মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় মৃত্যু বাড়ছে ইরানে
jugantor
মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় মৃত্যু বাড়ছে ইরানে
২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১২৩ জন, আক্রান্ত ৯৬৬

  যুগান্তর ডেস্ক  

২২ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার জালে বন্দি ইরান। ফলে প্রাণঘাতী করোনার পরীক্ষা কিট আমদানি করতে পারছে না তেহরান। এর জেরে প্রতিদিনই এ ভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

কখনও কখনও আগের দিনকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে। করোনাভাইরাসের এ দুর্যোগের জন্য যুক্তরাষ্ট্রকেই দুষছেন ইরানের সরকারি কর্মকর্তারা। এমন পরিস্থিতিতেও ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ইরানকে করোনা থেকে বাঁচাতে পারবে না বলে জানান তিনি। তেহরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ইরানে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৯৬৬ জনকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। একই সময়ে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১২৩ জন। শনিবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কিয়ানুশ জাহানপুর এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২০ হাজার ৬১০ জনে পৌঁছেছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫৫৬ জনে। তবে আক্রান্তদের মধ্যে ৭ হাজার ৬৩৫ জন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বলে জানিয়েছেন ইরানি এ কর্মকর্তা।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে ইরানেই ভয়াবহ করোনার প্রকোপ শুরু হয়েছে। এর প্রভাবে দেশটির অর্থনীতিও বড় ধরনের সংকটের মুখে পড়েছে। মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে দেশটি বাইরে থেকে করোনাভাইরাস পরীক্ষার কিট সংগ্রহ করতে পারছে না।

করোনা কিট সংগ্রহ না করতে পারার এ তথ্য দেশটির আধা-সরকারি সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন ইরানের মেডিকেলসামগ্রী আমদানিকারকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মেডিকেল ইকুইপমেন্ট ইম্পোর্টার্স।

সংগঠনটি পরিচালনা বোর্ডের সদস্য রামিন ফাল্লাহ বলেন, করোনাভাইরাস পরীক্ষা কিট ইরানকে দেয়ার জন্য অনেক কোম্পানি প্রস্তুত আছে। কিন্তু মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে আমরা তাদের কাছে অর্থ পাঠাতে পারছি না।

শনিবার দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি জানান, ইরানে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের সঙ্গে লড়াই করতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাসহ সামাজিক দূরত্ব বজার রাখার পদক্ষেপ ২ থেকে ৩ সপ্তাহ ধরে আরোপ করা হবে। এ সময়ের মধ্যে সংকট অনেকটা কেটে যাবে বলে আশা করছেন তিনি।

রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশনে রুহানি বলেন, ‘অর্থনৈতিক উৎপাদন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় সব কিছু করতে হবে।’ পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে ‘প্রতিবৈপ্লবিকরা’ অর্থনৈতিক উৎপাদন বন্ধ করে দেয়ার ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগও করেছেন তিনি।

এদিকে, শুক্রবার ইরানের ভয়াবহ এ সংকট মুহূর্তে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বিশ্ব সম্প্রদায়কে এ দুর্যোগ মোকাবেলায় ইরানের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান তিনি।

পাকিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেল পিটিভি নিউজ জানায়, শুক্রবার করোনাভাইরাস মোকাবেলায় গঠিত উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন কমিটির বৈঠক শেষে ইমরান খান এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান। এর আগেও বেশ কয়েকবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি এমন আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আরোপিত নিপীড়নমূলক নিষেধাজ্ঞার শিকার ইরান। এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলে তেহরান আরও নির্বিঘ্নে করোনাভাইরাসবিরোধী অভিযান চালাতে পারবে।

এ সময় ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য মার্কিন প্রশাসনের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বানও জানান ইমরান খান। এর আগে গত সপ্তাহেও ইরানের ওপর আরোপিত মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। শুক্রবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি চীন সফর শেষে ইসলামাবাদে ফিরেও একই আহ্বান জানান।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় মৃত্যু বাড়ছে ইরানে

২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১২৩ জন, আক্রান্ত ৯৬৬
 যুগান্তর ডেস্ক 
২২ মার্চ ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার জালে বন্দি ইরান। ফলে প্রাণঘাতী করোনার পরীক্ষা কিট আমদানি করতে পারছে না তেহরান। এর জেরে প্রতিদিনই এ ভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃত্যুর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

কখনও কখনও আগের দিনকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে। করোনাভাইরাসের এ দুর্যোগের জন্য যুক্তরাষ্ট্রকেই দুষছেন ইরানের সরকারি কর্মকর্তারা। এমন পরিস্থিতিতেও ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ইরানকে করোনা থেকে বাঁচাতে পারবে না বলে জানান তিনি। তেহরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ইরানে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ৯৬৬ জনকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। একই সময়ে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১২৩ জন। শনিবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কিয়ানুশ জাহানপুর এসব তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২০ হাজার ৬১০ জনে পৌঁছেছে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৫৫৬ জনে। তবে আক্রান্তদের মধ্যে ৭ হাজার ৬৩৫ জন চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বলে জানিয়েছেন ইরানি এ কর্মকর্তা।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর মধ্যে ইরানেই ভয়াবহ করোনার প্রকোপ শুরু হয়েছে। এর প্রভাবে দেশটির অর্থনীতিও বড় ধরনের সংকটের মুখে পড়েছে। মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে দেশটি বাইরে থেকে করোনাভাইরাস পরীক্ষার কিট সংগ্রহ করতে পারছে না।

করোনা কিট সংগ্রহ না করতে পারার এ তথ্য দেশটির আধা-সরকারি সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন ইরানের মেডিকেলসামগ্রী আমদানিকারকদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মেডিকেল ইকুইপমেন্ট ইম্পোর্টার্স।

সংগঠনটি পরিচালনা বোর্ডের সদস্য রামিন ফাল্লাহ বলেন, করোনাভাইরাস পরীক্ষা কিট ইরানকে দেয়ার জন্য অনেক কোম্পানি প্রস্তুত আছে। কিন্তু মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে আমরা তাদের কাছে অর্থ পাঠাতে পারছি না।

শনিবার দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি জানান, ইরানে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের সঙ্গে লড়াই করতে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাসহ সামাজিক দূরত্ব বজার রাখার পদক্ষেপ ২ থেকে ৩ সপ্তাহ ধরে আরোপ করা হবে। এ সময়ের মধ্যে সংকট অনেকটা কেটে যাবে বলে আশা করছেন তিনি।

রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশনে রুহানি বলেন, ‘অর্থনৈতিক উৎপাদন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় সব কিছু করতে হবে।’ পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে ‘প্রতিবৈপ্লবিকরা’ অর্থনৈতিক উৎপাদন বন্ধ করে দেয়ার ষড়যন্ত্র করছে বলে অভিযোগও করেছেন তিনি।

এদিকে, শুক্রবার ইরানের ভয়াবহ এ সংকট মুহূর্তে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বিশ্ব সম্প্রদায়কে এ দুর্যোগ মোকাবেলায় ইরানের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান তিনি।

পাকিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেল পিটিভি নিউজ জানায়, শুক্রবার করোনাভাইরাস মোকাবেলায় গঠিত উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন কমিটির বৈঠক শেষে ইমরান খান এক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান। এর আগেও বেশ কয়েকবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি এমন আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

পাক প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আরোপিত নিপীড়নমূলক নিষেধাজ্ঞার শিকার ইরান। এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হলে তেহরান আরও নির্বিঘ্নে করোনাভাইরাসবিরোধী অভিযান চালাতে পারবে।

এ সময় ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের জন্য মার্কিন প্রশাসনের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বানও জানান ইমরান খান। এর আগে গত সপ্তাহেও ইরানের ওপর আরোপিত মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। শুক্রবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি চীন সফর শেষে ইসলামাবাদে ফিরেও একই আহ্বান জানান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস