রাজধানীর সড়ক ব্যবস্থাপনা : বিশেষজ্ঞদের অভিমত

সমন্বিত উদ্যোগ ছাড়া সড়কের বিশৃঙ্খলা দূর হবে না

  ড. নজরুল ইসলাম ২৩ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সমন্বিত উদ্যোগ ছাড়া সড়কের বিশৃঙ্খলা দূর হবে না
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীতে প্রয়োজনের তুলনায় সড়কের পরিমাণ কম। তাই যেটুকু সড়ক আছে তার সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করা জরুরি। প্রশাসনিক ও ব্যবস্থাপনার দুর্বলতার পাশাপাশি বিভিন্ন মহলের উদাসীনতার কারণে রাজধানীতে একদিকে সড়ক দুর্ঘটনা বাড়ছে; একইসঙ্গে যানজটের কারণে জনদুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করেছে। মনে রাখা দরকার, প্রশাসনিক দুর্বলতার সঙ্গে দুর্নীতি যুক্ত হলে সড়কের সঠিক ব্যবস্থাপনা ব্যাহত হয়। যানজট নিরসনে জরুরি হল গণপরিবহনের সংখ্যা বাড়ানো।

রাজধানীর চারপাশে ট্রেন সার্ভিস চালু করলে যানজট অনেকটা সহনীয় পর্যায়ে চলে আসত, এটি বহুল আলেচিত। Dhaka Strategic Transport Plan-এ তিনটি রিং-রোডের কথা উল্লেখ রয়েছে। একটি রিং-রোডের উপর ট্রেন সার্ভিস চালু করার কথা। ওই পরিকল্পনাটি বাস্তবায়ন করা দরকার। অপর রিং-রোডে বাস সার্ভিস চালু হলে এ দুই সার্ভিসের মধ্যে সমন্বয়ে যাতে জটিলতা সৃষ্টি না হয় সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে।

রাজধানীর গণপরিবহনের একটি প্রধান অংশ বাস সার্ভিস। এগুলোর চলাচলে যে ধরনের বিশৃঙ্খলা লক্ষ করা যায় তা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। সম্প্রতি এক বাস দুর্ঘটনায় বিইউপির এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। ইতিমধ্যে জানা গেছে, যে পরিবহনের বাস দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে- এ রুটে ওই পরিবহনের চলাচলের রুট পারমিটই নেই। প্রশ্ন হল, ওই পরিবহনের বাসগুলো এ রুটে চলছে কিভাবে? এতে এটাই স্পষ্ট হয় যে, এক্ষেত্রে প্রশাসনিক দুর্বলতা বিদ্যমান এবং এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে দুর্নীতি।

জেব্রাক্রসিংয়ের কাছে যানবাহনকে থামতে হয় অথবা ধীরে চলার কথা। এটা হয়তো সব চালক জানেন না, অথবা যারা জানেন তারা নিয়ম মানেন না। কোনো যানবাহন জেব্রাক্রসিংয়ের কাছাকাছি যাওয়ার আগেই চালককে সতর্ক করতে হবে যে সামনে জেব্রাক্রসিং। এছাড়া সড়কের বিভিন্ন স্থানে লিখিত থাকা দরকার কোন্ সড়কে কত কিলোমিটার গতিতে গাড়ি চলানো যাবে। রাজধানীর খুব কম সড়কেই গতিসীমা লিখিত আছে। গতিসীমা লিখিত না থাকার কারণে চালক বারবার ভুল করে থাকেন।

ফুটওভার ব্রিজের ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। বয়স্করা যাতে নিচ দিয়ে যেতে পারে, তার ব্যবস্থাও থাকতে হবে। ফুটওভার ব্রিজে চলন্ত সিড়ির ব্যবস্থা করা সম্ভব হলে সবচেয়ে ভালো হয়। রাজধানীর যানজট নিরসনে যেসব ফ্লাইওভার নির্মিত হয়েছে তার সবগুলো যুক্তিযুক্ত হয়েছে কিনা এটাও এক বড় প্রশ্ন। গাড়ি চালকসহ সংশ্লিষ্ট সবাই যাতে সড়কের আইন মান্য করেন, এটাও নিশ্চিত করতে হবে। Dhaka Strategic Transport Plan-এর পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে হবে। এটাও ঠিক, পর্যাপ্ত জনবল না থাকলে ট্রাফিক পুলিশের পক্ষে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করা সম্ভব নয়। কাজেই জনবল ঘাটতি থাকলে তা দূর করতে হবে।

অধ্যাপক ড. নজরুল ইসলাম : শিক্ষাবিদ; বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×