তৃতীয় আস্থা ভোটেও জয় বিক্রমাসিংহের

এবারও হার মানছেন না সিরিসেনা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তৃতীয় আস্থা ভোটেও জয় বিক্রমাসিংহের
শ্রীলংকার বরখাস্ত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে। ছবি: এএফপি

তৃতীয় আস্থা ভোটেও হারলেন প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনার নিয়োগপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে। আবার জয় পেলেন বরখাস্ত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে।

কিন্তু এবারও আস্থা ভোটের ফলাফল মানছেন না সিরিসেনা। বৃহস্পতিবার রাতে স্পিকার ও বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে বৈঠকেও বলেছিলেন, নতুন আস্থা ভোটের ফলাফল মেনে নেবেন তিনি।

কিন্তু শুক্রবার দুপুরে দ্বিতীয় ও তৃতীয়বারের মতো আস্থা ভোট হলেও তা মেনে নিতে অস্বীকার করছেন সিরিসেনা। আগের রাতের প্রতিশ্রুতি জলাঞ্জলি দিয়ে আগামী ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত ফের পার্লামেন্ট স্থগিত করেছেন। খবর শ্রীলংকা গার্ডিয়ান, কলম্বো গ্যাজেট ও আদাদেরানার।

কলম্বোয় প্রেসিডেন্ট ভবনে স্পিকার কারু জয়সুরিয়া, বিক্রমাসিংহের দল ইউনাইটেড ন্যাশনাল ফ্রন্ট (ইউএনএফ), জন বিমুক্তি পেরামুনা (জেভিপি) ও টামিল ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (টিএনএ) প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রেসিডেন্ট।

দুই ঘণ্টার রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সিরিসেনা বলেন, পার্লামেন্টে বিক্রমাসিংহের দলের সংখ্যাগরিষ্ঠতা মেনে নেবেন। তিনি এটাও বলেন, এখন থেকে সংবিধান মেনে চলবেন এবং আর কোনো অবস্থাতেই পার্লামেন্ট স্থগিত করবেন না। তবে দুটি শর্তে।

প্রথমত, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বিক্রমাসিংহের বরখাস্ত আদেশ অসাংবিধানিক আখ্যায়িত করে পার্লামেন্টে তোলা প্রস্তাব ‘ক্লজ ওয়ান’ বাতিল করতে হবে। দ্বিতীয়ত, পার্লামেন্টের সব নিয়ম-কানুন মেনে পরিচ্ছন্ন পদ্ধতিতে নতুন করে আস্থা ভোট হতে হবে। প্রেসিডেন্টের কথা মেনে নিয়ে শুক্রবার ভোটাভুটি হয়।

প্রথমত সংখ্যাগরিষ্ঠ আইনপ্রণেতার কণ্ঠভোট হয়। এরপর আইনপ্রণেতাদের স্বাক্ষর সংগ্রহের মধ্য দিয়ে তৃতীয়বারের জন্য অনুষ্ঠিত হয় আস্থা ভোট। ভোটাভুটির পুরো প্রক্রিয়ায় প্রেসিডেন্টের শর্ত মোতাবেকই হয়েছে। দশ বিদেশি ডেলিগেটও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ভোটাভুটির পর ফলাফল মেনে নিতে প্রেসিডেন্টের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন স্পিকার জয়সুরিয়া। এরই মধ্যে বিক্রমাসিংহে হুশিয়ারি দিয়েছেন, যদি এখনই সমস্যার সমাধান না করা হয়, অরাজক পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

পূর্বনির্ধারিত অধিবেশন এদিন সকাল সাড়ে ১১টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সিরিসেনার ইউনাইটেড পিপল’স ফ্রিডোম অ্যালায়েন্স (ইউপিএফএ) জোটের হট্টগোলের কারণে দুই ঘণ্টা দেরিতে শুরু হয়।

স্পিকারের চেয়ার ঘিরে রাখেন ইউপিএফএর এমপিরা। স্পিকারের চেয়ার একবার উল্টেও ফেলেন এবং পার্লামেন্টে প্রবেশের সময় তাকে বাধা দেয়া হয়। বৃহস্পতিবারের মতো এদিনও একে অপরের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন এবং মরিচের গুঁড়াও ছুড়ে মারতে দেখা যায়। আক্রান্ত হয় পুলিশও।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×