মোদির পর এবার অমিতের দরজায় মমতা

  যুগান্তর ডেস্ক ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পর এবার আরেক শত্রু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের দরজায় ধর্না দিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বৃহস্পতিবার দিল্লির নর্থ ব্লকে গিয়ে অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেন মমতা। আলোচনা শেষে বেরিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘এনআরসি নিয়ে কথা হয়েছে, চিঠিও দিয়েছি। বলেছি, পশ্চিমবঙ্গে এনআরসির দরকার নেই। আসাম নিয়েও আপত্তি আছে। সেখানে বহু বাংলা ও হিন্দিভাষী মানুষের নাম বাদ গেছে। তালিকা থেকে বাদ পড়েছে বহু হিন্দু, মুসলিম ও গোর্খার নাম। এটা ঠিক নয়। যারা প্রকৃত ভারতীয় তাদের নাম যেন তালিকায় থাকে।’ তবে কলকতার সাবেক পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে নিয়ে প্রশ্নের উত্তরে ক্ষেপে ওঠেন তিনি। ওই প্রশ্নকে ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা’ বলে ব্যাখ্যা করেন। কিন্তু বিরোধীদের অভিযোগ, একনিষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা রাজীব কুমারকে সিবিআই জেরা থেকে বাঁচাতেই দিল্লি গিয়ে মোদি-অমিতের দরজা নাড়ছেন মমতা। চিটফান্ড কাণ্ডে জড়িত রাজীব কুমারকে গ্রেফতারে এদিনও কলকাতার পাঁচ স্থানে তল্লাশি চালিয়েছে সিবিআই। টাইমস অব ইন্ডয়া।

বুধবার ঝাড়খণ্ডে ছিলেন অমিত শাহ। তার মন্ত্রণালয়ে মুখ্যমন্ত্রীর তরফে সময় চাওয়া হয়। সেই মতো এদিন দুপুর দেড়টা নাগাদ সময় দেয়া হয় মমতা ব্যানার্জিকে। দু’জনের মধ্যে প্রায় আধ ঘণ্টা কথাবার্তা হয়। বৈঠক শেষে মমতা বলেন, ‘আমি অমিত শাহকে একটি চিঠি দিয়েছি। তাকে বলেছি, এনআরসি থেকে বাদ পড়া ১৯ লাখ মানুষের মধ্যে অনেকেই হিন্দিভাষী, বাংলাভাষী এবং স্থানীয় অসমিয়া রয়েছেন। অনেক প্রকৃত ভোটারকে বাদ দেয়া হয়েছে তালিকা থেকে। এদিকে নজর দেয়া উচিত বলে অনুরোধ করে আমি একটি চিঠি জমা দিয়েছি।’ সম্প্রতি এনআরসি থেকে ১৯ লাখ মানুষের নাম বাদ গেছে আসামে।

আগের দিন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা। পর দিনই সরকারের দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক মুখ্যমন্ত্রীর। কী নিয়ে আলোচনা হতে পারে দু’জনের বৈঠকে? এ নিয়ে রাজ্য তো বটেই, সরগরম ছিল দিল্লির রাজনীতিও। কারণ এই মুহূর্তে রাজীব কুমারকে হন্যে হয়ে খুঁজছে সিবিআই। আর এই সময়েই দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক। মমতা ব্যানার্জির এই সময় নির্বাচন নিয়েই প্রশ্ন তুলছে বিরোধীরা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×