প্রধানমন্ত্রী হতে একের পর এক বাম্পার অফার দিচ্ছেন বরিস

  যুগান্তর ডেস্ক ১৮ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

যুক্তরাজ্যে জমে উঠেছে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী পদ দখলের লড়াই। দল ও সরকারের সর্বোচ্চ পদ বাগিয়ে নিতে একের পর এক বাম্পার অফার দিচ্ছেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন। এবার ২০২৫ সালের মধ্যে যুক্তরাজ্যে দ্রুতগতির ব্রডব্যান্ড সুবিধা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এর আগে ধনীদের আয়কর কমানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন জনসন। এদিকে, নেতৃত্ব বাছাইয়ে টিভি বিতর্কে নেমেছেন প্রার্থীরা। সেখানেও ব্রেক্সিট বিতর্ক বড় ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। খবর বিবিসির।

নেতৃত্ব বাছাইয়ে বৃহস্পতিবার প্রথম দফা ভোটে জনসন প্রথম স্থান অর্জন করেন। প্রয়োজনীয় ১৭ ভোট না পাওয়ায় তিন প্রার্থী আন্দ্রিয়া লিডসম, এস্টার ম্যাকভেই ও মার্ক হার্পার নেতৃত্ব দৌড় থেকে বাদ পড়েছেন। লড়াইয়ে টিকে রয়েছেন জেরেমি হান্ট, মাইকেল গোভ, সাজিদ জাভিদ, ডমিনিক রাব, ররি স্টুয়ার্ট। ম্যাট হ্যানকক প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে গিয়ে বরিসকে সমর্থন দিচ্ছেন।

নেতৃত্ব বাছাইয়ের নিয়ম অনুযায়ী, ৩১৩ কনজারভেটিভ এমপি ১৮, ১৯ ও ২০ জুন সিরিজ ভোটের মাধ্যমে আরও ৪ প্রার্থীকে ছেঁটে ফেলবেন। শীর্ষ দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে একজনকে বেছে নিতে ভোট দেবেন টোরি দলের নিবন্ধিত সদস্যরা। জুলাইয়ের শেষদিকে বিজয়ী ব্যক্তির নাম ঘোষণা করা হবে। ওই বিজয়ী প্রার্থী প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মের স্থলাভিষিক্ত হবেন।

প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে প্রতিশ্রুতির ফুলঝুরি ছড়াচ্ছেন নেতারা। ২০২৫ সালের মধ্যে ব্রিটেনকে দ্রুতগতির ইন্টারনেটের আওতায় আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন জনসন। তিনি বলেন, আধুনিক জীবনে দ্রুত ওয়েব লিংকে প্রবেশ করাই অপরিহার্য উপাদান। সরকারের ২০৩৩ সালের মধ্যে শতভাগ ফুল-ফাইবার ব্রডব্যান্ড প্রকল্পেরও সমালোচনা করেন জনসন। তিনি বলেন, এত সময় নিয়ে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করাটা হাস্যকর। প্রধানমন্ত্রী হতে পারলে ৫ বছরের মধ্যেই এটি বাস্তবায়ন করা হবে।

এর আগে কর কমানোর ঘোষণায় বরিস বলেন, ‘এ পরিকল্পনার অধীনে কোনো ব্যক্তি বছরে ৬০ হাজার ইউরো আয় করলে তাকে ১ হাজার ইউরো কম কর দিতে হবে।’

এদিকে, প্রার্থীদের মধ্যে টিভি বিতর্কে সোমবার ব্রেক্সিটই ছিল প্রধান ইস্যু। মাইকেল গোভ বলেন, একটি যৌক্তিক চুক্তিতে পৌঁছাতে প্রয়োজনে ব্রেক্সিট বিলম্ব করা হবে। উত্তম কোনো চুক্তি না হলে চুক্তিহীন ব্রেক্সিটের পক্ষে তিনি। চুক্তি ছাড়াই ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন করতে চান পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্ট। তবে চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট ব্রিটেনের জন্য বিপর্যয়কর হবে বলে মনে করেন উন্নয়নমন্ত্রী ররি স্টুয়ার্ট।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×