বিজেপির প্রতিষ্ঠা দিবসে মোদি

ভারতের সামনে লম্বা লড়াই

  যুগান্তর ডেস্ক ০৭ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাস মহামারী নিয়ে দেশবাসীকে আরও একবার সতর্ক করে দিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বললেন, বড় লড়াইয়ের মুখে রয়েছে দেশ। জয় না আসা পর্যন্ত করোনার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। সোমবার বিজেপির প্রতিষ্ঠা দিবসে এই হুশিয়ারি দেন মোদি। দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠা দিবসে বিজেপি কর্মীদের উদ্দেশে মোদি বলেন, ‘এ বছর এমন একটা সময়ে দলের প্রতিষ্ঠা দিবস পড়েছে, যখন শুধু আমাদের দেশই নয়, পুরো বিশ্ব কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। মানবতার এই সংকটের সময় একনিষ্ঠভাবে দেশের সেবা করে যেতে হবে।’

করোনা মোকাবেলায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটিতে তিন সপ্তাহের লকডাউন চলছে। করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু দ্রুতগতিতে বাড়লেও লকডাউন সফল বলে দাবি করেছেন মোদি। তিনি বলেন, ‘লকডাউনে পরিণত বিচারবুদ্ধির পরিচয় দিয়েছেন দেশবাসী। সামনে লম্বা লড়াই। বিজেপির সব কর্মীর সামনে রাষ্ট্রসেবা-মানবসেবার দায়িত্ব। গরিব মানুষের কাছে পর্যাপ্ত ত্রাণ পৌঁছাচ্ছে কি না, খেয়াল রাখতে হবে। ত্রাণ পৌঁছে দিতে যাওয়ার সময় মাস্ক পরে নেবেন। কেনা মাস্ক না থাকলে কাপড় দিয়ে মুখ ঢেকে নেবেন।’ ভারতে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ১১৮। আক্রান্ত ৪ হাজার ৩১৪ জন। কোভিড-১৯ রোগীর চিকিৎসায় ব্যস্ত সময় পার করছে হাসপাতালগুলো। যারা নিজেদের জীবনবাজি রেখে কাজ করে চলেছেন, সেসব ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী এবং জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত মানুষকে ধন্যবাদপত্র লিখে ধন্যবাদ জানানোর পরামর্শ দেন মোদি। এর পাশাপাশি কেন্দ্রীয় সরকারের ‘আরোগ্য অ্যাপ’ ডাউনলোড করে পরিচিত আরও ৪০ জনকে ওই অ্যাপ ডাউনলোড করানোর কথা বলেন তিনি।

২৯ চিকিৎসাকর্মীর দেহে করোনা, মুম্বাইয়ের ওকহার্ড হাসপাতাল বন্ধ : ভারতের মুম্বাইয়ের ওকহার্ড হাসপাতাল সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। হাসপাতালের তিন চিকিৎসক ও ২৬ নার্স করোনা আক্রান্ত শনাক্তের পর সোমবার এটা বন্ধ করে দেয়া হয়। হাসপাতালটিকে সংক্রমিত এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। চিকিৎসক ও নার্সদের মধ্যে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণ জানতে তদন্ত চলছে। তবে ভর্তি রোগীদের করোনা পরীক্ষা অব্যাহত রয়েছে। দু’বারের পরীক্ষায় যতক্ষণ না ফল নেতিবাচক আসছে, হাসপাতালে কেউ ঢুকতে বা বেরোতে পারবে না বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এনডিটিভি জানায়, করোনার চিকিৎসা প্রদানের জন্য ভারত রকারের তালিকায় থাকা হাসপাতালগুলোর একটি ওকহার্ড। ৭০ ছর বয়সী এক কাভিড-১৯ পজিটিভ রোগীর দেখাশোনায় নিয়োজিত দু’জন নার্সের মধ্যে প্রথমে করোনার সংক্রমণ ছড়ায়। তাদের কাছ থেকে সংক্রমিত হন অপর ২৭ জন নার্স ও চিকিৎসক। আক্রান্ত নার্সদের কোয়ার্টার থেকে হাসপাতালে নিয়ে এসে আলাদা কেবিনে রাখা হয়েছে।

আকাশে টর্চ মেরে করোনা সংকটের সমাধান হবে না -মোদিকে খোঁচা রাহুলের : করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে কেন্দ্রের ভূমিকার সমালোচনা করলেন প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের নেতা রাহুল গান্ধী। ‘যথেষ্ট পরিমাণে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে না’- শনিবার এমন টুইট করেছেন তিনি। টুইটে মোদিকে কটাক্ষ করে তিনি আরও বলেছেন, ‘হাততালি দিয়ে, আকাশে টর্চের আলো ফেলে সমস্যার সমাধান হবে না। সংক্রমণ প্রতিরোধে ভারতে যথেষ্ট পরিমাণে নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে না। প্রতি লাখে ২৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। সেখানে পাকিস্তানে প্রতি লাখে ৬৭ জনের, আর দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রতি লাখে ৭ হাজার ৭০০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।’ তার দাবির স্বপক্ষে এক তালিকা টুইটারে শেয়ার করেছেন রাহুল গান্ধী। সেই তথ্য উল্লেখ করে কংগ্রেস সাংসদের প্রশ্ন-‘এত কম পরীক্ষা কেন করা হচ্ছে? কারণ প্রধানমন্ত্রী এসব পাত্তা দেন না।’

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত