ডর্টমুন্ডের কাছে নিজেকে বিক্রি করতে চান রোনাল্ডো
jugantor
ডর্টমুন্ডের কাছে নিজেকে বিক্রি করতে চান রোনাল্ডো

  ক্রীড়া ডেস্ক  

১৯ আগস্ট ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে বের হওয়ার দরজা এখনো খুঁজে বেড়াচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ৩৭ বছরের পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড ক্রমশ নিঃসঙ্গ বোধ করছেন ভিড়ের মাঝেও। কোনো ক্লাবই নিতে চাইছে না তাকে। অবস্থা বেগতিক দেখে শেষ পর্যন্ত বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে রোনাল্ডো অনুরোধ করেছেন তাকে কিনে নেওয়ার জন্য। জার্মানির পত্রিকা বিল্ড জানিয়েছে, নিজের এজেন্ট জর্জ মেন্ডেসের মাধ্যমে বুন্দেসলিগার ক্লাবের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়েছেন রোনাল্ডো। ডর্টমুন্ডের উত্তর জানা যায়নি।

এমনিতেই সময়টা ভালো যাচ্ছে না ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। এর মধ্যে গত মৌসুমের এক ঘটনায় বুধবার দীর্ঘ জেরার পর তাকে সতর্ক করে দিয়েছে ব্রিটিশ পুলিশ। গত এপ্রিলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এভারটনের কাছে ম্যানইউ ১-০ গোলে হেরে যাওয়ার পর ড্রেসিংরুমে ফেরার পথে ১৪ বছর বয়সি এক এভারটন সমর্থকের মুঠোফোন ভেঙে ফেলেছিলেন রোনাল্ডো। ছেলেটির মা তখন অভিযোগ করেন, তার ছেলে হাতে আঘাত পেয়েছে। ফোনের স্ক্রিন ভেঙে গেছে। প্রবল সমালোচনার মুখে পরদিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষমা প্রার্থনা করে ছেলেটিকে ওল্ড ট্রাফোর্ডে ম্যাচ দেখার আমন্ত্রণ জানান রোনাল্ডো। সেই ঘটনার পুলিশি তদন্ত চলছিল। বুধবার রোনাল্ডো নিজেই মার্সে সাইড পুলিশের কার্যালয়ে জেরায় হাজির হয়েছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদে নিজের ভুল স্বীকার করে দুঃখ প্রকাশ করেন ম্যানইউর পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। এরপর শর্তসাপেক্ষে তাকে সতর্ক করার মধ্য দিয়ে বিতর্কিত ঘটনাটির আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি টানে পুলিশ। এমন ঘটনা ভবিষ্যতে আবার ঘটলে রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে মার্সে সাইড পুলিশ।

ডর্টমুন্ডের কাছে নিজেকে বিক্রি করতে চান রোনাল্ডো

 ক্রীড়া ডেস্ক 
১৯ আগস্ট ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে বের হওয়ার দরজা এখনো খুঁজে বেড়াচ্ছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ৩৭ বছরের পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড ক্রমশ নিঃসঙ্গ বোধ করছেন ভিড়ের মাঝেও। কোনো ক্লাবই নিতে চাইছে না তাকে। অবস্থা বেগতিক দেখে শেষ পর্যন্ত বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে রোনাল্ডো অনুরোধ করেছেন তাকে কিনে নেওয়ার জন্য। জার্মানির পত্রিকা বিল্ড জানিয়েছে, নিজের এজেন্ট জর্জ মেন্ডেসের মাধ্যমে বুন্দেসলিগার ক্লাবের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়েছেন রোনাল্ডো। ডর্টমুন্ডের উত্তর জানা যায়নি।

এমনিতেই সময়টা ভালো যাচ্ছে না ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। এর মধ্যে গত মৌসুমের এক ঘটনায় বুধবার দীর্ঘ জেরার পর তাকে সতর্ক করে দিয়েছে ব্রিটিশ পুলিশ। গত এপ্রিলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এভারটনের কাছে ম্যানইউ ১-০ গোলে হেরে যাওয়ার পর ড্রেসিংরুমে ফেরার পথে ১৪ বছর বয়সি এক এভারটন সমর্থকের মুঠোফোন ভেঙে ফেলেছিলেন রোনাল্ডো। ছেলেটির মা তখন অভিযোগ করেন, তার ছেলে হাতে আঘাত পেয়েছে। ফোনের স্ক্রিন ভেঙে গেছে। প্রবল সমালোচনার মুখে পরদিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ক্ষমা প্রার্থনা করে ছেলেটিকে ওল্ড ট্রাফোর্ডে ম্যাচ দেখার আমন্ত্রণ জানান রোনাল্ডো। সেই ঘটনার পুলিশি তদন্ত চলছিল। বুধবার রোনাল্ডো নিজেই মার্সে সাইড পুলিশের কার্যালয়ে জেরায় হাজির হয়েছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদে নিজের ভুল স্বীকার করে দুঃখ প্রকাশ করেন ম্যানইউর পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। এরপর শর্তসাপেক্ষে তাকে সতর্ক করার মধ্য দিয়ে বিতর্কিত ঘটনাটির আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি টানে পুলিশ। এমন ঘটনা ভবিষ্যতে আবার ঘটলে রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে মার্সে সাইড পুলিশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন