বড় ভাই গর্বিত

  স্পোর্টস রিপোর্টার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নাফিস ইকবাল,

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তামিম ইকবালের প্রশংসা পুষ্পিত হচ্ছে। আর কেনইবা হবে না? সাহসিকতাপূর্ণ মানসিকতার জন্য ক্রিকেটবিশ্বে তাকে নিয়ে চলছে আলোচনা। তামিম যখন হাতে ব্যান্ডেজ নিয়ে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নামেন ধারাভাষ্যকাররা বলতে থাকেন, ‘এই ঘটনা ক্রিকেটবিশ্বে উদাহরণ হয়ে থাকবে।’

তামিমের সাহসিকতায় গর্বিত গোটা বাঙালি জাতি। ছোট ভাইয়ের এমন দুঃসাহস দেখে গর্ববোধ করছেন বড় ভাই নাফিস ইকবালও। কাল মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিনি বলেন, ‘ওর ইনজুরির কারণে আমার খারাপ লাগছে। শেষ সিরিজে (ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে) অনেক ভালো খেলেছে, ভালো যাচ্ছিল সময়টা।’

তিনি বলেন, ‘হাতে ব্যথা নিয়েই দুবাই গেছে। তারপর যখন শুরুর ম্যাচেই আঘাত পেল আরও হতাশ হয়ে পড়লাম। তবে তামিম যখন আবার ব্যাটিংয়ে নামল, একজন খেলোয়াড় হিসেবে আমি খুবই অবাক হয়েছি। গ্লাভস পরতে পারছে না, যেভাবে ব্যাটিং করেছে চোট লাগতে পারত। এটা অনেক প্রেরণাদায়ক একটা সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের জন্য।’

তামিমের এই কীর্তি সবাইকে মনে রাখার জন্য অনুরোধ করলেন নাফিস। জাতীয় দলের এই সাবেক ক্রিকেটার বলেন, ‘আমি সবাইকে অনুরোধ করব তামিমের এই দৃষ্টান্ত যেন মনে রাখে। এখন সবাই প্রশংসা করছে। দু’দিন পর হয়তো মানুষ তাকে নিয়ে অন্যরকম মন্তব্য করতে পারে। ভাই হিসেবে আমি গর্বিত। দেশকে সে গর্বিত করেছে। বাংলাদেশের একজন নাগরিক হিসেবেও আমি গর্বিত। তাকে যেন সবাই মনে রাখে।’

ম্যাচ শেষে অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা জানিয়েছিলেন, এই জয়ে প্রবাসী বাংলাদেশি সমর্থকদেরও অনেক অবদান রয়েছে। দুবাইয়ে পুরো গ্যালারি লাল-সবুজে ছেয়ে গিয়েছিল। মাশরাফিদের মনেই হয়নি তারা দেশের বাইরে খেলছেন।

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণীতে উপস্থাপক রমিজ রাজার দৃষ্টি আকর্ষণ করে মাশরাফি বাংলায় কৃতজ্ঞতা জানান প্রবাসী বাঙালিদের। তিনি বলেন, ‘আপনাদের অসংখ্য ধন্যবাদ এভাবে মাঠে এসে আমাদের সমর্থন দেয়ার জন্য। আমি জানি, অনেক প্রবাসী ভাই আরব আমিরাতে থাকেন। এই জয় আপনাদের জন্য। আশা করি, সামনের ম্যাচগুলোতেও আপনারা এভাবে সমর্থন দেবেন।’

ম্যাচ শেষেও প্রবাসী বাঙালিরা দারুণ এক উদাহরণ সৃষ্টি করে গেছেন। তারা গ্যালারি পরিষ্কার করে মাঠ ছাড়েন।

ঘটনাপ্রবাহ : এশিয়া কাপ ২০১৮

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter