বেওয়ারিশ গরু রাখার তহবিল চান যোগী

  যুগান্তর ডেস্ক ০৪ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাস্তার ও বেওয়ারিশ গরুর জন্য গো-শালা উন্নয়নে উদ্যোগী হল উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সরকার। গো-শালার পরিকাঠামো তৈরিতে ও তহবিল গড়তে সোমবার এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে বেশ কিছু নির্দেশিকা দেয়া হয়েছে যোগী সরকারের তরফে। রাজ্যের পশুপালন দফতরের মুখ্য সচিব এসএম বোবদে বলেন, মন্ত্রিসভার অনুমোদন পাওয়ার পর পরিকাঠামো গড়ে তুলতে উত্তরপ্রদেশ ‘গো-সংরক্ষণ ও উন্নয়ন তহবিল আইন ২০১৯’ নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

এই আইনে গো-শালা তৈরি ও তা পরিচালনা করা নিয়ে নির্দিষ্ট রূপরেখা দেয়া হয়েছে। লোকসভা ভোটের পর সোমবার মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সভাপতিত্বে উত্তরপ্রদেশের প্রথম মন্ত্রিসভার বৈঠক হয়। সেখানেই জেলা স্তরে এই গো-শালা নিয়ে নতুন নিয়ম কার্যকরী করা নিয়ে প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। বলা হয়, গো-শালা নির্মাণ ও এই সংক্রান্ত স্কিমে সব ধরনের সহযোগিতা করবে রাজ্য সরকার।

যোগীর রাজ্যেই হিন্দিতে ফেল ১০ লাখ : নরেন্দ্র মোদি সরকারের নয়া খসড়া শিক্ষানীতি প্রকাশিত হয়েছে রোববার। তাতে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত হিন্দি আবশ্যক করার প্রস্তাব রয়েছে বলে দাবি নানা শিবিরের। দেশের নানা প্রান্ত থেকে শুরু হয়েছে প্রতিবাদ। টুইটারে ক্রমশ জনপ্রিয় হচ্ছে ‘স্টপহিন্দিইমপোজিশন’ হ্যাশট্যাগ। এরই মধ্যে সামনে এসেছে হিন্দি বলয়ের অন্যতম রাজ্য উত্তরপ্রদেশে হিন্দি শিক্ষার করুণ চিত্রের এক ঝলক। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে দশম ও দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে ২৭ এপ্রিল। দুই স্তর মিলিয়ে হিন্দিতে ফেল করেছে প্রায় ১০ লাখ পড়ুয়া। মোট পরীক্ষার্থীর ২০ শতাংশই হিন্দি ভাষার পরীক্ষায় পাস করতে পারেনি। উত্তরপ্রদেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বোর্ডের সচিব নীনা শ্রীবাস্তবের কথায়, ‘কেন হিন্দিতে এত পড়ুয়া ফেল করেছে তার কারণ নিশ্চিত করে বলা কঠিন। হতে পারে পড়ুয়ারা অন্য বিষয়ের চেয়ে হিন্দিকে কম গুরুত্ব দিয়েছে।’ কাকোরি-র বাবু ত্রিলোকী সিংহ ইন্টার কলেজের অধ্যক্ষ আর কে সিংহ বলেন, ‘এই রাজ্যে অধিকাংশ পড়ুয়ার মাতৃভাষা হিন্দি। তাই তারা হিন্দিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয় না। কিন্তু বিষয় হিসেবে হিন্দিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া প্রয়োজন।’ শুধু তা-ই নয়, সম্প্রতি খোদ নরেন্দ্র মোদির রাজ্য গুজরাটে গুজরাটি শিক্ষার বেহাল দশা সামনে এসেছিল। সে রাজ্যে দশম শ্রেণীর পরীক্ষায় গুজরাটি মাধ্যম স্কুলের চেয়ে ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে পাসের হার ২৩.৫৩ শতাংশ বেশি। ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে পাসের হার যেখানে ৮৮.১১ শতাংশ, সেখানে গুজরাটি মাধ্যম স্কুলে পাস করেছে ৬৪.৫৮ শতাংশ পড়ুয়া।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×