কথা বলেন অবমাননার সুরে

বিশ্বনেত্রীদের কানাকড়িও দাম দেন না ট্রাম্প

  যুগান্তর ডেস্ক ০১ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিশ্বনেতাদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কয়েকশ’ ফোন কল প্রকাশ করেছে মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন। এর আগে ওয়াটার গেট কেলেঙ্কারি নিয়ে অজানা তথ্য প্রকাশ করেছিল গণমাধ্যমটি। এবারের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে বাইরের দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে কীভাবে কথা বলেন ট্রাম্প। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোগানের মতো নেতাদের সঙ্গে অপ্রস্তুত ও আপত্তিকর বিষয়ে কথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট। তিনি নারী নেত্রীদের কানাকড়িও দাম দেন না- তার ফোন কলে এর প্রমাণ মিলেছে। বিশ্বনেত্রীদের সঙ্গে অবমাননার সুরে কথা বলেন ট্রাম্প।

সিএনএনকে দেয়া এক প্রতিবেদনে মার্কিন সাংবাদিক কার্ল বার্নস্টেইন জানান, হোয়াইট হাউস এবং গোয়েন্দা সূত্রে উচ্চ শ্রেণিবদ্ধ কলগুলোর সঙ্গে তিনি পরিচিত। বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধানদের সঙ্গে ফোন কলগুলোতে ট্রাম্প এতটাই আপত্তিজনক ছিলেন যে, এই কলের মাধ্যমে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জাতীয় সুরক্ষা ঝুঁকি তৈরি করেছেন বলে মনে করেন সিনিয়র মার্কিন কর্মকর্তারা। জাতীয় সুরক্ষা উপদেষ্টা এইচআর ম্যাকমাস্টার, জন বোল্টন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস, সেক্রেটারি অব স্টেট অব রেক্স টিলারসন এবং হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ জন কেলি এবং গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলেন, ট্রাম্প কথা বলার সময় যে আচরণ করেন তা বিভ্রান্তিকর। তার প্রধান আক্রমণ ছিল নারী রাষ্ট্রপ্রধানদের বিরুদ্ধে। সাবেক বিট্রিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে’র সঙ্গে তার কথোপকথন ছিল অবমাননামূলক। তেরেসা মে’কে দুর্বল এবং ভীতু বলেন ট্রাম্প। এর আগে জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেলকে তিনি বোকা বলে সম্বোধন করেন এবং তার সঙ্গে রুশ যোগসাজশের অভিযোগ করেন। ট্রাম্পের এ সমালোচনাকে ‘হাঁসের পিঠে জল ফেলার মতো’ গ্রহণ করেছিলেন মার্কেল। ট্রাম্প যখন ক্ষমতায় বসেন তখন তার জাতীয় উপদেষ্টা ছিলেন ড্যান কোটস। তিনি বলেন, বৈদেশিক সম্পর্ক ও বিশ্বজুড়ে মার্কিন নীতি বিষয়ে ট্রাম্পের ফোন কল আলোচনা ছিল উদ্বেগজনক। কোনো ধরনের প্রস্তুতি ছাড়াই অপ্রীতিকর বিষয়ে কথা বলতেন প্রেসিডেন্ট।’

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে সাবেক চিফ অব স্টাফ কেলি ব্যক্তিগতভাবে বেশ কয়েকটি ব্যক্তির কাছে মার্কিন জাতীয় সুরক্ষার বিষয়ে প্রেসিডেন্টের ফোন কলের ক্ষতিকারক প্রভাবের কথা উল্লেখ করেছেন। দুটি সূত্র বিদেশি নেতাদের সঙ্গে প্রেসিডেন্টের কথোপকথনকে মহামারী সম্পর্কে ট্রাম্পের সাম্প্রতিক প্রেস ব্রিফিংয়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন। ফক্স নিউজ টিভি হোস্ট এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের সূত্রে বলা হয়, ভাইরাসের ভয়াবহতা বা এর আগামীর প্রভাব না বুঝে নিজেই বিশেষজ্ঞের আসনে বসে বক্তব্য ঝেড়েছেন ট্রাম্প।

আরেকটি সূত্র জানিয়েছে, ট্রাম্প নিয়মিতভাবে ফোনে পশ্চিম জোটের অন্য নেতাদের আঘাত করে ও অসন্তুষ্টির সুরে কথা বলেছেন। মার্কেল, তেরেসা, ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রো, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এবং অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনরা ট্রাম্পের আক্রমণাত্মক কথার সম্মুখীন হয়েছেন। একইভাবে প্রতিকূল ও আক্রমণাত্মক উপায়ে তিনি আমেরিকার কয়েকজন গভর্নরের সঙ্গে করোনাভাইরাস নিয়ে আলোচনা করেছিলেন।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত