মার্কিন দূতাবাসে হামলা চালিয়ে ৯/১১ উদযাপন তালেবানের

  যুগান্তর ডেস্ক ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের মার্কিন দূতাবাসের সামনে মঙ্গলবার গভীর রাতে রকেট হামলা হয়েছে। মার্কিন দূতাবাসে হামলা চালিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ৯/১১ হামলার সেই বার্ষিকীই উদযাপন করল তালেবানরা। রয়টার্স জানায়, বুধবার ভোররাতে কাবুলের মার্কিন দূতাবাসের সামনে জোরালো বিস্ফোরণে শব্দ শোনা যায়। দূতাবাস চত্বর ঢেকে যায় ধোঁয়ায়। মার্কিন দূতাবাসের এক কর্মী ফোনে বিস্ফোরণের খবর নিশ্চিত করেছেন। সরকারিভাবেও ক্ষয়ক্ষতি বা প্রাণহানির খবর জানানো হয়নি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তালেবানদের সঙ্গে শান্তি আলোচনা বন্ধ করে দেয়ার পর, কাবুলে এটাই প্রথম বড় হামলা। গত সপ্তাহেই দুটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে কাবুলে বেশ কয়েকজন সাধারণ নাগরিক নিহত হন। হামলায় নিহত হন ন্যাটোর দুই মার্কিন সৈন্যও। এ কারণে তালোবানের সঙ্গে আলোচনা বাতিল করেন ট্রাম্প। তার আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, ধীরে ধীরে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেবেন।

যুক্তরাষ্ট্র ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ভয়াবহ সন্ত্রাসবাদী হামলায় গুঁড়িয়ে দেয়া হয় টুইন টাওয়ার। এ হামলায় ২ হাজার ৯৯৭ জন নিহত হন। ৬ হাজারেরও বেশি মানুষ আহত হন। এ ঘটনার জন্য বরাবরই আল কায়দাকে দোষারোপ করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। যার মাস্টারমাইন্ড ওসামা বিন লাদেন। তারপর থেকে গত আঠারো বছর ধরে তালেবানের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ২০১১ সালে পাকিস্তানে মার্কিন হানায় ওসামা বিন লাদেন নিহত হওয়ার পর আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা কমিয়ে নেয়া হয়। বর্তমানে সেখানে ১৪ হাজার মার্কিন সেনা রয়েছে।

১৮ বছর পরও মরছে মানুষ : টুইন টাওয়ার হামলার ১৮ বছর পরও এখনও মানুষ ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন। মেটাস্ট্যটিক ক্যান্সারে আক্রান্ত তিন সন্তানের জননী জ্যাকুলিন ফেবরিলেট বলেন, ‘৯/১১ হামলার পর থেকে আমি টুইন টাওয়ারের পাশে ম্যানহাটনে ভূমি জরিপের কাজ করছি। আমি বুঝতেই পারিনি এর প্রভাব আমাকেও গ্রাস করবে।’ ওয়াল্ড ট্রেড সেন্টারের হেল্থ প্রোগ্রামের তথ্যানুসারে, চলতি বছরের জুন পর্যন্ত ২১ হাজার মানুষ চিকিৎসা নিয়েছেন, যাদের মধ্যে ৪ হাজার জন ক্যান্সারে আক্রান্ত।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×