১৬ মাস পর খুলল সেই থাই গুহা

  যুগান্তর ডেস্ক ০৩ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

১৬ মাস পর খুলল সেই থাই গুহা

দীর্ঘ ১৬ মাস বন্ধ থাকার পর আবারও পর্যটকদের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে থাইল্যান্ডের থাম লুয়াং গুহা। এটি বিশ্বব্যাপী আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আসে ২০১৮ সালের ২৩ জুনের পর থেকে।

এদিন ওই গুহায় দেশটির ১২ জন কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচ নিখোঁজ হন। পরে শ্বাসরুদ্ধকর অভিযানের মধ্যে দিয়ে তাদের সবাইকে সফলভাবে উদ্ধার করা হয়।

এরপর থেকে পর্যটকদের জন্য বন্ধ ছিল গুহাটি। শুক্রবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে গুহার মুখ খুলে দেয়া হয়। প্রথম দিনই পর্যটকদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

কর্মকর্তাদের বরাতে এএফপি জানায়, প্রথমদিন প্রায় দুই হাজার পর্যটক গুহায় প্রবেশ করেন। এ জন্য ঘণ্টাব্যাপী লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষাও করেন তারা। বিগত প্রায় ১৬ মাসে ১০ লাখেরও বেশি পর্যটক গুহাটিতে বেড়াতে আসেন।

তবে তাদের কাউকেই গুহার ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়নি কর্তৃপক্ষ। এবার খুলে দেয়ার পর প্রতিবার একত্রে ২০ জন পর্যটক গুহার প্রথম চেম্বারটিতে যেতে পারছেন। ২০১৮ সালে গুহাটিতে বেড়াতে যায় দ্য ওয়াইল্ড বোয়ার্স নামের স্কুলশিক্ষার্থীদের একটি ফুটবল দল।

এ সময় তাদের সঙ্গে ফুটবল কোচও ছিলেন। কিন্তু প্রচুর বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট বন্যায় গুহার ভেতরে পানি ঢুকে গেলে তারা ভেতরে আটকা পড়ে। পরে ১৭ দিনের মাথায় প্রায় ৯০ সদস্যবিশিষ্ট এক ডুবুরি দল তাদের উদ্ধার করে।

উদ্ধারকর্মীদের মাঝে থাইল্যান্ড ছাড়াও বিদেশি কয়েকটি রাষ্ট্রের সদস্য ছিলেন। তাদের মধ্যে থেকে থাই নেভির সাবেক সদস্য সামান গুনান নিহত হন। শ্বাসরুদ্ধকর এ গুহা অভিযান নিয়ে অনেকেই বই লিখেছেন। গত মাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় বুসান আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভালে এ অভিযান নিয়ে নির্মিত ছবি প্রদর্শিত হয়।

ঘটনাপ্রবাহ : থাইল্যান্ডে গুহায় আটকা পড়েছে ফুটবল টিম

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×