শ্রীলংকা হামলার জঙ্গি ট্রেনিং ভারতে: সেনাপ্রধান

  যুগান্তর ডেস্ক ০৫ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শ্রীলংকা হামলার জঙ্গি ট্রেনিং ভারতে: সেনাপ্রধান

শ্রীলংকার সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল মহেশ সেনানায়েক জানিয়েছেন, কলম্বোয় আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীরা সন্ত্রাসী প্রশিক্ষণ নিতে প্রতিবেশী ভারত সফর করেছিলেন।

২১ এপ্রিল ইস্টার সানডেতে কলম্বোর তিনটি গির্জা, তিনটি পাঁচতারকা হোটেলসহ আটটি স্থানে আত্মঘাতী হামলায় আড়াই শতাধিক নিহত ও পাঁচ শতাধিক মানুষ আহত হন।

হামলার চারদিন পর আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করে। লংকান সেনাপ্রধান বলেন, ‘হামলাকারীরা ভারতে যায়।

সেখানে কাশ্মীর, বেঙ্গালুরু ও কেরালা রাজ্যে সম্ভবত সন্ত্রাসী প্রশিক্ষণ নেয়। তাদের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য আমরা হাতে পেয়েছি।’

শনিবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘এক বোমা হামলাকারীর ভারত সফরের সুনির্দিষ্ট তথ্য পেয়েছি।

কিন্তু, তার এই সফরের সঠিক কারণ এখন পর্যন্ত জানা সম্ভব হয়নি।’ মহেশ সেনানায়েক বলেন, ‘সম্ভবত কিছু প্রশিক্ষণ অথবা দেশের বাইরের কিছু সংগঠনের সঙ্গে আরও বেশি সংযোগ স্থাপনের জন্য হামলাকারীরা এ সফর করেছিল।’

শ্রীলংকার ইতিহাসে ভয়াবহ ওই হামলার পর সরকার দাবি করে, কমপক্ষে ৯ জন এই আত্মঘাতী হামলায় জড়িত। দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা আগাম তথ্য পাওয়ার পরও হামলা মোকাবেলায় ব্যর্থতার জন্য নিরাপত্তা বাহিনীকে দোষারোপ করেন।

এ নিয়ে তাদের মধ্যকার সম্পর্কের টানাপোড়েনও দেখা দেয়। প্রথম হামলার কয়েক ঘণ্টা আগেও চূড়ান্ত সতর্কবার্তা পাঠিয়েছিল ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা। এ বিষয়ে লংকান সেনাপ্রধান বলেন, ‘তারা গোয়েন্দা তথ্য আদান-প্রদান করেছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘ওই পরিস্থিতিতে বিভিন্ন দিক থেকে আসা সামরিক গোয়েন্দা তথ্যও ভিন্ন ধরনের ছিল। এসব তথ্যের মধ্যে এক ধরনের সমন্বয়হীনতা ছিল, যা এখন সবার কাছেই স্পষ্ট।’ ইস্টার সানডের হামলার পর ভারতের জাতীয় তদন্ত সংস্থা এনআইএ দেশটির তামিলনাড়ু ও কেরালার বিভিন্ন এলাকায় কয়েক দফা অভিযান চালিয়েছে। তারা ওই হামলার সঙ্গে ভারতীয়দের কোনো সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা তা তদন্ত করছে।

ঘটনাপ্রবাহ : শ্রীলংকায় গির্জা ও হোটেলে সিরিজ হামলা

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×