সবার জন্য ফ্রি টিকা চান বিশ্ব নেতারা

যুক্তরাষ্ট্রকে টিকার প্রথম চালান দেবে ফ্রান্সের কোম্পানি, তীব্র সমালোচনা

  যুগান্তর ডেস্ক ১৫ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

করোনাভাইরাসের টিকা ও চিকিৎসা সবার জন্য বিনামূল্যে হওয়া উচিত বলে দাবি করেছেন বিশ্বের সাবেক ও বর্তমান রাজনৈতিক নেতারা। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানসহ বিশ্বের ১৪০ জনেরও বেশি নেতার স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ দাবি করা হয়েছে। জাতিসংঘের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নীতি নির্ধারণকারী শাখা ওয়ার্ল্ড হেলথ অ্যাসেম্বলিকে (ডব্লিউএইচএ) চিঠিটি দেয়া হয়েছে। নেতাদের দাবি, বিজ্ঞান প্রত্যেক রাষ্ট্রের মধ্যে ভাগ করার নিয়ম থাকলেও করোনার টিকার পেটেন্ট কাউকে শেয়ার করা উচিত হবে না। করোনা টিকার প্রথম চালান যুক্তরাষ্ট্রকে দেয়া হবে বলে ফ্রান্সের ফার্মাসিউটিক্যালস জায়ান্ট কোম্পানি সানোফির ঘোষণার পরই চিঠিটি সামনে এলো। খবর এএফপি ও এপির।

গত সপ্তাহে ডব্লিউএইচএ’র বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। চিঠিতে স্বাক্ষরকারী নেতারা ডব্লিউএইচএকে ভ্যাকসিনের বিষয়ে কিছু জানাতে সমাবেশের আহ্বান জানিয়েছিল। চিঠিতে বলা হয়, ‘সরকার ও আন্তর্জাতিক অংশীদারদের অবশ্যই বিশ্বব্যাপী ঐক্যবদ্ধ হতে হবে যে, যখন একটি নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন তৈরি হবে, তখন এটি দ্রুতমাত্রায় উৎপাদন নিশ্চিত করা এবং তা সব মানুষ ও সব দেশের জন্য বিনামূল্যে সরবরাহ করা। কোভিড-১৯ এর সব ধরনের চিকিৎসা, ডায়াগনস্টিকস এবং অন্যান্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রেও একই শর্ত প্রযোজ্য হবে।’

ওই চিঠিতে সেনেগালের প্রেসিডেন্ট ম্যাকি সাল এবং ঘানার প্রেসিডেন্ট নানা আকুফো-অ্যাডোও স্বাক্ষর করেছিলেন। সাবেক প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীদের মধ্যে রয়েছেন শওকত আজিজ, জ্যান পিটার বালকেন্দে, জোস ম্যানুয়েল ব্যারোসো, গর্ডন ব্রাউন, হেলেন ক্লার্ক, ফিলিপ গঞ্জালেজ, এলেন জনসন সারলিফ, আলেক্সান্দার কাওয়াসনিউস্কি, মেরি ম্যাকালিস, ওলুসিগুন ওবাসানজো এবং জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস।

ফ্রান্সের সানোফি কোম্পানি যুক্তরাষ্ট্রকে প্রথম ভ্যাকসিন দেবে এমন খবর প্রকাশের পর ইউরোপে ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে। ফ্রান্স বলছে, বিশ্বজুড়ে প্রায় ৩ লাখ প্রাণ কেড়ে নেয়া এ ভাইরাস সংকটে এমন পদক্ষেপ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। বুধবার সানোফির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পল হাডসন বলেছেন, ভ্যাকসিনের গবেষণায় অর্থ সহায়তা করায় প্রথম চালানটি পাবে যুক্তরাষ্ট্র। ব্ল–মবার্গ নিউজকে তিনি বলেন, ভ্যাকসিনের প্রি-অর্ডার করার অধিকার যুক্তরাষ্ট্রের আছে। কারণ তারা ঝুঁকি নিয়ে এ প্রকল্পে বিনিয়োগ করেছে। যুক্তরাষ্ট্র সবার আগে ভ্যাকসিন পাবে বলে আমি ইউরোপে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছি।

ফরাসি সরকারের কাছে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে কোটি কোটি ইউরো গবেষণা ঋণ নিয়ে কার্যক্রম চালিয়ে আসছে প্যারিসভিত্তিক এ ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি। করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে কোম্পানিটির এমন মন্তব্যের পর ইউরোপে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার ফ্রান্সের শিক্ষামন্ত্রী ফ্রেডেরিক ভিদাল বলেন, করোনার একটি কার্যকর ভ্যাকসিনকে অবশ্যই বিশ্বের সব জনসাধারণের জন্য সহজলভ্য হতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রকে অগ্রাধিকারভিত্তিতে ভ্যাকসিন দেয়ার পরিকল্পনা করা হলে সেটি হবে অপমানজনক। ফ্রান্সের উপ-অর্থমন্ত্রী অ্যাগনেস প্যানিয়ার-রুনাচার বলেন, তিনি সানোফির নির্বাহীর ওই মন্তব্যের পর কোম্পানিটির ফ্রান্স প্রধান ওলিভার বোগিলটের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। তিনি আমাকে বলেছেন, ভ্যাকসিন এলে তা সব দেশের জন্যই সহজলভ্য হবে। অবশ্যই তা ফ্রান্সও পাবে। কারণ ফ্রান্সেও তাদের উৎপাদন সক্ষমতা আছে।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত