হাবিবুল বাশার

প্রকাশ : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  স্পোর্টস রিপোর্টার

আমরা জানতাম কঠিন টুর্নামেন্ট হবে। ঠাসা সূচি, অসহ্য গরম- এসবের সঙ্গে মানিয়ে খেলতে হয়েছে। ফাইনালের আগে মাত্র একদিন বিশ্রাম পেয়েছি। এই এশিয়া কাপটাই আমার কাছে সেরা। ভারতের বিপক্ষে ২৭০-২৮০ রান করতে হবে, আমরা জানতাম। ওপেনিংয়ে দারুণ জুটি হওয়ার পর আমরা সেই পথেই ছিলাম। তবে ২২২ রান করেও যে লড়াইটা হয়েছে সেটাও দারুণ। হয়তো আরও ২০ রান বেশি করতে পারলে ম্যাচটা আমরা জিতে যেতাম।

টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার আগে থেকেই চোট-আতঙ্ক ছিল। প্রথম ম্যাচে তামিম ইকবাল ইনজুরিতে পড়ে ছিটকে যায়। সবশেষ দুই ম্যাচে সাকিবও খেলতে পারেনি। দলের সেরা দুই পারফরমারকে ছাড়াই খেলতে হয়েছে। বাকিরা কাজটা দারুণভাবে করেছে। সবচেয়ে বড় বাধা ছিল মাত্রাতিরিক্ত গরম। প্রতি ম্যাচেই দু’একজনের সমস্যা হচ্ছিল। আতঙ্ক ছিল কখন আবার কে ছিটকে যায়। বাংলাদেশ দল ছিল দুবাইয়ে। প্রায় দেড়শ’ কিলোমিটার বাস ভ্রমণের পর আবুধাবিতে গিয়ে ম্যাচ খেলতে হয়েছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে সুপার ফোরের ম্যাচ খেলে ছেলেরা রাত ৩টায় দুবাইয়ে হোটেলে ফিরেছে। একদিন পরই ফাইনাল। ভারতকে কিন্তু কোনো কষ্ট করতে হয়নি। ফাইনালের আগে তারা দু’দিন বিশ্রাম পেয়েছে।

টুর্নামেন্টে আফগানিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে হারের পর অনেকেই আমাদের সমালোচনা করেছেন। কিন্তু ছেলেরা নিজেদের প্রমাণ করেছে। আমি খুশি।