ছোট খবর

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মালদ্বীপে গ্রেফতার ৪

মালদ্বীপে প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিনের সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় অন্তত ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দেশটির আদালত জরুরি অবস্থার সময়সীমা বৃদ্ধির সিদ্ধান্তকে বৈধ ঘোষণা দেয়ার পর গ্রেফতারের এ ঘটনা ঘটল। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে দু’জন ইয়ামিনের দলের সাবেক সদস্য। পুলিশ দাবি করেছে, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রতিবাদ কর্মসূচি বন্ধ করার নির্দেশ না মানায় তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিরোধী দলের সূত্রে এ খবর জানিয়েছে রয়টার্স।

মালদ্বীপের পুলিশ রাত ১০টার পর প্রতিবাদ কর্মসূচির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। কিন্তু সরকারবিরোধীরা তা মানেনি। ওই সময়সীমার পরও তারা প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনের বিরুদ্ধে দাবি মেনে নেয়ার জন্য আন্দোলন চালিয়ে যেতে থাকে। বিরোধীদের দাবি, ৯ জন বিরোধীদলীয় নেতার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ খারিজ করে দেয়া সুপ্রিমকোর্টের আদেশ কার্যকর করা হোক। জেলে থাকা রাজবন্দি ও অন্য আটক কর্মকর্তাদের মুক্তির দাবি জানাচ্ছেন তারা।

রাখাইনে আটক ৬

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিত্তেতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে কমপক্ষে ৬ জনকে আটক করেছে দেশটির পুলিশ। আটককৃতদের সবাই জাতিগতভাবে রাখাইন বৌদ্ধ। স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি এ খবর জানিয়েছে।

সিত্তে নগর পুলিশ স্টেশনের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, মহানগর আদালত আটককৃতদের দুই সপ্তাহের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে। আটককৃতদের মধ্যে একজন মিয়ানমারের বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান ন্যাশনাল কাউন্সিল-এএনসির সদস্য। এএনসি মিয়ানমারের জাতিগত সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোর মাতৃ সংগঠন ইউনাইটেড ন্যাশনালিটিজ ফেডারেল কাউন্সিলের অন্যতম সদস্য। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, আটককৃতদের মধ্যে এএনসির কেন্দ্রীয় কমিটির একজন সদস্য রয়েছেন।

এই বেতনে চলে না

মাদক নির্মূল ইস্যুতে বিশ্বজুড়ে ব্যাপক সমালোচিত ও বিতর্কিত ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে। আগ্রাসী মনোভাবের এই নেতা কাজ ও কথাবার্তায় সব ক্ষেত্রে খোলামেলা। এবার সরাসরি নিজের বেতন বাড়ানোর দাবি জানালেন তিনি। আর কারণ হিসেবে দাবি করেছেন তার দু’জন স্ত্রী থাকাকে। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতের্তে রাখঢাক না করেই ওই দাবি জানান। দুতের্তে জানান, তার বেতন একেবারেই চলার মতো নয়। বেতনে খাবার জন্য আলাদা টাকাও দেয়া হয় না। তিনি বলেন, ‘কত বেতন পাই আপনারা সবই তা জানেন। দু’জন স্ত্রী আমার। তাই মাত্র ৩,৮৬০ ডলার আয়ে আর চলে না। আমার মাসিক দশ লাখ ফিলিপিনো পেসো পাওয়া উচিত।’ আরটি জানায়, প্রথম স্ত্রীর জন্য বেশ কিছুটা চাপেই রয়েছেন প্রেসিডেন্ট দুতের্তে। ১৯৯৮ সালে খোরপোশের দাবি জানান তার প্রথম স্ত্রী এলিজাবেথ জিমারম্যান। তাকে সেই টাকা দিতেই বেতনের অনেকটা খরচ হয়ে ?যায়। বিষয়টি চেপে রাখতে পারেননি প্রেসিডেন্ট দুতের্তে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×