ইরান ইস্যুতে হঠাৎ ইউটার্ন ট্রাম্পের

শরণার্থী ইস্যুতেও পিছুটান : অবৈধ অভিবাসী তল্লাশি অভিযান দুই সপ্তাহের জন্য তা স্থগিত

  যুগান্তর ডেস্ক ২৫ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইরান ইস্যুতে হঠাৎই ইউটার্ন নিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। রোববার সুর নরম করে তিনি বলেছেন, ‘ইরানের সঙ্গে আমরা কোনো যুদ্ধে জড়াতে চাই না।’ এর ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগেও ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানকে চরম পরিণতির হুশিয়ারি দিয়েছেন। বলেছেন, ‘যুদ্ধ হলে তাদের (ইরানের) এমন অবস্থা হবে, যা কেউ এর আগে কখনও দেখেনি।’ ২০২০ সালের নির্বাচনে পুনরায় লড়াইয়ের ঘোষণা দেয়ার কয়েক দিন পর ইরান যুদ্ধে ট্রাম্পের পিছুটানের ঘটনা ঘটল। এর আগে তেহরানে হামলার ঠিক আগমুহূর্তেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন ট্রাম্প। খবর সিএনএন ও স্কাই নিউজের।

গত সপ্তাহে ইরান মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করার পর দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে। ড্রোন ভূপাতিত করার ঘটনার প্রতিশোধ নিতে ট্রাম্প ইরানে হামলার নির্দেশ দেন। মার্কিন সামরিক বাহিনী ইরানে হামলার প্রস্তুতি নিয়েও শেষমুহূর্তে তা বাতিল করে। হামলায় ইরানের অন্তত দেড়শ’ লোকের মৃত্যু হবে- এমনটা জানতে পেরে নির্ধারিত সময়ের মাত্র ১০ মিনিট আগে আক্রমণ বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানান ট্রাম্পও। মার্কিন প্রেসিডেন্টের মতে, একটি মনুষ্যবিহীন ড্রোন ভূপাতিত করার বদলায় দেড়শ’ মানুষের মৃত্যু যুক্তিযুক্ত হতো না।

রোববার আবারও ইরানের সঙ্গে যুদ্ধে না জড়ানোর কথা পুনর্ব্যক্ত করলেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘আমরা এটা বলব যে, ইরানকে মহান হতে দিন। আমরা তাদের সঙ্গে যুদ্ধ চাই না।’ ট্রাম্প আরও বলেন, ‘আমি মনে করি তারা সমঝোতা চাইবে। আমি মনে করি ইরান একটি চুক্তিতে আসতে চাইবে। আমি এটা মনে করি না যে, তারা যেখানে দাঁড়িয়ে রয়েছে সেটি উত্তম অবস্থান। দেশটির অর্থনীতি সত্যিই খুব ভঙ্গুর।’

এর কয়েক ঘণ্টা আগে এনবিসি নিউজের মিট দ্য প্রেসে দেয়া সাক্ষাৎকারে ইরানকে হুশিয়ারি দেন ট্রাম্প। ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনির উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, তিনি ইরানের সঙ্গে যুদ্ধ চান না। যদি সেটা হয় তাহলে এমন কিছু ঘটবে, যা আপনি জীবনে কখনও দেখেননি। কিন্তু আমি সেটা করতে চাই না। আপনি (খামেনি) কোনো পারমাণবিক অস্ত্র রাখতে পারবেন না। আপনি যদি আলোচনা চান তাহলে ভালো। অন্যথায় আপনার (ইরানের) আগামী তিন বছরে অর্থনৈতিক অবস্থা শোচনীয় হবে।

এর আগে শনিবার ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থায় সাইবার হামলায় চালায় যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার ইরানের যোগাযোগ ও প্রযুক্তিমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ আজারি জাহরোমি বলেন, ‘তেহরানের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থায় আমেরিকার চালানো সাইবার হামলা ব্যর্থ হয়েছে। মার্কিন হামলায় ইরানি ক্ষেপণাস্ত্রের নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থায় কোনো বিঘ্ন ঘটেনি।’ শরণার্থী ইস্যুতেও পিছুটান দিয়েছেন ট্রাম্প। রোববার থেকে অবৈধ অভিবাসী তল্লাশি অভিযান শুরুর কথা থাকলেও দুই সপ্তাহের জন্য তা স্থগিত করেন ট্রাম্প। এক দিনেই অন্তত ২০০০ পরিবারকে চিহ্নিত করে তাদের নিজেদের দেশে ফেরত পাঠাতে মার্কিন অভিবাসন এবং শুল্ক বিভাগ ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্টকে (আইসিই) নির্দেশ দেন ট্রাম্প। হিউস্টন, লস অ্যাঞ্জেলেস, শিকাগো, বাল্টিমোর, সান ফ্রান্সিসকো, মায়ামির মতো ১০টি শহরে এক সপ্তাহ ধরে অভিযান পরিচালনার কথা ছিল। কিন্তু বেঁকে বসেন দেশের বেশির ভাগ শহরের মেয়র। শিকাগোর মেয়র পুলিশকে বলেন, আইসিইকে কোনোরকম সহযোগিতা দেয়া হবে না। তল্লাশি অভিযানে নারাজ নিউইয়র্ক, আটলান্টা, সান-ফ্রান্সিসকোর মেয়ররাও। এ অবস্থায় অনেকেই হোমল্যাল্ড সিকিউরিটির সঙ্গে বিভিন্ন শহরের প্রশাসনিক স্তরে বড় দ্বন্দ্বের আশঙ্কা করেছিলেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×