ক্ষমতা না-ও ছাড়তে পারেন মাহাথির

  যুগান্তর ডেস্ক ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

২০২০ সালের পরেই ক্ষমতায় থাকতে পারেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ। শনিবার কাতারের রাজধানী দোহায় দোহা ফোরামে যোগ দিয়ে তিনি এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন। তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি কি ২০২০ সালে পদত্যাগ করবেন? জবাবে মাহাথির বলেন, পদত্যাগ করার আগে পূর্বের সরকারের সৃষ্ট সমস্যাগুলোর সমাধান করতে চান তিনি। এ সময় তিনি বলেন, তার উত্তরসূরি অর্থাৎ তার কাছ থেকে কে প্রধানমন্ত্রিত্ব নেবেন সে বিষয়ে কোনো নিশ্চয়তা দিতে পারেন না। রয়টার্স।

১০ ডিসেম্বর পূর্ব নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন মাহাথির। বলেন, প্রধানমন্ত্রিত্বের বাকি অর্ধেক সময় তিনি হস্তান্তর করবেন রাজনৈতিক জোটের আনোয়ার ইব্রাহিমের হাতে। আনোয়ারের বিরুদ্ধে নতুন করে সমকামীতার অভিযোগ ওঠা সত্ত্বেও তিনি তার কাছে ক্ষমতা দেয়ার কথা বলেন। তিনি আরও প্রতিশ্রুতি দেন যে, ২০২০ সালের নভেম্বরে মালেয়েশিয়ায় অনুষ্ঠেয় এশিয়া প্যাসিফিক

ইকোনমিক কো-অপারেশনের সম্মেলনের পরে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে পারেন।

২০১৮ সালে জাতীয় নির্বাচনের মাধ্যমে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন মাহাথির মোহাম্মদ। এ সময়ে তিনি জোট গঠন করেন আনোয়ার ইব্রাহিমের সঙ্গে। তাদের মধ্যে বোঝাপড়া হয় ক্ষমতার অর্ধেক সময় প্রধানমন্ত্রী থাকবেন মাহাথির। বাকি অর্ধেক আনোয়ার ইব্রাহিম।

ইরানে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন : সম্মেলনে ইরান ইস্যুতেও সরব হন মাহাথির। বরাবরের মত এদিনও জোরালো কণ্ঠে বলেন, ইরানে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞাগুলো জাতিসংঘ সনদ ও আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন। আরও বলেন, ‘ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের একতরফা নিষেধাজ্ঞার পুনর্বহালকে মালয়েশিয়া সমর্থন করে না। এ নিষেধাজ্ঞাগুলো স্পষ্টতই জাতিসংঘ সনদ ও আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন। জাতিসংঘই শুধু তার সনদের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে (কারও ওপর) নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে, বলেছেন ৯৪ বছর বয়সী এ প্রধানমন্ত্রী। মার্কিন এ নিষেধাজ্ঞার ফলে মালয়েশিয়া এবং অন্যান্য দেশ ‘বড় একটি বাজার হারিয়েছে’ বলেও মন্তব্য করেন মাহাথির। সম্মেলনে কাতারের আমীর তামিম বিন হামাদ আল-থানিও উপস্থিত ছিলেন।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত