উত্তর কোরিয়ার অভিযোগ

নিষেধাজ্ঞা দিয়ে যুদ্ধের গর্জন তুলছে যুক্তরাষ্ট্র

  যুগান্তর ডেস্ক ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে এ যাবৎকালের সবচেয়ে বড় নিষেধাজ্ঞা জারির পর এবার যুদ্ধের তোড়জোড় শুরু করছে যুক্তরাষ্ট্র, এমনটাই দাবি করছে পিয়ংইয়ং। রোববার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কোরিয়া সরকারের এক মুখপাত্র এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের এ ধরনের সামুদ্রিক নিষেধাজ্ঞা বলে দেয় তারা আমাদের সঙ্গে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। খবর দ্য ইন্ডিপেনডেন্টের।

সরকারের এ মুখপাত্র আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে জাপানও যোগ দিয়েছে। ওয়াশিংটন ও টোকিও বিশ্ব পরিবর্তনের নামে যদি পিয়ংইয়ংকে কোনোভাবে ক্ষেপিয়ে তোলার চেষ্টা করে তবে এর ফল ভালো হবে না। উল্টো তাদের নিরাপত্তা ও অস্তিত্ব নিয়ে ঝুঁকিতে পড়তে হবে।

এবারের শীতকালীন অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়া এবং দক্ষিণ কোরিয়ার মাঝে পারস্পরিক এক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। সরকারের এ মুখপাত্রের দাবি, নতুন করে গড়ে ওঠা এ সম্পর্ক নষ্ট করার লক্ষ্যে ওয়াশিংটন পিয়ংইয়ংয়ের ওপর নতুন করে এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এদিকে মার্কিন এ নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। কেননা এ নতুন নিষেধাজ্ঞার আওতায় উত্তর কোরিয়া শুধু নয়, সেই সঙ্গে বেশ কয়েকটি চীনা কোম্পানিও রয়েছে। আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থাগুলো জানায়, শুক্রবার দ্বিতীয় ধাপের নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করার পর চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মার্কিনিদের এ পদক্ষেপকে ‘হঠকারী’ বলে উল্লেখ করে। তারা এ ধরনের পদক্ষেপ থেকে সরে আসতে ট্রাম্প প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানায়।

শুক্রবার মেরিল্যান্ডে দেয়া এক ভাষণে ট্রাম্প এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। এ নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকবে ৫৬টি জাহাজ, নৌযান কোম্পানি ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান। ট্রাম্প বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয় শিগগিরই নতুন পদক্ষেপ নেবে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.