ট্রাম্পের ঐতিহাসিক সফর: তিনদিনের জন্য পুরো হোটেল বুক
jugantor
ট্রাম্পের ঐতিহাসিক সফর: তিনদিনের জন্য পুরো হোটেল বুক
থাকবেন দিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলের চাণক্য স্যুটে। একরাতের ভাড়া প্রায় ৮ লাখ রুপি * ১৫ তলার কক্ষটি বুলেটপ্র“ফ : জর্জ ডব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন, ওবামাও এখানেই ছিলেন * তিন স্তরের নিরাপত্তা প্রত্যেক তলায় সাদা পোশাকে থাকবে পুলিশ; হোটেল লবি, পার্কিং এলাকা, সুইমিং পুলে কড়া নিরাপত্তা; পাশের তাজ হোটেলের কয়েকটি কক্ষ সিলগালা * ৫ দিন আগেই হোটেলে মার্কিন সিক্রেট এজেন্টের ৩০ সদস্য * নাইটভিশন প্রযুক্তিযুক্ত দুই শতাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন * প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে কোড ধরে ডাকবেন ভারতীয় গোয়েন্দারা

  সালমান রিয়াজ  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ট্রাম্পপ্রীতিতে কোনো খামতি রাখতে চান না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাই তার থাকার বন্দোবস্তসহ সব খুঁটিনাটি বিষয়ে রয়েছে সরকারের কড়া নজর।

ট্রাম্পপ্রীতিতে কোনো খামতি রাখতে চান না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাই তার থাকার বন্দোবস্তসহ সব খুঁটিনাটি বিষয়ে রয়েছে সরকারের কড়া নজর।

৩ দিনের জন্য পুরো একটি পাঁচ তারকা হোটেলের ৪৩৮ কক্ষ বুক করা হয়েছে। দিল্লির হোটেল আইটিসি মৌর্যের অন্দরসজ্জায়ও চোখ ধাঁধানো ছোঁয়া।

হোটেলটির ১৫তলায় চাণক্য স্যুটে থাকবেন ট্রাম্প ও ফার্স্টলেডি মেলানিয়া। এ দম্পতির জন্য বরাদ্দ কক্ষটি বুলেটপ্রুপ। ৫ দিন আগেই হোটেল উঠে পড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সিক্রেট এজেন্টের ৩০ সদস্য। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন ভারতের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

পুরো হোটেলটি তিনস্তরের নিরাপত্তায় মোড়ানো হয়েছে। স্থাপন করা হয়েছে নাইটভিশন প্রযুক্তির দুই শতাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা। ট্রাম্প ও মেলানিয়ার বিমান আজ দুপুর ১২টা নাগাদ আহমেদাবাদ এয়ারপোর্টে অবতরণ করবে। তাদের স্বাগত জানাবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সেখানে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ নামের একটি প্রোগ্রামে অংশ নেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এরপর তাদের পরবর্তী গন্তব্য দিল্লির আগ্রা। সূর্যাস্তের স্নান আলোয় ভালোবাসার স্থাপত্য তাজমহল দেখবেন তিনি। সূত্রের খবর অনুযায়ী, আগ্রাতে এসে দিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলের চাণক্য স্যুটে রাত্রিবাস করবেন ট্রাম্প দম্পতি।

এ বিষয়ে হোটেল কর্তৃপক্ষ কোনো বক্তব্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছে ইন্ডিয়া টুডে।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের আগমনে ভারতীয় ঐতিহ্য মেনে হোটেলের লবিতে আঁকা হয়েছে আলপনা। শাড়ি পরে তাকে স্বাগত জানাবেন নারীরা। লবি সাজাতে ব্যবহার করা হয়েটে হাতির মূর্তি বা ছবি, যা রিপাবলিকানদের মাসকটও বটে। হোটেলের ১৫তলায় ট্রাম্পের জন্য প্রস্তুত সাড়ে চার হাজার বর্গফুটের চাণক্য স্যুট। একে ‘প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুট’ বলা হয়।

যার এক রাতের ভাড়া আট লাখ রুপি। এ স্যুটে রয়েছে দুটি বেডরুম, নিজস্ব রিসেপশন রুম, বিলাসবহুল লিভিং রুম, সিল্ক প্যানেলের দেয়াল এবং মেঝেতে কালো কাঠ। ট্রাম্প দম্পতির ছবির কোলাজ সাজানো থাকবে চাণক্য স্যুইটের দেয়ালে।

এছাড়াও রয়েছে ১২ আসনের ডাইনিং রুম, অত্যাধুনিক স্পা ও জিমনেশিয়াম। ট্রাম্প দম্পতির জন্য থাকবে আলাদা প্রবেশপথ ও লিফট।

ভারত সফরে প্রেসিডেন্টের হোটেল কক্ষের নিরাপত্তায় ৫ দিন আগেই দিল্লিতে পৌঁছান মার্কিন সিক্রেট সার্ভিসের ৩০ সদস্য। দিল্লির পুলিশের নিরাপত্তা বিভাগ মার্কিন সিক্রেট সার্ভিসের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করবে।

ট্রাম্পের ভারত সফর শুরুর আগে রোববার আইটিসি মৌর্য হোটেলের নিচতলায় ভারতীয় গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন মার্কিন সিক্রেট এজেন্টরা। ভারতের গোয়েন্দারা ট্রাম্পকে কোড নামে ডাকবেন। পুরো হোটেলটি তিন স্তরের কড়া নিরাপত্তায় মোড়া থাকবে।

আইটিসি মৌর্যের প্রতি তলায় সাদা পোশাকের পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। হোটেলের লবি, পার্কিং এলাকা, সুইমিংপুলে কড়া নজরদারিতে থাকবেন জেলা পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন ও বারাক ওবামা তাদের ভারত সফরেও একই হোটেলের একই কক্ষে ছিলেন। এর আগে দালাই লামা, টনি ব্লেয়ার, ভ্লাদিমির পুতিন, বাদশাহ আবদুল্লাহ এবং ব্র“নাইয়ের সুলতান এ স্যুটে থেকেছেন।

খাবার মেনু : মেলানিয়া ট্রাম্প বাদাম খাবেন না। বাদামে তার অ্যালার্জি। ট্রাম্প সি-ফুড খুবই পছন্দ করেন। ইভাংকা ট্রাম্প কঠোর ডায়েট শুরু করেছেন। তিনি বেছে বেছেই খাবেন। দিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলের স্টাফদের এমনই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যদিও ট্রাম্প বা মেলানিয়া যাই খাবেন, সবই রান্না করবেন তার নিজের পাচকরা।

মাত্র ৩৬ ঘণ্টার এ সফরে শত ব্যস্ততার মধ্যে হোটেলে অবস্থানের সময় খুব কমই পাবেন ট্রাম্প। তারপরও সেখানকার বিখ্যাত বুখারা রেস্তোরাঁয় খাবেন তিনি। প্রাচীন এ রেস্তোরাঁটি ১৯৭৭ সালে প্রতিষ্ঠিত। ট্রাম্পের পছন্দ অনুযায়ী খাবারের ব্যবস্থাও করছে ভারত।

মেন্যুতে রাখা হচ্ছে তার পছন্দের সব ডিশ! ডায়েট কোক, ম্যাক ডোনাল্ডসের খাবার, মিটলোফ (কুচি কুচি করা মাংস) খেতে খুবই পছন্দ করেন। হোয়াইট হাউস থেকে আসা বন্ধুর জন্য এসব খাবার প্রস্তুত করছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

তার সফরে খাবারের মেন্যুতে আরও কী কী থাকতে পারে তার একটা তালিকা দেয়া হল- চকলেট শেক ভীষণ পছন্দ ট্রাম্পের। ফিলেট টু ফিশ স্যান্ডউইচ খেতে ভালোবাসেন তিনি। ভালোবাসেন বেকন অ্যান্ড এগ খেতে। সঙ্গে সি-ফুড।

পছন্দের তালিকায় রয়েছে ম্যাক ডনাল্ড বিগ ম্যাক, পিৎজা, কেএফসি চিকেন ফ্রায়েড বাকেট এবং আলুর চিপস। শেষ পাতে চকলেট কেক বা চেরি ভ্যানিলা আইসক্রিম পছন্দ করেন তিনি।

ট্রাম্পের ঐতিহাসিক সফর: তিনদিনের জন্য পুরো হোটেল বুক

থাকবেন দিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলের চাণক্য স্যুটে। একরাতের ভাড়া প্রায় ৮ লাখ রুপি * ১৫ তলার কক্ষটি বুলেটপ্র“ফ : জর্জ ডব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন, ওবামাও এখানেই ছিলেন * তিন স্তরের নিরাপত্তা প্রত্যেক তলায় সাদা পোশাকে থাকবে পুলিশ; হোটেল লবি, পার্কিং এলাকা, সুইমিং পুলে কড়া নিরাপত্তা; পাশের তাজ হোটেলের কয়েকটি কক্ষ সিলগালা * ৫ দিন আগেই হোটেলে মার্কিন সিক্রেট এজেন্টের ৩০ সদস্য * নাইটভিশন প্রযুক্তিযুক্ত দুই শতাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন * প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে কোড ধরে ডাকবেন ভারতীয় গোয়েন্দারা
 সালমান রিয়াজ 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ট্রাম্পপ্রীতিতে কোনো খামতি রাখতে চান না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাই তার থাকার বন্দোবস্তসহ সব খুঁটিনাটি বিষয়ে রয়েছে সরকারের কড়া নজর।
ছবি: সংগৃহীত

ট্রাম্পপ্রীতিতে কোনো খামতি রাখতে চান না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাই তার থাকার বন্দোবস্তসহ সব খুঁটিনাটি বিষয়ে রয়েছে সরকারের কড়া নজর।

৩ দিনের জন্য পুরো একটি পাঁচ তারকা হোটেলের ৪৩৮ কক্ষ বুক করা হয়েছে। দিল্লির হোটেল আইটিসি মৌর্যের অন্দরসজ্জায়ও চোখ ধাঁধানো ছোঁয়া।

হোটেলটির ১৫তলায় চাণক্য স্যুটে থাকবেন ট্রাম্প ও ফার্স্টলেডি মেলানিয়া। এ দম্পতির জন্য বরাদ্দ কক্ষটি বুলেটপ্রুপ। ৫ দিন আগেই হোটেল উঠে পড়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সিক্রেট এজেন্টের ৩০ সদস্য। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন ভারতের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

পুরো হোটেলটি তিনস্তরের নিরাপত্তায় মোড়ানো হয়েছে। স্থাপন করা হয়েছে নাইটভিশন প্রযুক্তির দুই শতাধিক সিসিটিভি ক্যামেরা। ট্রাম্প ও মেলানিয়ার বিমান আজ দুপুর ১২টা নাগাদ আহমেদাবাদ এয়ারপোর্টে অবতরণ করবে। তাদের স্বাগত জানাবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সেখানে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ নামের একটি প্রোগ্রামে অংশ নেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এরপর তাদের পরবর্তী গন্তব্য দিল্লির আগ্রা। সূর্যাস্তের স্নান আলোয় ভালোবাসার স্থাপত্য তাজমহল দেখবেন তিনি। সূত্রের খবর অনুযায়ী, আগ্রাতে এসে দিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলের চাণক্য স্যুটে রাত্রিবাস করবেন ট্রাম্প দম্পতি।

এ বিষয়ে হোটেল কর্তৃপক্ষ কোনো বক্তব্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেছে বলে জানিয়েছে ইন্ডিয়া টুডে।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের আগমনে ভারতীয় ঐতিহ্য মেনে হোটেলের লবিতে আঁকা হয়েছে আলপনা। শাড়ি পরে তাকে স্বাগত জানাবেন নারীরা। লবি সাজাতে ব্যবহার করা হয়েটে হাতির মূর্তি বা ছবি, যা রিপাবলিকানদের মাসকটও বটে। হোটেলের ১৫তলায় ট্রাম্পের জন্য প্রস্তুত সাড়ে চার হাজার বর্গফুটের চাণক্য স্যুট। একে ‘প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুট’ বলা হয়।

যার এক রাতের ভাড়া আট লাখ রুপি। এ স্যুটে রয়েছে দুটি বেডরুম, নিজস্ব রিসেপশন রুম, বিলাসবহুল লিভিং রুম, সিল্ক প্যানেলের দেয়াল এবং মেঝেতে কালো কাঠ। ট্রাম্প দম্পতির ছবির কোলাজ সাজানো থাকবে চাণক্য স্যুইটের দেয়ালে।

এছাড়াও রয়েছে ১২ আসনের ডাইনিং রুম, অত্যাধুনিক স্পা ও জিমনেশিয়াম। ট্রাম্প দম্পতির জন্য থাকবে আলাদা প্রবেশপথ ও লিফট।

ভারত সফরে প্রেসিডেন্টের হোটেল কক্ষের নিরাপত্তায় ৫ দিন আগেই দিল্লিতে পৌঁছান মার্কিন সিক্রেট সার্ভিসের ৩০ সদস্য। দিল্লির পুলিশের নিরাপত্তা বিভাগ মার্কিন সিক্রেট সার্ভিসের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করবে।

ট্রাম্পের ভারত সফর শুরুর আগে রোববার আইটিসি মৌর্য হোটেলের নিচতলায় ভারতীয় গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন মার্কিন সিক্রেট এজেন্টরা। ভারতের গোয়েন্দারা ট্রাম্পকে কোড নামে ডাকবেন। পুরো হোটেলটি তিন স্তরের কড়া নিরাপত্তায় মোড়া থাকবে।

আইটিসি মৌর্যের প্রতি তলায় সাদা পোশাকের পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। হোটেলের লবি, পার্কিং এলাকা, সুইমিংপুলে কড়া নজরদারিতে থাকবেন জেলা পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন ও বারাক ওবামা তাদের ভারত সফরেও একই হোটেলের একই কক্ষে ছিলেন। এর আগে দালাই লামা, টনি ব্লেয়ার, ভ্লাদিমির পুতিন, বাদশাহ আবদুল্লাহ এবং ব্র“নাইয়ের সুলতান এ স্যুটে থেকেছেন।

খাবার মেনু : মেলানিয়া ট্রাম্প বাদাম খাবেন না। বাদামে তার অ্যালার্জি। ট্রাম্প সি-ফুড খুবই পছন্দ করেন। ইভাংকা ট্রাম্প কঠোর ডায়েট শুরু করেছেন। তিনি বেছে বেছেই খাবেন। দিল্লির আইটিসি মৌর্য হোটেলের স্টাফদের এমনই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। যদিও ট্রাম্প বা মেলানিয়া যাই খাবেন, সবই রান্না করবেন তার নিজের পাচকরা।

মাত্র ৩৬ ঘণ্টার এ সফরে শত ব্যস্ততার মধ্যে হোটেলে অবস্থানের সময় খুব কমই পাবেন ট্রাম্প। তারপরও সেখানকার বিখ্যাত বুখারা রেস্তোরাঁয় খাবেন তিনি। প্রাচীন এ রেস্তোরাঁটি ১৯৭৭ সালে প্রতিষ্ঠিত। ট্রাম্পের পছন্দ অনুযায়ী খাবারের ব্যবস্থাও করছে ভারত।

মেন্যুতে রাখা হচ্ছে তার পছন্দের সব ডিশ! ডায়েট কোক, ম্যাক ডোনাল্ডসের খাবার, মিটলোফ (কুচি কুচি করা মাংস) খেতে খুবই পছন্দ করেন। হোয়াইট হাউস থেকে আসা বন্ধুর জন্য এসব খাবার প্রস্তুত করছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

তার সফরে খাবারের মেন্যুতে আরও কী কী থাকতে পারে তার একটা তালিকা দেয়া হল- চকলেট শেক ভীষণ পছন্দ ট্রাম্পের। ফিলেট টু ফিশ স্যান্ডউইচ খেতে ভালোবাসেন তিনি। ভালোবাসেন বেকন অ্যান্ড এগ খেতে। সঙ্গে সি-ফুড।

পছন্দের তালিকায় রয়েছে ম্যাক ডনাল্ড বিগ ম্যাক, পিৎজা, কেএফসি চিকেন ফ্রায়েড বাকেট এবং আলুর চিপস। শেষ পাতে চকলেট কেক বা চেরি ভ্যানিলা আইসক্রিম পছন্দ করেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ট্রাম্পের ভারত সফর