একটি গোলে ১০ হাজার শিশুর খাবার

  যুগান্তর ডেস্ক    ০২ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

লিওনেল মেসি-নেইমার
লিওনেল মেসি-নেইমার

শুধু আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল নয়, এবারের বিশ্বকাপে মেসি ও নেইমারের প্রতিটি গোল লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় অঞ্চলের সব সুবিধাবঞ্চিত শিশুর মুখে হাসি ফোটাবে।

শুধু হাসি নয়, একটি গোল ১০ হাজার শিশুর মুখে তুলে দেবে এক বেলার খাবার। আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের দুই মহাতারকার জনপ্রিয়তা কাজে লাগিয়ে ক্ষুধামুক্ত বিশ্ব গড়ার প্রথম ধাপ হিসেবে দারুণ এই উদ্যোগ নিয়েছে মাস্টারকার্ড।

এখন থেকে যে কোনো টুর্নামেন্টে মেসি ও নেইমারের প্রতিটি গোলের জন্য জাতিসংঘের বিশ্বখাদ্য প্রকল্পের (ডব্ল–এফপি) তহবিলে নির্দিষ্ট অঙ্কের অর্থ দান করবে প্রতিষ্ঠানটি, যা দিয়ে স্কুলপড়–য়া ১০ হাজার শিশুর একবেলার খাবার হয়ে যাবে।

যাকে বলে স্কুল মিল। এভাবে লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় অঞ্চলের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়াতে পেরে খুবই

খুশি আর্জেন্টিনা অধিনায়ক লিওনেল মেসি, ‘এই প্রকল্পের অংশ হতে পেরে আমি খুবই খুশি ও গর্বিত। আশা করি, এই উদ্যোগ অনেক শিশুর মুখে হাসি ফোটাবে।’

ব্রাজিলের স্বপ্নসারথি নেইমারের কণ্ঠেও অভিন্ন সুর, ‘এ অঞ্চলের সব শিশুর জন্য অন্তত এক থালা খাবার ও আরও আশা নিশ্চিত করতে চাই আমরা। আমরা লাতিন আমেরিকানরা জানি যে, একসঙ্গে আমরা দারুণ কিছু করতে পারি। এবার আমরা একসঙ্গে লড়ব ক্ষুধার বিরুদ্ধে।’ ওয়েবসাইট।

jugantor-event-বিশ্বকাপ-ফুটবল-২০১৮-55386--1

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter