ভারতে বনধের মধ্যে অমুসলিম নাগরিকত্ব বিল পাস

  যুগান্তর ডেস্ক ০৯ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতে বনধের মধ্যে অমুসলিম নাগরিকত্ব বিল পাস

ভারতে অনুপ্রবেশকারী হিন্দুদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেয়া সংক্রান্ত বিল মঙ্গলবার পার্লামেন্টে পাস হয়েছে। এ উদ্যোগ বন্ধ করতে উত্তর-পূর্ব ভারতে সকালে শুরু হয় ১১ ঘণ্টার বন্ধ।

উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় ছাত্র সংগঠনসহ (নেসো) বিভিন্ন সংগঠন এ বন্ধের ডাক দেয়। নাগরিকত্ব সংশোধন বিল, ২০১৬ বাতিলের দাবিতে ফুঁসে ওঠেন আন্দোলনকারীরা। এসব উপেক্ষা করে বিলটি পাস করল বিজেপি সরকার। এ বিলের আওতায় পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে অনুপ্রবেশকারী হিন্দুরা নাগরিকত্ব পাবেন।

ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকারের শ্রমিকবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে ফুঁসে উঠেছে কোটি কোটি জনতা। নরেন্দ্র মোদি সরকারের নীতির কারণে কর্মজীবী মানুষের জীবন ও জীবিকা হুমকির মুখে পড়েছে।

প্রতিবাদ করতে গেলে কৃষক, শ্রমিক ও ট্রেড ইউনিয়নের বিরুদ্ধে চালানো হচ্ছে নির্যাতন-নিপীড়ন। আন্দোলন দমন করতে ট্রেড ইউনিয়ন আইনেও সংশোধনী আনা হচ্ছে বলেও অভিযোগ।

আর এসবের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতেই মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার রাত পর্যন্ত ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘট ‘বন্ধ’র ডাক দিয়েছে শ্রমিক সংগঠনগুলো। অন্তত ২০টি সংগঠনের ব্যানারে প্রায় ২০ কোটি বিক্ষুব্ধ জনতা অংশ নেয় এই ধর্মঘটে।

বনধের প্রথম দিনেই ২৯ রাজ্যের বেশির ভাগই কার্যত অচল করে দিয়েছে বিক্ষোভকারী। ঘটেছে গাড়ি ভাংচুর, আগুন ধরিয়ে দেয়া, জাতীয় সড়ক ও রেল অবরোধ, পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তির মতো ঘটনা। পরিস্থিতি সামাল দিতে নামানো হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। খবর এনডিটিভির।

ন্যূনতম মজুরির বেসরকারীকরণের মতো একাধিক ইস্যুতে সেন্ট্রাল ট্রেড ইউনিয়ন (সিটিইউ) মঙ্গলবার ‘ভারত বন্ধ’র ডাক দেয়। আইএনটিসিইউ, এআইটিইউসি, এইএমএস, সিআইটিইউসহ ১০টি ট্রেড ইউনিয়ন ছাড়াও বন্ধের নেতৃত্ব দিচ্ছে সরকারের অঙ্গসংগঠন হিসেবে পরিচিত আরএসএস ঘনিষ্ঠ ভারতীয় মজদুর সংঘ (বিএমএস)। এক যৌথ বিবৃতিতে এদিন সংগঠনগুলো অভিযোগ করে, ‘সরকার শ্রমিকদের জীবন ও জীবিকার ওপর আগ্রাসী আক্রমণ চালাচ্ছে।’ বিবৃতিতে তারা ট্রেড ইউনিয়ন অ্যাক্ট-১৯২৬-এর প্রস্তাবিত সংশোধনীরও বিরোধিতা করে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×