তেরো বছরের কিশোরের ঘাড়ে জাপানের মসনদ

  যুগান্তর ডেস্ক ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চাচার পরে ভাতিজা। চলতি বছরেই জাপানের সম্রাট হয়েছেন প্রিন্স নারুহিতো। এরপরে সম্রাট হবে কনিষ্ঠতম রাজকুমার হিসাহিতো। গত আগস্টে সে গিয়েছিল ভুটান সফরে।

ভাবী সম্রাটকে আন্তর্জাতিক মহলে পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্যই ওই সফর। জাপানের রাজতন্ত্রের ভবিষ্যৎ এখন নির্ভর করছে ১৩ বছরের কিশোর হিসাহিতোর ওপরে।

সে এখন সম্রাট হওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। জাপানি ঐতিহ্য মেনে ‘হাকামা’ কিমানো পরা অভ্যাস করছে। শিখছে তীর ছুড়ে লক্ষ্যভেদ করা। শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ খবর প্রকাশ করেছে রয়টার্স।

নারুহিতোর বয়স এখন ৫৯। তার বাবা সম্রাট আকিহিতো সিংহাসন ত্যাগ করার পর গত ১ মে তিনি সম্রাট হন। আগামী ২২ অক্টোবর তিনি আন্তর্জাতিক মহলের কাছে সম্রাট হওয়ার কথা ঘোষণা করবেন।

জাপানের প্রথা অনুযায়ী কেবল রাজপরিবারের পুরুষ সদস্যরাই সিংহাসনে বসার অধিকারী। সেদেশের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে চান না এই নিয়ম বদলে যাক।

পুরনো প্রথা অনুযায়ী নারুহিতোর ভাই আকিশিনোর ছেলে হিসাহিতো জাপানের সিংহাসনের উত্তরাধিকারী। সেদেশের বিখ্যাত সংবাদপত্র ‘আসাহি’তেও সম্প্রতি লেখা হয়েছে, রাজবংশের প্রথা অনুযায়ী, প্রিন্স হিসাহিতোই আগামী দিনে সম্রাট হবে।

১৯৬৫ সালের পর থেকে জাপানের রাজবংশে কোনো ছেলে জন্মায়নি। রক্ষণশীলরা রীতিমতো চিন্তায় পড়েছিলেন, কীভাবে দেশের প্রাচীন প্রথা রক্ষা করা যাবে। নারুহিতোর বিয়ে হওয়ার আট বছর পর তার স্ত্রী কন্যাসন্তানের জন্ম দেন।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত