প্রথম করোনামুক্ত ইউরোপীয় দেশ স্লোভেনিয়া

  যুগান্তর ডেস্ক ১৬ মে ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইউরোপের প্রথম দেশ হিসেবে নিজেদেরকে করোনা মহামারীমুক্ত বলে ঘোষণা করেছে স্লোভেনিয়া। সংক্রমণ ও মৃতের হার কমে আসার পর শুক্রবার এ ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার। খুলে দেয়া হয়েছে দেশের সীমান্ত। তবে অনেক মানুষের সমাগমের মতো কিছু ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা বজায় থাকছে। তবে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্লোভেনিয়ায় করোনা ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি এখনও আছে। খবর এএফপির।

স্লোভেনিয়ায় ২০ লাখ মানুষের বসবাস। দেশটির একদিকে আছে ইতালি। করোনা মহামারীতে যে দেশগুলো সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, ইতালি তার একটি। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, স্লোভেনিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ১৫০০ মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ১০৩ জনের। তবে সংক্রমণের হার যথেষ্ট কমেছে। এমন অবস্থায় দেশটির সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত সব দেশের মানুষের জন্য সীমান্ত খুলে দেয়া হবে। তার বাইরের কোনো দেশের লোক স্লোভেনিয়ায় ঢুকতে চাইলে তাকে থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনে।

শুক্রবার স্লোভেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী জানেজ জানসা বলেন, ‘এখন ইউরোপে স্লোভেনিয়াতেই করোনা পরিস্থিতি সবচেয়ে ভালো। সুতরাং আমরা ঘোষণা করতেই পারি, আমাদের দেশে আর ব্যাপক মহামারী নেই।’ দু’মাস আগে স্লোভেনিয়া সরকার দেশজুড়ে অতি মহামারী পরিস্থিতি ঘোষণা করেছিল। স্লোভেনিয়া সরকারের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা এখনও রয়েছে। সুতরাং কয়েকটি ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা বজায় রাখতে হবে। একসঙ্গে অনেক লোক জড়ো হতে পারবে না। প্রকাশ্য স্থানে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করে রাখা হয়েছে।

জুন থেকে অবাধ চলাচলের অনুমতি পাবে ইতালীয়রা : লকডাউন প্রত্যাহার করে আগামী ৩ জুন থেকে জনগণকে দেশজুড়ে অবাধ চলাচলের অনুমতি দিতে যাচ্ছে ইতালি।

এছাড়া ১৮ মে থেকে ইতালির এক অঞ্চল থেকে আরেক অঞ্চলে ভ্রমণের অনুমতি দেয়া হবে। শুক্রবার দেশটির সরকারের এক খসড়া আদেশের বরাত দিয়ে রয়টার্স এ খবর দিয়েছে। করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় গত মার্চ মাসে ইতালিজুড়ে কঠোর কড়াকড়ি আরোপ করে দেশটির সরকার। লকডাউন ঘোষণা করে অবাধ চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত