ভাইয়ের বিপদে ভাই

৪৫৩ কোটি রুপি দিয়ে অনিল আম্বানিকে জেল থেকে বাঁচালেন মুকেশ

  যুগান্তর ডেস্ক ২০ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছোট ভাই অনিল আম্বানিকে নিশ্চিত কারাবাস থেকে বাঁচালেন বড় ভাই মুকেশ আম্বানি। অনিলকে জেল থেকে রক্ষা করতে ৪৫৩ কোটি রুপি দিয়েছেন ভারতের শীর্ষ এ ধনী। অনিল আম্বানিকে মঙ্গলবারের মধ্যে সহযোগী সংস্থা এরিকসনের বকেয়া না মেটালে সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশে জেলে যেতে হতো। সময়সীমা শেষের একদিন আগে সোমবার রাতে এরিকসনের বকেয়া পরিশোধ করেছে অনিলের রিলায়েন্স কমিউনিকেশন্স (আরকম)। আর ঋণ মেটাতে ‘সময়োপযোগী সাহায্য’ করায় ভাই মুকেশ ও তার স্ত্রী নীতা অম্বানিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অনিল। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি সুপ্রিমকোর্টের পক্ষ থেকে অনিল ও ওই কোম্পানির দু’জন পরিচালককে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল এরিকসনের বকেয়া চার সপ্তাহের মধ্যে মিটিয়ে দিতে হবে। অন্যথায় আদালত অবমাননার দায়ে তিন মাসের জেল হবে। মঙ্গলবার এ সময়সীমা শেষ হয়েছে। তার আগেই তাদের বকেয়া মিটিয়ে দিয়েছে আরকম। সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী, এরিকসনের কাছে সুদসহ ৫৫০ কোটি রুপি বকেয়া ছিল। ফেব্রুয়ারিতে সুপ্রিমকোর্টের কাছে প্রায় ১০০ কোটি রুপি দিয়েছিল আরকম। ২০১৪ সালে সুইডিশ কোম্পানিটির সঙ্গে চুক্তি হয়েছিল। নিজেদের বকেয়া পায়নি মর্মে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিল সুইডিশ কোম্পানিটি। নিজের বিবৃতিতে অনিল আম্বানি জানিয়েছেন, ‘আমার গভীর ধন্যবাদ আমার শ্রদ্ধেয় বড় ভাই মুকেশ ও তার স্ত্রী নীতাকে। আমার খারাপ সময়ে আমার পাশে থাকা, নিজের পরিবারের প্রতি গভীর দায়িত্ববোধের পরিচয় দেয়া এবং সময়োচিত সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ। আমি ও আমার পরিবার ভীষণভাবে কৃতজ্ঞ তাদের এ সাহায্যের জন্য।’

এদিন মুকেশের সংস্থা রিলায়েন্স জিয়োকে স্পেকট্রামসহ আরকমের বিভিন্ন সম্পদ বিক্রির উদ্দেশ্যে করা চুক্তি বাতিল হয়েছে। আরকম জানিয়েছে, দুই সংস্থার সম্মতিতেই তা খারিজ করা হয়েছে। বিপুল ধার মেটাতে জিয়োকে ওই সম্পদ বিক্রির পরিকল্পনা ছিল আরকমের। এজন্য ২০১৭ সালে চুক্তি করেছিল তারা। কিন্তু এরই মধ্যে এরিকসন ৫৫০ কোটি টাকারও বেশি বকেয়া মেটানোর দাবি তোলে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×