ম্যাচ ধরে এগোতে চান মাহমুদউল্লাহ

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  স্পোর্টস রিপোর্টার

ভিসা জটিলতা কাটিয়ে তামিম ইকবাল ও রুবেল হোসেন এখন দুবাইয়ে। সেখানে অনুশীলনে ভালো বোধ করছেন সাকিব আল হাসানও। এশিয়া কাপে নামার আগে দল হিসেবে বাংলাদেশ নিজেদের গুছিয়ে নিচ্ছে।

দেশের মাটিতে সর্বশেষ তিন আসরের দুটিতে ফাইনালে খেললেও এশিয়া কাপের শিরোপা এখনও অধরাই রয়ে গেছে বাংলাদেশের। এবার লক্ষ্য সেই আক্ষেপ ঘোচানো। তবে টুর্নামেন্ট শুরুর আগে নিজেদের এগিয়ে রেখে বাড়তি চাপ নিতে চান না মাহমুদউল্লাহ। একেকটা ম্যাচ ধরে সামনে এগোতে চান এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।

বাংলাদেশ দল অনুশীলন করছে দুবাইয়ের আইসিসি ক্রিকেট একাডেমিতে। সেখানেই অনুশীলনের ফাঁকে মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে এশিয়া কাপে কিছু করার চেষ্টা করব। দলের জন্য অবদান রাখতে পারলে ভালো লাগে, সেই ভালো লাগা আরও বেড়ে যায় যদি দল জেতে। আমি ব্যাপারটাকে সহজভাবে দেখতে চাই এবং যতটা সম্ভব পারফর্ম করতে চাই। সত্যি বলতে, সব দলই এখন ভালো ক্রিকেট খেলছে। প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। তাই স্বস্তিতে থাকার কোনো সুযোগ নেই। আমরা পুরো আসরকে একটা একটা ম্যাচে ভাগ করে চিন্তা করতে চাই। এতে প্রথমদিকে ভালো কিছু করতে পারব।’

শনিবার শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচ দিয়েই শুরু হবে এশিয়া কাপ। শ্রীলংকা পরিচিত দল। একই সঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে ভালো কিছু স্মৃতি থাকায় সেটা ইতিবাচক বলে মনে করছেন মাহমুদউল্লাহ। তিনি বলেন, ‘শ্রীলংকার সঙ্গে আমাদের দারুণ কিছু স্মৃতি আছে। তবে তারাও শক্তিশালী দল এবং তারা খুব ভালো ক্রিকেট খেলছে। তাদের হারাতে হলে আমাদের সেরাটা খেলতে হবে। আমরা দেশে থাকতে খুব ভালো প্রস্তুতি নিয়েছি। আশা করছি ভালো কিছু করতে পারব।’

সংযুক্ত আরব আমিরাতের কন্ডিশন নিয়ে খুব বেশি চিন্তা করছেন না এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। দুবাইয়ে প্রচুর বাংলাদেশি থাকায় ভালো সমর্থন পাওয়ার আশা করছেন মাহমুদউল্লাহ। তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে এখানে বেশ গরম। তবে একজন পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে আমাকে এর সঙ্গে মানিয়ে চলতে হবে এবং খেলতে হবে। আমরা আবহাওয়ার ব্যাপারটাকে ইতিবাচকভাবে নিচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘এখানে অনেক প্রবাসী বাংলাদেশি থাকেন। ম্যাচে অনেক বেশি সমর্থন পাব বলেই বিশ্বাস করছি। আশা করি তারা মাঠে আসবেন, আমাদের সমর্থন করবেন এবং আমরা তাদের জন্য ভালো কিছু করব।’