সৌদিতে থুথু ফেলার অভিযোগে আটক
jugantor
সৌদিতে থুথু ফেলার অভিযোগে আটক

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৮ মার্চ ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সৌদি আরবে একটি বিপণিবিতানের ট্রলিতে থুথু ফেলায় এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে শিরশ্ছেদ করা হতে পারে। গালফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় হাইলে শপিং ট্রলিতে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তি থুথু ফেলেন। তিনি একসময় কাজটি করলেন, যখন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সর্বাত্মক জোর চেষ্টা চালাচ্ছে সৌদি সরকার।

জানা গেছে, ওই ব্যক্তিকে আটকের পর নির্দিষ্ট দূরত্বে থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। কিন্তু কী উদ্দেশ্যে তিনি এমনটি করেছেন, তা এখনও পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি। খবরে বলা হয়েছে, বিপণিবিতানে থুথু ফেলা সৌদিতে বড় ধরনের অপরাধ। এ ধরনের কাজ ধর্মীয় ও আইনগতভাবে নিন্দনীয়। এই আইন লঙ্ঘনকে সমাজে ইচ্ছাকৃতভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দেয়া ও জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেয়ার অপচেষ্টা হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। কাজেই এই অপরাধের সাজা হিসেবে ওই ব্যক্তির শির-েদও করা হতে পারে। শুক্রবার শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত করোনাভাইরাসে সৌদিতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। আর মোট আক্রান্ত হয়েছে এক হাজার ১২ জন।

সিঙ্গাপুরে শারীরিক দূরত্ব লঙ্ঘনে ৭ হাজার ডলার জরিমানা : করোনাভাইরাস প্রতিরোধে শারীরিক দূরত্ব বিষয়ে নতুন নিয়ম লঙ্ঘনকারীর বিরুদ্ধে কঠোর জরিমানা জারি করছে সিঙ্গাপুর। শুধু জরিমানা নয়, দোষ প্রমাণ হলে কারাদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হতে হবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে। শুক্রবার থেকে এশিয়ার দেশটিতে এ জরিমানা ও দণ্ড কার্যকর করছে প্রশাসন। এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, যিনি বা যারা পাবলিক প্লেসে এক মিটার দূরত্বের (৩ ফুট) বিষয়টি লঙ্ঘন করবেন, দোষ প্রমাণিত হলে তাকে সাত হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা, অথবা সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮৩ জন। মারা গেছেন দু’জন। আর সুস্থ হয়েছেন ১৭২ জন। বিশ্বের ১৯৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ২৪ হাজার ৮২৬ জন মানুষ।

সৌদিতে থুথু ফেলার অভিযোগে আটক

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৮ মার্চ ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সৌদি আরবে একটি বিপণিবিতানের ট্রলিতে থুথু ফেলায় এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে শিরশ্ছেদ করা হতে পারে। গালফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় হাইলে শপিং ট্রলিতে অজ্ঞাত ওই ব্যক্তি থুথু ফেলেন। তিনি একসময় কাজটি করলেন, যখন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সর্বাত্মক জোর চেষ্টা চালাচ্ছে সৌদি সরকার।

জানা গেছে, ওই ব্যক্তিকে আটকের পর নির্দিষ্ট দূরত্বে থেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। কিন্তু কী উদ্দেশ্যে তিনি এমনটি করেছেন, তা এখনও পরিষ্কারভাবে জানা যায়নি। খবরে বলা হয়েছে, বিপণিবিতানে থুথু ফেলা সৌদিতে বড় ধরনের অপরাধ। এ ধরনের কাজ ধর্মীয় ও আইনগতভাবে নিন্দনীয়। এই আইন লঙ্ঘনকে সমাজে ইচ্ছাকৃতভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দেয়া ও জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেয়ার অপচেষ্টা হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। কাজেই এই অপরাধের সাজা হিসেবে ওই ব্যক্তির শির-েদও করা হতে পারে। শুক্রবার শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত করোনাভাইরাসে সৌদিতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। আর মোট আক্রান্ত হয়েছে এক হাজার ১২ জন।

সিঙ্গাপুরে শারীরিক দূরত্ব লঙ্ঘনে ৭ হাজার ডলার জরিমানা : করোনাভাইরাস প্রতিরোধে শারীরিক দূরত্ব বিষয়ে নতুন নিয়ম লঙ্ঘনকারীর বিরুদ্ধে কঠোর জরিমানা জারি করছে সিঙ্গাপুর। শুধু জরিমানা নয়, দোষ প্রমাণ হলে কারাদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হতে হবে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে। শুক্রবার থেকে এশিয়ার দেশটিতে এ জরিমানা ও দণ্ড কার্যকর করছে প্রশাসন। এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, যিনি বা যারা পাবলিক প্লেসে এক মিটার দূরত্বের (৩ ফুট) বিষয়টি লঙ্ঘন করবেন, দোষ প্রমাণিত হলে তাকে সাত হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা, অথবা সর্বোচ্চ ছয় মাসের কারাদণ্ড অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৮৩ জন। মারা গেছেন দু’জন। আর সুস্থ হয়েছেন ১৭২ জন। বিশ্বের ১৯৯টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ২৪ হাজার ৮২৬ জন মানুষ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন