বিদ্যাসাগর মূর্তি ভাঙার জের: পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি-তৃণমূল রণসাজ

অমিত শাহের বিরুদ্ধে এফআইআর * ৫৮ জনকে গ্রেফতার

  যুগান্তর ডেস্ক ১৬ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রণসাজ

পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রোড শোতে হামলার পর ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ভাস্কর্য ভাঙার ঘটনায় পরস্পরকে দুষছে বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস।

ঘটনাকে কেন্দ্র করেই মধ্যে তুমুল উত্তেজনা বিরাজ করছে কলকাতায়। নির্বাচনী মাঠ তুমুল রণসাজে রূপ নিয়েছে। এরই মধ্যে অমিত শাহসহ বেশ কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে অমিত বলেন, মঙ্গলবারের রোড-শোতে হামলা এবং ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের একটি ভাস্কর্য গুঁড়িয়ে দেয় তৃণমূল সমর্থকরা। এমন বিশৃঙ্খলা ঘটিয়ে লোকসভা নির্বাচনে একটা ইমেজ তৈরি করতে চেয়েছেন মমতা ব্যানার্জি। খবর এনডিটিভির।

ঘটনার সঠিক তদন্তের জন্য নয়াদিল্লিতে বিজেপি নেতাকর্মীরা মানববন্ধন করেন। কলকাতার ঘটনার পেছনে তৃণমূলের হাত রয়েছে বলে দাবি করা হয় মানববন্ধন থেকে। দেশটির নির্বাচন কমিশন ঘটনার ভিডিও পর্যালোচনা করে বিস্তারিত জানাবে বলে জানিয়েছে।

বিদ্যাসাগর কলেজে তাণ্ডব এবং বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাংচুরের ঘটনার প্রতিবাদে শহরজুড়ে বিভিন্ন প্রতিবাদ মিছিল করে বামফ্রন্ট, তৃণমূল, কংগ্রেসসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এবং গণ সংগঠন। সকাল থেকেই প্রতিবাদ-অবস্থান-বিক্ষোভ-মিছিলসহ বিভিন্ন কর্মসূচি দেখতে পাওয়া যায় কলকাতা মহানগরী ও রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে। বিভিন্ন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদেরও কালো ব্যাজ পরে প্রতিবাদ জানান। সিপিএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরি অভিযোগ করেন, ‘আমরা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করছি। শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, ভারতীয় সভ্যতাকে ধ্বংস করার চেষ্টা করছে বিজেপি।’

বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে পদযাত্রায় নামেন মমতা। বেলেঘাটা থেকে শুরু হয়ে পদযাত্রা শেষ হয়েছে শ্যামবাজারে। মিছিলে দেখা গেছে চিত্রশিল্পী শুভাপ্রসন্ন, কবি সুবোধ সরকার, অভিনেত্রী জুন মাল্য, পরিচালক অরিন্দম শীলসহ বিশিষ্টজনরা। মঙ্গলবার বিকালে অমিত শাহের রোড শো কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছাতেই ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। বিজেপির সভাপতিকে লক্ষ্য করে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দিতে থাকে তৃণমূল কর্মীরা। এতে উত্তেজিত হয়ে ওঠে বিজেপি সমর্থকরাও। দুই দলের কর্মী-সমর্থকরা ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকলে রণক্ষেত্রে রূপ নেয় শিক্ষার প্রাণকেন্দ্রখ্যাত কলেজ স্ট্রিট।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×