মেসির প্রশংসায় পঞ্চমুখ সুয়ারেজ

  যুগান্তর ডেস্ক    ০৬ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মেসি,

বিশ্বকাপ মহারণে নামার আগে ক্লাব সতীর্থ লিওনেল মেসির আরেক দফা প্রশংসা করেছেন লুইস সুয়ারেজ।

উরুগুয়ে তারকা বলেছেন, অবিশ্বাস্য সব রেকর্ড ভাঙা-গড়ার কৃতিত্ব থাকা সত্ত্বেও মাঠে নিঃস্বার্থ মেসির কোনো অহংকার নেই। বার্সার হয়ে দিনের পর দিন প্রায় একই রকম পারফর্ম করে চলেছেন মেসি।

অন্যান্য যুগের সঙ্গে মিলিয়ে তাকে ফুটবলের অন্যতম গ্রেটদের সারিতে রাখা হচ্ছে। পাঁচবারের ব্যালন ডি’অরজয়ী আর্জেন্টাইন তারকা কাতালান জার্সিতে সাড়ে পাঁচশ’র (৫৫২) বেশি গোল করেছেন। ৩০ বছরের মেসি একের পর এক গোল করেও বছরের পর বছর সতীর্থদের কাছে নিজেকে নিঃস্বার্থ প্রমাণ করেছেন।

এমনটাই বলছেন সুয়ারেজ, ‘লিও আমার সতীর্থ এবং বন্ধু। ব্যক্তি হিসেবে দারুণ এবং একজন গ্রেট পারিবারিক মানুষও। শুধু আমিই মেসিকে এভাবে দেখি না, পুরো দুনিয়াই এভাবে দেখে।’

বার্সার ড্রেসিংরুমে মেসির সঙ্গে চার বছর কাটিয়ে ফেলেছেন ?সুয়ারেজ। তাই এলএম টেনের ব্যাপারে বেশ ভালো ধারণাই হয়েছে, ‘তার সঙ্গে মাঠে আমার অনেক মুহূর্তের কথা মনে আছে। আমার শুধু এই ধারণাই হয়েছে যে, সে কত বড় ফুটবলার। আর কী অবিশ্বাস্য সব কাজই না করে থাকে।’

একটা ভয়াবহ সংকটের মধ্যদিয়ে লিভারপুল ছেড়ে বার্সেলোনায় যোগ দিয়েছিলেন সুয়ারেজ। সেসময় অনেক কঠিন পথ পাড়ি দিতে হয়েছে তাকে। সেই কঠিন সময়ে প্রতি মুহূর্তে পাশে পেয়েছেন মেসিকে।

মেসি তাকে বড় তারকা হয়ে উঠতে কীভাবে সাহায্য করেছেন এবং এখনও করে যাচ্ছেন সেকথা সবাইকে জানিয়েছেন সুয়ারেজ, ‘আমরা শুধু ফুটবলারই নই। আমরা সন্তানের বাবা। কাছাকাছি বয়সী আমাদের দু’জনের মানসিকতাও একই রকম। আমরা একসঙ্গে মজা করি, সাফল্য উপভোগ করি, মাঝেমধ্যে খাওয়া-দাওয়াও একসঙ্গে করি। তার ফলেই আমাদের এত সুন্দর বন্ধুত্ব হয়েছে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বাসের ভিতটা হয়েছে অটুট।’

কিকারকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সুয়ারেজ আরও বলেন, ‘ফুটবলে প্রকৃত বন্ধু খুঁজে পাওয়া অনেক কঠিন। বিশেষ করে সে যদি একই পজিশনে খেলে। একটা দলে অনেক অহংকারেরও ছড়াছড়ি থাকে। কিন্তু আমাদের দলে সেরকম কিছু নেই। কখনও ছিলও না। সেটা বছরের পর বছর আমরা প্রমাণ করে এসেছি।’

উরুগুইয়ান তারকার সংযোজন, ‘সে আমাকে গোল্ডেন বুট পেতে সাহায্য করেছে। আমাদের মধ্যে কোনো ঈর্ষা নেই। বন্ধুর সঙ্গে সব জিনিস ভাগাভাগি করে নিয়ে তার জন্য গর্ব করি।’

মেসি-সুয়ারেজের সঙ্গে মিলে একটা সময় বার্সায় ভয়ঙ্কর আক্রমণভাগ গড়ে তুলেছিলেন নেইমার। ২০১৭ সালে বিখ্যাত ‘এমএসএন’ ভেঙে প্যারিসে চলে গেছেন ব্রাজিল তারকা। ওয়েবসাইট।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter