ব্রিটেনে ‘হামলা প্রুফ জ্যাকেট’ গায়ে ফুটপাতে ঘুমায় গৃহহীনরা

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ব্রিটেনে ছুরি ও বন্দুক হামলা থেকে গৃহহীনদের নিরাপদ রাখতে দেয়া হচ্ছে ‘হামলা প্রুফ জ্যাকেট’। সম্প্রতি শহর-নগরের রাস্তায় ঘুমিয়ে থাকা মানুষের ওপর হামলার ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় এ উদ্যোগ নিয়েছে দুটি দাতব্য সংস্থা। অনেকটা ‘স্লিপিং ব্যাগ’র মতো জ্যাকেটগুলো গায়ে দিয়ে এখন নিরাপদেই ঘুমাচ্ছেন তারা। এগুলো এমনভাবে তৈরি যা আগুনে পুড়ে না ও ছুরিতে কাটে না। সাউথ ওয়েলসের রাস্তায় গৃহহীনদেরকে পরীক্ষামূলকভাবে এটা ব্যবহার করতে হয়েছে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

ঘরহীন লোকের সংখ্যা শুধু এশিয়া-আফ্রিকাতেই নয়, বিশ্বের অন্যতম ধনী দেশ যুক্তরাজ্যেও সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকগুন বেড়েছে। ‘চ্যারিটি শেল্টার’ নামে একটি সংস্থা জানিয়েছে, বর্তমানে যুক্তরাজ্যে আশ্রয়হীন মানুষের সংখ্যা প্রায় তিন লাখ। ২০১০ সালে দেশটিতে কনজারভেটিভ পার্টি ক্ষমতায় আসার পর থেকে গৃহহীনদের সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। ২০১১ সালের তুলনায় ইংল্যান্ডজুড়ে জরুরি কেন্দ্রে আশ্রয় নেয়া লোকের সংখ্যা বেড়েছে শতকরা ৬০ ভাগ। আর এ সময়ের মধ্যে গৃহহীন মানুষের সংখ্যা বেড়েছে অর্ধেকেরও বেশি। শুধু লন্ডনেই নয়, সারা দেশজুড়েই রাস্তায় ঘুমিয়ে থাকতে দেখা যায় গৃহহীন মানুষকে। সম্প্রতি এসব গৃহহীনের ওপর সহিংস হামলার ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। গৃহহীনদের নিয়ে কাজ করা দাতব্য সংস্থা ‘ক্রাইসিস’র মতে, রাস্তায় ঘুমানো লোকগুলো আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে সাধারণ মানুষের তুলনায় ১৭ গুন সহিংস হামলার শিকার হচ্ছে। গালিগালাজের শিকার ১৫ গুন। অসহায় এসব মানুষের সুরক্ষায় এগিয়ে এসেছে রেড ড্রাগন ও লামাউ নামের দুটি সংগঠন। সরবরাহ করছে হামলা প্রুফ জ্যাকেট। গৃহহীন শ্রমিকদের হাতে সংস্থার নিজস্ব কারখানাতেই উৎপাদন হচ্ছে এগুলো। এক একটা জ্যাকেটের উৎপাদন খরচ পড়ছে ৭০০ ইউরো বা ৭০ হাজার টাকা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×