হত্যাকালে খাসোগির শেষ বাক্য

আমার দম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে

  যুগান্তর ডেস্ক ১২ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

খাসোগি

‘আমার দম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে.. আমার মাথা থেকে ব্যাগ সরাও। আমি দম আটকে মারা যাচ্ছি।’ কথাগুলো ছিল ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতরে হত্যার শিকার সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগির।

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে প্রাণ যখন যায় যায়, তখন ভাঙা ভাঙা এ কয়েকটি শব্দ বেরিয়ে আসে তার মুখ থেকে। কনস্যুলেটে পাওয়া একটি অডিও রেকর্ডে ধারণ করা রয়েছে খাসোগির এই শেষ বাক্য। রোববার আলজাজিরাকে এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তুরস্কের সংবাদমাধ্যম ডেইলি সাবাহর অনুসন্ধানী সাংবাদিক দলের প্রধান নাজিফ কারমান।

খাসোগি হত্যার শুরু থেকেই তুর্কি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে একে একে রোমহর্ষক খবর প্রকাশ করে সরকারপন্থী ডেইলি সাবাহ ও ইয়েনি সাফাক। একই ইস্যুতে মাধ্যম দুটির সূত্র উল্লেখ করে খবর প্রকাশ করে নিউইয়র্ক টাইমস ও ওয়াশিংটন পোস্টের মতো প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম। ডেইলি সাবাহ ও ইয়েনি সাফাকের দেয়া সব খবরই সঠিক প্রমাণিত হয়েছে। তুরস্ক কর্মকর্তারা জানান, কনস্যুলেটে ঢোকার পর খাসোগিকে কীভাবে প্রথমে জিজ্ঞাসাবাদ, একটু পরেই কীভাবে গলার টুঁটি চেপে হত্যা এবং শেষ কেটে টুকরো টুকরো করা হয়, তার অডিও রেকর্ড তাদের হাতে রয়েছে।

ডেইলি সাবাহ’র অনুসন্ধানী সাংবাদিক নাজিফ কারমান তার আরও পুঙ্খানুপুঙ্খ বর্ণনা দিয়েছেন। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘শ্বাসরোধের উদ্দেশ্যে একটা প্লাস্টিক ব্যাগ ঢুকিয়ে দেয়া হয় খাসোগির মাথায়। শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মারা যান তিনি।’ নাজিফ জানান, অডিও রেকর্ড মতে, এতে প্রায় সাত মিনিট সময় লাগে।

অডিও রেকর্ড ও আনুষঙ্গিক অন্যান্য তথ্য-প্রমাণ হাতে থাকলেও গণমাধ্যমে প্রকাশ করেননি তুর্কি কর্মকর্তারা। তবে খাসোগি ইস্যুতে ২৩ অক্টোবর সিআইএ প্রধান গিনা হ্যাসপেলের তুরস্ক সফরকালে অডিওটি তাকে শোনানো হয়। তুর্কি সরকার বলছে, এটা দিয়েই প্রমাণ করা যাবে যে, সৌদি কনস্যুলেটে খাসোগিকে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী হত্যা করা হয়েছে। খাসোগি হত্যা নিয়ে সৌদির ওপর চাপ বাড়াতে ওয়াশিংটনের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ ক্রমেই বাড়ছে। এই পরিস্থিতির মধ্যে শনিবার প্যারিসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক করেন এরদোগান।

তবে বৈঠকে দুজনের মধ্যে কি বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের অস্ত্রবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরের শতবর্ষ উদযাপনে ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাত্রেঁদ্ধার আমন্ত্রণে বিশ্বের অন্য নেতাদের সঙ্গে এদিনই সস্ত্রীক প্যারিস পৌঁছান তিনি। দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার আগে প্যারিস বিমানবন্দরে এরদোগান সাংবাদিকদের জানান, অডিও রেকর্ডটি সৌদি আরব, যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ফ্রান্স ও ব্রিটেনের কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তিনি বলেছেন, খাসোগির হত্যাকারী ১৫ জনের দলের মধ্যেই রয়েছে এবং সৌদি এটা জানে। খাসোগির হত্যা প্রক্রিয়ার বর্ণনা দিয়ে নাজিফ বলেন, লাশ টুকরো টুকরো করার আগে মেঝেতে প্লাস্টিক ব্যাগ বিছিয়ে নেয় খুনিরা। পুরো প্রক্রিয়ায় সময় লাগে ১৫ মিনিট। আর নেতৃত্বে ছিলেন সৌদির ‘সাইন্টিফিক কাউন্সিল অপ ফরেনসিক’-এর প্রধান সালাহ আল তুবাইগি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×