আমিরাতের গোপন কারাগারে বন্দি সন্তান, আমরণ অনশনে ইয়েমেনি মায়েরা

  যুগান্তর ডেস্ক ২৯ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আমিরাতের গোপন কারাগারে বন্দি সন্তান, আমরণ অনশনে ইয়েমেনি মায়েরা
ছবি: সংগৃহীত

ইয়েমেনের রাজধানী সানায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসভবনের বাইরের ফুটপাতে দাঁড়িয়ে আছেন গুনে গুনে ৮৬ জন নারী। সবাই আপাদমস্তক বোরকা পরা। হাতে ধরা বড় ব্যানার।

তাতে কিছু ছবি আর আরবি আর ইংরেজিতে লিখা। যার তরজমা করলে দাঁড়ায়, তোমরা আমাদের সন্তানদের কোথায় লুকিয়ে রেখেছ, তা আমাদেরকে বলে দাও।

তাদেরকে আমাদের কাছে ফিরিয়ে দাও। আমরা তাদেরকে কখনও ক্ষমা করব না যারা আমাদের সন্তানদের মানবিক দিকটাকে বুঝতে অস্বীকার করেছে।

এরা মূলত সেই সব নারী যারা গত তিন-চার বছরের ইয়েমেন যুদ্ধে তাদের সন্তানদের হারিয়েছেন। অভিযোগ রয়েছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতচালিত একটি গোপান কারাগারে ‘নিখোঁজ’ সেই সব সন্তানের বন্দি করে রাখা হয়েছে।

নিজেদের সন্তানরা আসলে কোথায় আছে তার তথ্য জানতে সোমবার থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসভবনের সামনে আমরণ অনশনে বসেছেন মায়েরা। তাদের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলোও। খবর আলজাজিরার।

খবরে বলা হয়, অ্যাসোসিয়েশন অব মাদারস অব অ্যাবডাকটিস তথা অবহৃত সন্তানদের মায়েদের সংগঠনের ব্যানারে ওই বিক্ষোভ ও আমরণ অনশনের আয়োজন করা হয়েছে। সম্প্রতি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের এক অনুসন্ধানে উঠে এসেছে ইয়েমেনে আমিরাতের অন্তত ১৮টি বন্দিশিবির রয়েছে। এসব গোপন কারাগারে শত শত মানুষ বন্দি রয়েছে।

আটক ব্যক্তিদের সঙ্গে সৌদি জোটের যোদ্ধারা যুদ্ধাপরাধ করছে বলে মন্তব্য করেছে সংস্থা। খবরে বলা হয়েছে, সংযুক্ত আরব আমিরাত ইয়েমেনের দক্ষিণের কিছু এলাকা দখলে নিয়ে সেখানে গোপন কারাগার প্রতিষ্ঠা করেছে এবং সেসব কারাগারে ইয়েমেনিদের নির্যাতন করা হচ্ছে বলে এর আগেও খবর প্রকাশিত হয়েছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের নতুন প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইয়েমেনে আরব আমিরাত যেসব গোপন বন্দিশালা গড়ে তুলেছে সেখানে মারাত্মক মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে যা যুদ্ধাপরাধের শামিল। এ বিষয়ে অবিলম্বে তদন্ত দাবি করেছে সংস্থাটি।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আরব আমিরাতের মদদপুষ্ট অস্ত্রধারীরা গোপন কারাগারগুলোতে নির্মম নির্যাতনে জড়িত রয়েছে। এর আগে মার্কিন বার্তা সংস্থা এপি জানিয়েছে, দক্ষিণ ইয়েমেনে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ১৮টি গোপন কারাগার রয়েছে এবং সেগুলোতে দুই হাজারে বেশি বন্দিকে আটক রেখে তাদের ওপর নির্মম নির্যাতন চালানো হচ্ছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ইয়ামেনে সংঘাত

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×