বরিসকে ১২ দিনের আলটিমেটাম

  যুগান্তর ডেস্ক ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বরিসকে ১২ দিনের আলটিমেটাম
ছবি: এএফপি

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) কাছে ব্রেক্সিট পরিকল্পনা উপস্থাপনের জন্য ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে ১২ দিন সময় বেঁধে দিয়েছেন ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী অ্যান্তি রিন্নে। পর্যায়ক্রমানুসারে বর্তমানে ইইউর প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছে ফিনল্যান্ড।

অ্যান্তি রিন্নে জানান, তিনি এবং ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ একমত হয়েছেন যে, সেপ্টেম্বরের শেষ নাগাদ যুক্তরাজ্যকে তাদের প্রস্তাব লিখিত আকারে উপস্থাপন করতে হবে। সময় অতিক্রান্ত হলে ব্রেক্সিট রদ করার হুশিয়ারি দিয়েছে ইইউ।

তবে ডাউনিং স্ট্রিট সূত্র জানিয়েছে, দরকষাকষি অব্যাহত রেখে যথাসময়ে পরিকল্পনা উপস্থাপনে কাজ করছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। খবর বিবিসির।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে সমঝোতায় পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়ে মে মাসে পদত্যাগের ঘোষণা দেন যুক্তরাজ্যের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে। তিনি সরে দাঁড়ানোর পর প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন কট্টর ব্রেক্সিটপন্থী বরিস জনসন। নির্বাচিত হওয়ার পর ৩১ অক্টোবর নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ব্রেক্সিট কার্যকরের ঘোষণা দেন তিনি।

এই সময়ের মধ্যে ব্রেক্সিট চুক্তিতে একমত হতে না পারলেও ব্রেক্সিট বাস্তবায়নে অনড় তিনি। ১৭ অক্টোবর ইইউ নেতাদের গুরুত্বপূর্ণ সম্মেলনে চুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বরিস।

ব্রিটিশ সরকার জানিয়েছে, জুলাইয়ে বরিস ১০নং ডাউনিং স্ট্রিটে আসার পর ইইউর সঙ্গে আলোচনায় অগ্রগতি হয়েছে। বেশ কয়েকটি বিকল্প প্রস্তাব দেয়া হয়েছে বলে জানালেও তিনি বারবার বলে আসছেন এসব পরিকল্পনা প্রকাশ করতে চান না। বরিস বলেছেন, প্রকাশ্যে দরকষাকষি করতে চান না তিনি।

তবে যুক্তরাজ্য লিখিত আকারে কোনো প্রস্তাব দিচ্ছে না বলে সমালোচনা করে আসছে ইইউ। সোমবার বরিসের সঙ্গে এক বৈঠকে বসেন ইইউ কমিশনের প্রেসিডেন্ট জ্যঁ ক্লদ জাঙ্কার। তিনি ওই বৈঠককে গঠনমূলক আখ্যা দেন। তবে জাঙ্কার বলেন, যতক্ষণ প্রস্তাব উপস্থাপন করা না হচ্ছে, ততক্ষণ আমি আপনাদের চোখের দিকে সরাসরি তাকিয়ে বলতে পারব না যে সত্যিকার কোনো অগ্রগতি অর্জিত হয়েছে।

বুধবার ম্যাক্রোঁর সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ইইউর প্রেসিডেন্ট অ্যান্তি রিন্নে বলেন, ‘আমরা দুজনেই সম্মত হয়েছি যে যুক্তরাজ্যকে টিকে থাকতে হলে এখন বরিসকেই লিখিত আকারে তার নিজের প্রস্তাব উপস্থাপন করতে হবে। সেপ্টেম্বরের শেষ নাগাদ পর্যন্ত যদি কোনো প্রস্তাব না পাই, তাহলে এটি শেষ হয়ে যাবে।’

নতুন এ সময়সীমা নিয়ে ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী কয়েক দিনের মধ্যে ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক ও বরিস জনসনের সঙ্গে আলোচনা করতে চান। তবে তার এ অবস্থানের সঙ্গে অন্য ইউরোপীয় দেশগুলো এখনও একমত হয়নি।

বরিসের ‘যে কোন মুল্যে’ ব্রেক্সিট বাস্তবায়ন পরিকল্পনায় এমপিরা বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেন আশঙ্কায় পার্লামেন্ট স্থগিত করেন তিনি। আগামী ১৪ অক্টোবর পর্যন্ত মূলতবি থাকছে পার্লামেন্টের অধিবেশন।

পার্লামেন্ট মূলতবির এ সিদ্ধান্তকে বেআইনি বলে ঘোষণা দিয়েছে স্কটল্যান্ডের সর্বোচ্চ আদালত। বিচারকরা বলেছেন, ব্রেক্সিট নিয়ে সরকারের জবাবদিহিতা এড়াতে প্রধানমন্ত্রী পার্লামেন্টকে প্রতিহতের চেষ্টা করেছেন। লন্ডনের একটি আদালত বরিসের পক্ষে রায় দিয়েছে।

পার্লামেন্ট স্থগিতের সিদ্ধান্ত এখন সুপ্রিমকোর্টে গড়িয়েছে। মঙ্গলবার থেকে এ নিয়ে সেখানে শুনানি শুরু হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ব্রেক্সিট ইস্যু

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×