সুদানে বিক্ষোভকারী সেনা ক্ষমতা ভাগাভাগি

  যুগান্তর ডেস্ক ১৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সুদানে ক্ষমতার ভাগাভাগি নিয়ে শেষ পর্যন্ত আপস-রফায় পৌঁছেছে ক্ষমতাসীন জেনারেল ও বিক্ষোভকারীদের পক্ষে বিরোধী দলগুলো। দেশকে গণতন্ত্রের পথে ফিরিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে একটি রাজনৈতিক চুক্তিতে উপনীত হয়েছেন ক্ষমতাসীন সামরিক কাউন্সিল ও বিরোধী জোটের নেতারা। সমঝোতার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মঙ্গলবার রাতভর শেষ মুহূর্তের আলোচনার পর বুধবার রাজধানী খার্তুমে উভয় পক্ষের প্রতিনিধিরা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। এ সময় আফ্রিকান ইউনিয়নের মধ্যস্থতাকারীরাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশিরের ক্ষমতাচ্যুতির পর থেকে বেসামরিক সরকারের দাবিতে বিক্ষোভ করে আসছে জনগণ। খবর রয়টার্সের। কয়েক সপ্তাহের তুমুল গণবিক্ষোভে গত বছরের ডিসেম্বরে ৩ দশক ক্ষমতায় থাকা প্রেসিডেন্ট বশিরকে উৎখাত করে দেশটির সেনাবাহিনী। বেসামরিক সরকারের দাবিতে ফের রাস্তায় নামে সুদানিরা। অন্তর্র্বর্তীকালীন শাসনভার নিয়ে সেনাবাহিনী ও বিক্ষোভকারীদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। বশিরবিরোধী আন্দোলনের নেতৃত্ব দেয়া সুদানিজ প্রফেশনাল অ্যাসোসিয়েশন ‘ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখা’ সেনা কাউন্সিলকে বেসামরিকদের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বানও জানায়। বিক্ষোভের একপর্যায়ে আন্দোলনকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনী হামলা চালালে হতাহতের ঘটনাও ঘটে। চলতি মাসের শুরুতে ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ ও আফ্রিকান ইউনিয়নের সদস্যদের মধ্যস্থতায় খার্তুমে দুই পক্ষ ফের আলোচনায় বসে। সেখানেই নতুন নির্বাচনের জন্য তিন বছর কিংবা আরেকটু বেশি সময় নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এ সময়ে সামরিক বাহিনী ও সম্মিলিত বিরোধী জোট পালা করে সুদানের সর্বোচ্চ ক্ষমতাকাঠামো সার্বভৌম পরিষদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে হওয়া সহিংসতার নিরপেক্ষ তদন্ত ও দেশ পরিচালনায় একটি স্বাধীন টেকনোক্রেট সরকারে গঠনেও দুই পক্ষ সম্মত হয়েছে বলে জানিয়েছে আফ্রিকান ইউনিয়ন। সামরিক কাউন্সিল ও বিরোধীদের এ চুক্তি সেখান থেকে উত্তরণের পথ দেখাবে বলে আশা পর্যবেক্ষকদের। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের পর এক প্রতিক্রিয়ায় বিরোধী ফোর্সেস অব ফ্রিডম অ্যান্ড চেঞ্জ কোয়ালিশনের নেতা ইব্রাহিম আল-আমিন, ‘আমরা একটি স্থিতিশীল স্বদেশ চাই, কেননা আমরা অনেক ভুগেছি।’ ইথিওপিয়ার মধ্যস্থতাকারী মাহমুদ দিরির বলেছেন, সুদানের এখন প্রয়োজন দরিদ্র রাষ্ট্রের তকমা থেকে বেরিয়ে আসা। তিনি যুক্তরাষ্ট্রকে তাদের ‘সন্ত্রাসবাদের সহযোগী’ দেশের তালিকা থেকে সুদানকে সরিয়ে নেয়ারও আহ্বান জানান। ‘রাজনৈতিক চুক্তি’ করলেও উভয় পক্ষই এখন একটি সাংবিধানিক ঘোষণা নিয়ে কাজ করছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×