চীন-মার্কিন বাণিজ্য যুদ্ধে ইতি টানার ইঙ্গিত

  যুগান্তর ডেস্ক ৩০ জুন ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতের পর এবার চীন-যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য যুদ্ধেও ইতি পড়তে চলেছে। শেষ হতে চলেছে গত এক বছরেরও বেশি সময় ধরে পাল্টাপাল্টি শুল্কারোপের খেলা। শনিবার চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠকের পর তেমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জাপানের ওসাকায় জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনের শেষ দিন জিনপিংয়ের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন ট্রাম্প। বৈঠক শেষে বাইরে বেরিয়ে বলেন, শি’র সঙ্গে আমাদের খুব ভালো বৈঠক হয়েছে। একাধিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা ফের সঠিক পথে এগোচ্ছি। চীনা পণ্যে আর কোনো শুল্কারোপও করা হবে না বলেও নিশ্চিত করেছে ওয়াশিংটন। জি-২০-এর আসরেই ইইউ ও দক্ষিণ আমেরিকার মধ্যে একটি ঐতিহাসিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। দীর্ঘ দুই দশকের আলোচনার পর ইইউ ও দক্ষিণ আমেরিকার অভিন্ন বাজার মারকোসুরের মধ্যে এই চুক্তি হল। চুক্তির মধ্য দিয়ে ৮০ কোটি মানুষের অভিন্ন বাজার সৃষ্টি হবে। জনসংখ্যার বিচারে যা এ যাবৎকালের সবচেয়ে বড়ো বাজার। খবর এএফপি ও বিবিসির। বাণিজ্য ও আন্তর্জাতিক নানা ইস্যুতে আলোচনার মধ্য দিয়ে শনিবার শেষ হয় দু’দিনব্যাপী সম্মেলন। এবারের সম্মেলনে জোটভুক্ত ১৯ দেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বাইরে আরও ৮ দেশ এবং ৯ বহুজাতিক সংস্থাসহ মোট ৩৭ দেশ ও সংস্থা অংশ নিলেও মূলত সবার নজর ছিল ট্রাম্প ও জিনপিংয়ের বৈঠকের দিকে। নানা কারণেই সম্মেলনের আলোচনার কেন্দ্রে ছিল বৈশ্বিক ভূরাজনৈতিক দ্বন্দ্ব ও বাণিজ্য যুদ্ধ। প্রায় এক বছরের বাণিজ্য যুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে এদিন বৈঠকে বসেন শি-ট্রাম্প।

তবে কী কী বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা স্পষ্ট করেননি ট্রাম্প। জিনপিংও বৈঠকের বিষয় নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি। তবে চীনের সরকারি সংবাদ সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এটা আসলে শুল্ক-যুদ্ধ অবসানেরই ইঙ্গিত। আরও জানিয়েছে, ওয়াশিংটন নতুন করে আর চীনের দ্রব্যাদির ওপর কোনো শুল্ক চাপাবে না। দু’পক্ষই পুনরায় বাণিজ্য এবং অর্থনীতি বিষয়ে আলাপ শুরু করবে।

চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের শুল্ক যুদ্ধ চলছে বেশ কিছু দিন ধরেই। চলতি বছরের মে পর্যন্ত ২৫ হাজার কোটি ডলারের চীনা পণ্যের উপরে ২৫ শতাংশ শুল্ক চাপিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। যে সমস্ত পণ্যে এখনও শুল্ক বসানো হয়নি সেগুলোর উপরেও ২৫ শতাংশ শুল্ক বসানোর হুশিয়ারি দিয়ে রেখেছে ওয়াশিংটন। সেক্ষেত্রে প্রায় ৩০ হাজার কোটি ডলারের পণ্যে নতুন করে শুল্ক চাপাতে চলেছিল ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। পাল্টা চীনও ৬ হাজার কোটি ডলারের মার্কিন পণ্যে শুল্ক বাড়িয়ে দেয়। দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য নিয়ে সমাধান সূত্র মেলার বদলে দুই দেশের মধ্যে এ উত্তাপ ক্রমশ বাড়ছিল।

যুবরাজের প্রশংসায় মুখে ফেনা তুললেন ট্রাম্প : সৌদি যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানকে প্রশংসায় ভাসালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কথার ফুলঝুরি ফুটিয়ে বলেছেন, ‘মোহাম্মদ বিন সালমান চমৎকার সব কাজ করছেন।’ সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যায় যুবরাজের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নিন্দা ও সমালোচনা সত্ত্বেও জি-২০ সম্মেলনে শনিবার তার পক্ষেই সাফাই গেয়ে বলেছেন, খাসোগি হত্যায় তিনি ‘খুবই ক্ষুব্ধ’। কিন্তু এজন্য যুবরাজ দায়ী নয়। কেউই তাকে দোষ দেয়নি। সম্মেলনের শেষ দিন শনিবার যুবরাজের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন ট্রাম্প। বৈঠকে যুবরাজকে বন্ধু বলে সম্বোধন করে তিনি বলেন, ‘আপনি চমৎকার সব কাজ করছেন।’ বৈঠকে খাসোগি হত্যার কথা তুলেছেন কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কেউই যুবরাজের দিকে আঙুল তোলেনি।’ খবর এএফপির।

গত বছর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ভিন্নমতাবলম্বী সৌদি লেখক ও সাংবাদিক খাসোগিকে জবাই করে টুকরো টুকরো করে হত্যা করা হয়।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত