বলসোনারোর হাতে অদিবাসীদের রক্ত: পরিবেশকর্মীদের প্রতিক্রিয়া

  যুগান্তর ডেস্ক ০৫ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি: সংগৃহীত

ব্রাজিলের আমাজন বনাঞ্চলে আদিবাসী এক তরুণ ভূমিরক্ষককে গুলি করে হত্যার তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন পরিবেশ কর্মীরা। একই সঙ্গে তারা অবৈধ কাঠ পাচারকারীদের রুখে দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

শুক্রবার মারানাও রাজ্যের আরারিবোইয়া সংরক্ষিত বনাঞ্চলে পাউলো পাউলিনো গুয়াজাজারা ও তার এক সঙ্গী তাইনাকি তেনেতেহার ওপর গুলি চালায় কাঠ চোরেরা। এতে পাউলো গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত এবং তাইনাকি আহত হন।

তারা দু’জনই কাঠ পাচারকারীদের প্রতিরোধে গঠিত ‘গার্ডিয়ান অব দ্য ফরেস্টের’ সদস্য ছিলেন।

বনরক্ষকদের ওপর হামলার এ ঘটনা জানার পর বিচারমন্ত্রী সার্জিও মোরো বলেন, পুলিশ এ হত্যাকাণ্ডের তদন্ত করবে। সাবেক এ ফেডারেল বিচারক বলেন, এ ধরনের বর্বর হত্যাকাণ্ডের দোষীদের আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে যা প্রয়োজন তাই করব আমরা।

এক বিবৃতিতে ব্রাজিলের নয় লাখ আদিবাসীর প্রতিনিধিত্বকারী সংস্থা এপিআইবি বলেছে, বলসোনারো সরকারের হাতে আদিবাসীদের রক্ত লেগে আছে। আদিবাসী অঞ্চলে সহিংসতা বৃদ্ধি পাওয়া বিষয়টি তার ঘৃণাপূর্ণ বক্তব্য ও আমাদের লোকদের বিরুদ্ধে তার নেয়া পদক্ষেপের ফল।

আদিবাসীদের অধিকার রক্ষায় কাজ করা সারভাইভাল ইন্টারন্যাশনাল জানায়, পাউলোর ঘাড়ে গুলি লাগে। তাইনাকির পিঠে গুলি লাগলেও সে পালাতে সক্ষম হয়। গার্ডিয়ান অব দ্য ফরেস্টের শতাধিক সদস্য।

‘বনরক্ষকদের ওপর হামলা ও হুমকির ঘটনা বছরের পর বছর ধরে চলছে’, এএফপিকে জানিয়েছেন সারভাইভাল ইন্টারন্যাশনালের গবেষক সারাহ শেনকার।

তিনি অভিযোগ করেন, ‘সরকার আদিবাসীদের জমি রক্ষায় নীরব। বরং, তাদের বর্ণবাদী মন্তব্য এবং গণহত্যা, আদিবাসীবিরোধী প্রস্তাব কাঠ পাচারকারীদের এক ধরনের সবুজ সংকেত দেয়।’

পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রিনপিস জানায়, ‘ভুক্তভোগী এ দুই ব্যক্তি এমন একটি রাষ্ট্রের সদস্য, যে দেশ তাদেরকে সংবিধান নির্ধারিত মর্যাদা দিতেও অস্বীকৃতি জানায়।’ ‘এখন এই প্রাতিষ্ঠানিক গণহত্যা বন্ধ করার সময় এসেছে। আমাদের মানুষের রক্তপাতকে অনুমোদন দেয়া বন্ধ করুন!’,

এক টুইটার বার্তায় এমনটাই জানিয়েছেন ব্রাজিলের আদিবাসী সংস্থার সমন্বয়কারী সোনিয়া গুয়াজাজারা।

ঘটনাপ্রবাহ : বৈশ্বিক জলবায়ু সংকট

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত