দিকে ২৩ জনের চূড়ান্ত দলে না রাখায় নিজের দেশেই প্রবল সমালোচনার মুখে পড়েছেন সাম্পাওলি।

আর্জেন্টিনার খেলার ধরনের সঙ্গে ইকার্দির ধরন মেলে না- কোচের এমন খোঁড়া যুক্তি হালে পানি পাচ্ছে না। সাম্পাওলি অবশ্য নিন্দুকদের বাঁকা কথায় কান দিচ্ছেন না। তার তো ঢাল আছেই! অধিনায়কের সঙ্গে আলোচনা করেই দল বেছে নিয়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপ নিয়ে মেসি কতটা রোমাঞ্চিত, সেটাই সাম্পাওলির কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ, ‘মেসির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। বিশ্বকাপ নিয়ে সে খুবই আশাবাদী ও রোমাঞ্চিত। শারীরিকভাবে সে খুব ভালো অবস্থায় আছে। আমার বিশ্বাস, বিশ্বকাপে সেরা ছন্দের মেসিকেই আমরা পাব।তাকে ঘিরেই আমি দলটা সাজাতে চাই।’

কোন মানদণ্ডে দল নির্বাচন করেছেন, তার একটা ব্যাখ্যাও দিয়েছেন সাম্পাওলি, ‘যেহেতু আমিই দলটা বেছে নিয়েছি, তাই সব দায় আমার। যারা এখানে নেই তাদের নিয়ে কথা বলতে চাই না। সফল একটি বিশ্বকাপের জন্য আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলব আমরা।'

তিনি বলেন, 'বিশ্বকাপে সবকিছু পরিকল্পনা অনুসারে হয় না।নির্ভয়ে যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে আপনাকে। যাদের সেই সাহস আছে এবং দলে ভারসাম্যের জন্য যাদের দরকার, তাদেরকেই আমি নিয়েছি। আমার স্বপ্ন এমন একটি দল গড়া, যারা নিজেদের প্রতিভার সদ্ব্যবহার করতে পারে।’

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×