‘মায়াবতী নারী না পুরুষ বোঝা যায় না’

  যুগান্তর ডেস্ক ২১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতের বহুজন সমাজ পার্টির (বিএসপি) প্রধান মায়াবতীকে কুরুচি ভাষায় আঘাত করেছেন উত্তরপ্রদেশ বিজেপির নারী বিধায়ক সাধনা সিং। তিনি বলেন, ‘মায়াবতী নারী না পুরুষ বোঝা মুশকিল, নারী জাতির কলঙ্ক, ক্ষমতার জন্য সম্মান-সম্ভ্রম সব বিকিয়েছেন।’ জোটের শরিক সমাজবাদী পার্টি (এসপি) ও কংগ্রেস এমন কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যে সরব হয়েছে। একজন নারী হয়ে অন্য নারীকে আক্রমণে যে কদর্য ভাষা ব্যবহার করেছেন সাধনা, তার বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়াতেও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। খবর এনডিটিভির।

শনিবার উত্তরপ্রদেশে একটি জনসভায় যোগ দেন বিজেপির মুঘলসরাইয়ের বিধায়ক সাধনা সিং। সেখানে তিনি বলেন, ‘উনি (মায়াবতী) নারী নাকি পুরুষ বোঝা যায় না। কোনো আত্মসম্মান নেই। তার কার্যত শ্লীলতাহানি করা হয়েছিল। ইতিহাসে দ্রৌপদীর বস্ত্রহরণ হয়েছিল। দ্রৌপদী প্রতিশোধ নেয়ার প্রতিজ্ঞা করেছিলেন। আর এই নারী (মায়াবতী) সব কিছু খুইয়েছেন। কিন্তু এখনও ক্ষমতার জন্য আত্মমর্যাদা বিক্রি করে চলেছেন।’ সাধনা সিং যখন এ কটু মন্তব্যের ঝড় তোলেন, সামনের জনতা এবং মঞ্চে থাকা নেতানেত্রীরা করতালিতে ফেটে পড়েন। তাতে উৎসাহিত হয়ে কুকথার স্রোত আরও বাড়াতে থাকেন সাধনা। বলেন, ‘উনি নারী জাতির কলঙ্ক। যিনি ক্ষমতার জন্য নিজের সব অপমান হজম করে নিয়েছেন।’

কিছুদিন আগেই উত্তরপ্রদেশে একটি জনসভায় ১৯৯৫ সালে গেস্ট হাউস কাণ্ডের কথা উল্লেখ করে মায়াবতীকে কটাক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সাধনার এ আক্রমণের তীক্ষ্ণ জবাব দিয়েছে বিএসপি। দলের নেতা সতীশ মিশ্র বলেন, ‘বিএসপি-এসপি জোট ঘোষণার পর থেকেই বিজেপি নেতানেত্রীরা মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন। সে কারণেই এ ধরনের মন্তব্য।’ কয়েকদিন আগেই বিএসপি-এসপি জোট ঘোষণার পর অখিলেশ বলেছিলেন, মায়াবতীর অপমান মানে তারও অপমান। সাধনার মন্তব্যের পর অখিলেশ বলেন, ‘এটা সারা দেশের নারীদের অপমান। বিজেপি যে মানসিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে, এটা তারই বহিঃপ্রকাশ।’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×