ফিলিস্তিনে জোট সরকারের পদত্যাগ

প্রকাশ : ৩০ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক

পদত্যাগ করেছেন ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রী রামি আল-হামদাল্লাহ ও তার নেতৃত্বাধীন জোট সরকার। ইতিমধ্যে প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন হামদাল্লাহ।

তবে এ ব্যাপারে তাৎক্ষণিক কোনো সিদ্ধান্ত জানাননি আব্বাস। মঙ্গলবার নিজেই এ কথা জানিয়েছেন রামি। পদত্যাগের এ ঘটনা গাজার হামাস শাসকদের সঙ্গে আব্বাসের ফাতাহ’র সম্প্রীতির প্রচেষ্টাকে সংশয়ের মুখে ঠেলে দিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকের পর সরকার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নতুন সরকার গঠিত না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান সরকারই দায়িত্ব পালন করবে। মাহমুদ আব্বাস এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করেননি।

তবে দু’দিন আগে তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ফাতাহ’র এক বৈঠকে বর্তমান সরকারের পরিবর্তে নতুন একটি সরকার গঠনের সুপারিশ করা হয়েছিল। হামাসের এক কর্মকর্তা এর নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, এ পদক্ষেপ দলটিকে ফিলিস্তিনের রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দেয়া এবং একঘরে করে ফেলারই চেষ্টা। হামাস আরও বলেছে, ‘ফিলিস্তিনের রাজনীতি থেকে হামাসকে একঘরে করা ও হঠানোর প্রচেষ্টার অংশ এটি।’

২০০৭ সালে গাজার নিয়ন্ত্রণ নেয় হামাস। তখন ফাতাহ’র নেতৃত্বাধীন ফিলিস্তিন সরকার পশ্চিম তীর ভিত্তিক হয়ে পড়ে। ২০১৪ সালে হামাসের সঙ্গে ফাতাহ গ্রুপের ঐক্য পুনঃস্থাপনের লক্ষ্যে চেষ্টা চালান শিক্ষাবিদ রামি হামাদাল্লাহ।

পরে তার নেতৃত্বে উভয় দলের সদস্যদের অংশগ্রহণে ফিলিস্তিন সরকার গঠিত হয়। কিন্তু ক্ষমতার ভাগাভাগি কীভাবে হবে এবং ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক কেমন হবে- এমন প্রশ্নে দ্বন্দ্ব মেটানো সম্ভব হয়নি। এরই জেরে পদত্যাগ করল রামির নেতৃত্বাধীন জোট সরকার।