চোটে জেরবার বার্সেলোনা
jugantor
চোটে জেরবার বার্সেলোনা

  ক্রীড়া ডেস্ক  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেমফিস ডিপাই ও ফ্রেংকি ডি ইয়ংয়ের পর চোটে পড়েছেন জুল কুন্দে ও রোনালদ আরাহো। সামনের ঠাসা ব্যস্ত সূচির আগে আরও লম্বা হলো বার্সেলোনার চোট পাওয়া খেলোয়াড়দের তালিকা।

দুই ডিফেন্ডারই চোট পেয়েছেন আন্তর্জাতিক বিরতিতে জাতীয় দলের হয়ে খেলার সময়। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য শনিবার ক্লাবের অনুশীলন মাঠে আসেন তারা। পরে ক্লাবের ওয়েবসাইটে বার্সেলোনা জানায়, কুন্দের বাঁ ঊরুতে চোট ধরা পড়েছে। আর আরাহোর চোট ডান ঊরুতে। তাদের সেরে উঠতে কতদিন লাগতে পারে, তা জানানো হয়নি ক্লাবের পক্ষ থেকে। তবে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কার খবর, তিন থেকে চার সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাদের। উয়েফা নেশন্স লিগে বৃহস্পতিবার অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ফ্রান্সের ২-০ গোলে জয়ের ম্যাচে চোট পান কুন্দে। পরদিন ইরানের বিপক্ষে উরুগুয়ের ১-০ গোলে হারের প্রীতি ম্যাচে দ্বিতীয় মিনিটেই মাঠ ছাড়েন আরাহো। তাদের ছিটকে পড়া বার্সেলোনা কোচ জাভি হার্নান্দেজের জন্য বড় দুর্ভাবনার। কারণ, দুজনই প্রথম পছন্দের ডিফেন্ডার। কুন্দে খেলছিলেন রাইট-ব্যাকে, আরাহো সেন্টার-ব্যাক পজিশনে। কুন্দের বিকল্প হতে পারেন সের্হিও রবার্তো। আরাহোর জায়গা নিতে পারেন আন্দ্রেয়াস ক্রিস্টেনসেন বা জেরার্দ পিকে। এর আগে নেশন্স লিগে নেদারল্যান্ডসের হয়ে খেলার সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পান মেমফিস ডিপাই ও ফ্রেংকি ডি ইয়ং। বৃহস্পতিবার পোল্যান্ডের বিপক্ষে ডাচদের ২-০ গোলে জয়ের ম্যাচে দুজনই শুরুর একাদশে ছিলেন। প্রথমার্ধের পর আর মাঠে নামেননি মিডফিল্ডার ডি ইয়ং। দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে মাঠ ছাড়েন ফরোয়ার্ড মেমফিস। পরদিন জাতীয় দল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয় তাদের।

চোটে জেরবার বার্সেলোনা

 ক্রীড়া ডেস্ক 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মেমফিস ডিপাই ও ফ্রেংকি ডি ইয়ংয়ের পর চোটে পড়েছেন জুল কুন্দে ও রোনালদ আরাহো। সামনের ঠাসা ব্যস্ত সূচির আগে আরও লম্বা হলো বার্সেলোনার চোট পাওয়া খেলোয়াড়দের তালিকা।

দুই ডিফেন্ডারই চোট পেয়েছেন আন্তর্জাতিক বিরতিতে জাতীয় দলের হয়ে খেলার সময়। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য শনিবার ক্লাবের অনুশীলন মাঠে আসেন তারা। পরে ক্লাবের ওয়েবসাইটে বার্সেলোনা জানায়, কুন্দের বাঁ ঊরুতে চোট ধরা পড়েছে। আর আরাহোর চোট ডান ঊরুতে। তাদের সেরে উঠতে কতদিন লাগতে পারে, তা জানানো হয়নি ক্লাবের পক্ষ থেকে। তবে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কার খবর, তিন থেকে চার সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাদের। উয়েফা নেশন্স লিগে বৃহস্পতিবার অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে ফ্রান্সের ২-০ গোলে জয়ের ম্যাচে চোট পান কুন্দে। পরদিন ইরানের বিপক্ষে উরুগুয়ের ১-০ গোলে হারের প্রীতি ম্যাচে দ্বিতীয় মিনিটেই মাঠ ছাড়েন আরাহো। তাদের ছিটকে পড়া বার্সেলোনা কোচ জাভি হার্নান্দেজের জন্য বড় দুর্ভাবনার। কারণ, দুজনই প্রথম পছন্দের ডিফেন্ডার। কুন্দে খেলছিলেন রাইট-ব্যাকে, আরাহো সেন্টার-ব্যাক পজিশনে। কুন্দের বিকল্প হতে পারেন সের্হিও রবার্তো। আরাহোর জায়গা নিতে পারেন আন্দ্রেয়াস ক্রিস্টেনসেন বা জেরার্দ পিকে। এর আগে নেশন্স লিগে নেদারল্যান্ডসের হয়ে খেলার সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পান মেমফিস ডিপাই ও ফ্রেংকি ডি ইয়ং। বৃহস্পতিবার পোল্যান্ডের বিপক্ষে ডাচদের ২-০ গোলে জয়ের ম্যাচে দুজনই শুরুর একাদশে ছিলেন। প্রথমার্ধের পর আর মাঠে নামেননি মিডফিল্ডার ডি ইয়ং। দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে মাঠ ছাড়েন ফরোয়ার্ড মেমফিস। পরদিন জাতীয় দল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয় তাদের।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন