শুনেছি, মেলানিয়া খুব সুন্দরী: অধীর আগ্রহে আহমেদাবাদ

  যুগান্তর ডেস্ক ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ছবি: এএফপি

‘শুনেছি, মেলানিয়া খুব সুন্দরী। তাকে দেখার খুব ইচ্ছা। জানি না এত ভিড়ের মধ্যে তার কাছাকাছি পৌঁছতে পারব কি না’, কথাগুলো বলেছিলেন কেশিবেন বালাভাই সারানিয়া নামের ব্যক্তি।

ট্রাম্প-পত্নীকে দেখতে সোমবার তাই হাতে কোনো কাজ রাখবেন না। শুধু সারানিয়া নয়, আহমেদাবাদে তার মতো শত শত তরুণ-তরুণী অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন কখন ট্রাম্প-মেলানিয়া ভারতের মাটি স্পর্শ করবেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়ার দু’দিনের ভারত সফরে আজ আহমেদাবাদ আসছেন। বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়াম উদ্বোধন করতে সেখানে যাবেন তারা। তাদের এ সফরকে ঘিরে তাই উচ্ছ্বাসের কমতি নেই আহমেদাবাদের জনগণের।

তাজমহল যদি কানে কানে ভালোবাসার গল্প শোনায়, তাহলে আহমেদাবাদ দেখাবে দেশের সংস্কৃতি-ঐতিহ্যের রূপ। মেলানিয়াকে স্বাগত জানাতে রঙের মাধুরীতে সেজে উঠেছে ঐতিহ্য নগরী।

জানা গেছে, সূর্যাস্তের ম্লান আলোয় তাজমহল দেখতেই বেশি আগ্রহী ট্রাম্প-পত্নী। আহমেদাবাদে পা ছুঁইয়েই নাকি বিমানে চেপে সোজা তাজমহলে পৌঁছে যেতে চান মেলানিয়া। তাই আহমেদাবাদে ট্রাম্প-দম্পতির সফরের সময় কাটছাঁট করা হতে পারে বলেও শোনা যাচ্ছে।

‘আহমেদাবাদ ৬০০, পোট্রেটস অব দ্য সিটি’র সহ-কর্ণধার, শিল্পী শর্মিলা সাগরা বলেন, ‘মেলানিয়ার মন ভরাতে কোনো ত্র“টি রাখবে না আহমেদাবাদ। ভারতের ইতিহাস ৬০০ বছরের এই ঐতিহ্য, স্থাপত্য-ভাস্কর্য মেলানিয়াকে ভারতের সংস্কৃতির সঙ্গে পরিচয় করাবে।’

আহমেদাবাদে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি প্রায় শেষ। বিমানবন্দর থেকে মোতেরা স্টেডিয়াম পর্যন্ত ২২ কিলোমিটার পথ সেজে উঠেছে নানা রঙিন পোস্টার-হোর্ডিংয়ে। পিঠে ট্রাম্প-মোদির রঙিন ট্যাটু এঁকে তৈরি তরুণীরাও।

মার্কিন প্রেসিডেন্টের থেকে ফার্স্ট লেডিকে দেখতেই বেশি উৎসাহী আহমেদাবাদিরা, বলেছেন শিল্পী শর্মিলা সাগরা।

জাফর খান ওরফে প্রথম মোজাফফর শাহের নাতি প্রথম আহমেদ শাহ ১৪১১ সালে সবরমতি নদীর তীরে আহমেদাবাদ শহর প্রতিষ্ঠা করেন। আহমেদাবাদকে তিনি উপাধি দিয়েছিলেন ‘শহর-ই-মুয়াজ্জাম’ অর্থাৎ মহান শহর। স্থানীয়রা অবশ্য আহমেদাবাদকে ‘আমদাবাদ’ বলতেই অভ্যস্ত।

ট্রাম্প-মেলানিয়ার সফরের দু’দিন পরেই আহমেদাবাদ শহরের ৬০৯তম জন্মদিন। দিল্লি-মুম্বাইকে পেছনে ফেলে ভারতের প্রথম হেরিটেজ শহরের মর্যাদা পেয়েছে আহমেদাবাদ। প্রাচীন এ শহর মহাত্মা গান্ধীর স্বাধীনতা সংগ্রামের নিদর্শন বহন করছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ট্রাম্পের ভারত সফর

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত