যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনায় যাবে না ইরান : খামেনি

  যুগান্তর ডেস্ক ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কখনও আলোচনায় যাবে না তার দেশ। তেহরানের ওপর ওয়াশিংটনের ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগের নীতিও ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) বৈঠককে সামনে রেখে মঙ্গলবার এক টিভি ভাষণে এসব কথা বলেন সর্বোচ্চ নেতা। সম্প্রতি পূর্ব কোনো শর্ত ছাড়াই ইরানি প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানির সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের প্রস্তাব দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। চলতি সপ্তাহ শেষে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠেয় জাতিসংঘ সম্মেলনের ফাঁকে দুই নেতার ওই বৈঠকের সম্ভাবনা থাকলেও শনিবার সৌদি আরবের দুই তেল স্থাপনায় ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীদের ড্রোন হামলার পরিপ্রেক্ষিতে তা নস্যাৎ হয়ে যায়। খবর রয়টার্সের।

ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনায় কঠোর নীতি ও অবস্থান ঘোষণা করে খামেনি বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে আমেরিকার সঙ্গে আলোচনায় বসার অর্থ হবে ওয়াশিংটনের অযৌক্তিক চাপ প্রয়োগের কাছে আত্মসমর্পণ করা।’ তিনি বলেন, আলোচনায় বসলে ওয়াশিংটন তার দাবি-দাওয়া ইরানের ওপর চাপিয়ে দেবে। এছাড়া তারা বলে বেড়াবে, তেহরানের ওপর সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের নীতিতে কাজ হয়েছে। সর্বোচ্চ নেতা আরও বলেন, ঠিক এ কারণেই ইরানি কর্মকর্তারা- সে প্রেসিডেন্ট হোন অথবা পররাষ্ট্রমন্ত্রী- আমেরিকার সঙ্গে আলোচনার ব্যাপারে অনাগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তাদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বা বহুপক্ষীয় কোনো ধরনের আলোচনাই হবে না।

সৌদি আরবকে রুশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার প্রস্তাব পুতিনের : বৃহৎ দুই তেলক্ষেত্র আক্রান্ত হওয়ার পর সৌদি আরবকে রুশ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার প্রস্তাব দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তুরস্কে সফরে ইরানি প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি ও তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোগানের সঙ্গে সিরিয়া বিষয়ে ত্রিপক্ষীয় এক বৈঠকের পর সোমবার ইস্তাম্বুলে এক সংবাদ সম্মেলনে রিয়াদকে আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৪০০ কেনার পরামর্শ দেন তিনি। বলেন, ‘সৌদি আরবের কাছে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বিক্রি করে দেশটির জনগণ ও তেলক্ষেত্রগুলোকে রক্ষায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে প্রস্তুত মস্কো।’ একই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সম্প্রতি ইরান ও তুরস্কের কাছে বিক্রয় করেছে রাশিয়া। খবর নিউজউইকের।

ব্লুমবার্গ বলেছে, সৌদি আরবকে রুশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার প্রস্তাব দিয়ে দৃশ্যত যুক্তরাষ্ট্রকে উপহাস করেছেন পুতিন। তিনি যতটা না রিয়াদকে বার্তা দিতে চেয়েছেন, তার চেয়ে বেশি বার্তা দিতে চেয়েছেন রিয়াদের ঘনিষ্ঠ মিত্র ওয়াশিংটনকে। কেননা সৌদি আরবের সমরাস্ত্র ক্রয়ের বড় উৎস যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও বরাবরই দেশটিকে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি সামরিক সরঞ্জাম কেনার জন্য উৎসাহিত করে থাকেন।

পুতিনের উপহাস অবশ্য শতভাগ যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিই ছিল- এমন নয়। কেননা যে সংবাদ সম্মেলন থেকে পুতিন রিয়াদকে রুশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার প্রস্তাব দেন সেখানেই তার পাশে ছিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট রুহানি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×